ব্রেকিং:
কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে পাসে এগিয়ে ফেনী, জিপিএ-৫ এ কুমিল্লা কুমিল্লা বোর্ডে জিপিএ-৫ প্রাপ্তিতে সেরা পাঁচ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কুমিল্লা বোর্ডে এসএসসিতে পাশের হার ৮৫.২২ ভাগ, বেড়েছে জিপিএ-৫ কুমিল্লা বোর্ডে পাশের হারে ছেলেরা এগিয়ে , জিপিএ ৫-এ মেয়েরা স্বাস্থ্যবিধি মানাতে মাঠে থাকছে ভ্রাম্যমাণ আদালত করোনা রোধে জনপ্রতিনিধিদের আরও যুক্ত করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর মুজিববর্ষ উপলক্ষে জাতিসংঘের স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত দোকান খালে হেলে পড়েছে চাটখিলে সৌদি কারাগারে বন্দি শিশুসন্তানসহ নোয়াখালীর মেয়ে জেসমিন কোম্পানীগঞ্জে কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতির ওপর হামলা পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় শিশু সন্তানসহ গৃহবধূকে হত্যা নোয়াখালীতে একদিনে রেকর্ড আক্রান্ত ফেনীতে বজ্রপাতে যুবকের মৃত্যু বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবাষির্কী উপলক্ষে জাতিসংঘের স্মারক ডাকটিকিট ‘সেনাবাহিনী দোকান ঘর তুলে না দিলে পথে বসতে হতো’ দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১৭৬৪, মৃত্যু ২৮ উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে বিপর্যয় ঠেকানোর উদ্যোগ বাজেটে এবারও কালো টাকা সাদা করার সুযোগ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতে বাংলাদেশকে সহায়তা দিতে আগ্রহী মিশর বাংলাদেশকে আরো করোনা চিকিৎসা সরঞ্জাম দিল যুক্তরাষ্ট্র
  • রোববার   ৩১ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪২৭

  • || ০৭ শাওয়াল ১৪৪১

৫৫৩

‘মৃত’ স্ত্রীকে ৭ বছর পর প্রেমিকের বাসায় খুঁজে পেলেন স্বামী!

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১২ মার্চ ২০২০  

স্ত্রীকে খুনের দায়ে এক মাস জেল খাটতে হয়েছিল। সেই ‘মৃত’ স্ত্রীকে অবশেষে ভুক্তভোগী যুবই খুঁজে বের করেছেন। সাত বছর পর গত রোববার পুলিশের সহায়তায় তিনি স্ত্রীকে প্রেমিকের সঙ্গে ধরে ফেলেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৩ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি উড়িষ্যার বাসিন্দা অভয় সুতারের সঙ্গে ইতিশ্রী মহারানার বিয়ে হয়। কিন্তু বিয়ের দুই মাস পরই শ্বশুরবাড়ি থেকে পালিয়ে নিখোঁজ হন ওই গৃহবধূ। তাকে খুঁজে না পেয়ে ২০১৩ সালের ২০ এপ্রিল পাতকুরা থানায় অভিযোগ জানিয়েছিলেন স্বামী অভয়।

ইতিশ্রী নিখোঁজ হওয়ার পর তার বাবা প্রহ্লাদ মহারানা ওই বছরের মে মাসে পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন। সেখানে পণের জন্য তার মেয়েকে অত্যাচার করে মেরে ফেলার অভিযোগ করেন তিনি। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই অভয়কে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। সেই গ্রেপ্তারির পর এক মাস জেল খেটে জামিনে মুক্ত হন অভয়।

কিন্তু জেল থেকে ছাড়া পেয়ে অভয়ের সন্দেহ হয়, তার স্ত্রী কারও সঙ্গে পালিয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে খোঁজ-খবর চালাতেও শুরু করেন তিনি। অবশেষে পিপলিতে প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীর থাকার খবর পান তিনি। সে কথা পুলিশকে জানান। তারপর পুলিশ পিপলিতে গিয়ে আটক করে ইতিশ্রী ও তার প্রেমিককে। গতকাল সোমবার তাদের দুজনকে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন পাতকুরা থানার এক কর্মকর্তা।

পুলিশ জানায়, বিয়ের দুমাস পর প্রেমিক রাজীবের সঙ্গে গুজরাট পালিয়ে গিয়েছিলেন ইতিশ্রী। সেখানেই সাত বছর ছিলেন তারা। তাদের এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। সম্প্রতি তারা গুজরাট থেকে উড়িষ্যায় ফেরেন।

স্ত্রীর কুকীর্তি ফাঁস হওয়ার পর অভয় বলেন, ‘যখন পুলিশ খুঁজে পেল না, তখন আমিই খোঁজ শুরু করি। বহু জায়গায় খোঁজ চালানোর পর পিপলিতে তাদের খোঁজ পাই। সাত বছর পর নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে পেরে আমি খুশি।’

আন্তর্জাতিক বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর