ব্রেকিং:
দেশব্যাপী তালগাছ রোপণ অভিযান শুরু করেছে আওয়ামী লীগ আরেকটি প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রাথমিকে শূন্য পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া দ্রুত করার সুপারিশ ঢাকা বাইপাস সড়কের চার লেন প্রকল্পের কাজ শুরু পার্বত্য জেলার ১৪২ প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের সুপারিশ এলডিসি থেকে টেকসই উত্তরণে নতুন প্ল্যাটফর্ম আওয়ামী লীগ কেবল রাজনৈতিক দল নয়, জাতির নিউক্লিয়াসও: জয় আওয়ামী লীগ হীরার টুকরো, ভাঙলে বেশি জ্বলজ্বল করে : প্রধানমন্ত্রী খালের পানিতে নেমে ডুবে গেল দুই শিশু ৩০ টাকায় মেলে ভাত মাছ সবজি ডিম গাছে গাছে পাখির নিরাপদ আশ্রয় করে দিচ্ছেন যুবকরা দুই আঙুলে নাক টিপে পথ চলতে হয় এখানে চাচার ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন কলেজছাত্রী এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের ১৬ লাখ টাকা লুটের নেপথ্যে ‘ছিনতাই’ প্রতিবন্ধীদের চলাচলের রাস্তা কেটে ফেলার অভিযোগ লুঙ্গি ও গামছা পরে সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে গ্রেফতার করল এএসআই টিকা উৎপাদনে আন্তর্জাতিক সহায়তা চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিশ্বে মৃত্যু ছাড়াল ৩৯ লাখ, আক্রান্ত ১৮ কোটি আন্তর্জাতিক বাজারে ২ বছরের মধ্যে তেলের দাম সর্বোচ্চ করোনার অতি উচ্চ ঝুঁকিতে দেশের ৪০ জেলা
  • বৃহস্পতিবার   ২৪ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ১২ ১৪২৮

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪২

মৃত্যুপথযাত্রী মুসলিম রোগীকে কলেমা পড়ে শোনালেন হিন্দু ডাক্তার

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২২ মে ২০২১  

ভারতে প্রায়শই ধর্মীয় বিদ্বেষের জেরে হানাহানি ঘটনা ঘটে থাকলেও মহামারি করোনার প্রকোপ যেন ধর্মীয় বিভেদ ভুলিয়ে দিয়ে একসুতোয় বাঁধছে দেশটির জনগণকে। সম্প্রতি তারই এক নজির সামনে এলো আবারো।

রেখা কৃষ্ণা নামে কেরালার এক হিন্দু চিকিৎসক মৃত্যু পথযাত্রী এক মুসলিম করোনা রোগীর কানে পবিত্র কলেমা পড়ে শোনালেন তিনি।

জানা গেছে, কয়েকদিন আগে কেরালার পলাক্করের পতম্বির সেবানা হসপিটাল অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টারে ভর্তি হন করোনা আক্রান্ত এক মুসলিম নারী। ওই হাসপাতালেরই চিকিৎসক রেখা কৃষ্ণা চিকিৎসা করছিলেন তার।

অবস্থা খারাপ হওয়ায় আইসিইউতে রাখা হয় ওই রোগীকে। তবে কিছুতেই তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হচ্ছিল না। চিকিৎসক বুঝতে পারছিলেন ওই রোগীকে কোনোভাবেই সুস্থ করে তোলা সম্ভব নয়।

স্বজনদেরও সেকথা জানিয়েও দিয়েছিলেন তিনি। যেহেতু করোনা আক্রান্ত তাই ওই মহিলার সঙ্গে স্বজনদের কেউই দেখা করতে পারছিলেন না।

এদিকে, একদিন রেখা বুঝতে পারেন রোগীর নাড়ির স্পন্দন ধীর হচ্ছে। ঠিকমতো নিঃশ্বাস নিতেও পারছেন না। সেই সময় রোগীর কানের কাছে গিয়ে আস্তে আস্তে পবিত্র কলেমা পড়তে থাকেন ওই চিকিৎসক। রেখা দেখেন কলেমা পড়ামাত্রই রোগী গভীর শ্বাস নেন। তারপরই মৃত্যু হয় তার।

রেখা জানান, তিনি দুবাইতে বেড়ে উঠেছেন। তাই ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে কমবেশি জানেন তিনি। সে কারণেই মৃত্যুপথযাত্রী করোনা রোগীর কানে কলেমা পড়ে শুনিয়েছিলেন রেখা।

এমনিতেই করোনাক্রান্তদের থাকতে হচ্ছে নিভৃতবাসে। ফলে অবস্থা খারাপ হলেও মৃত্যুপথযাত্রীর সঙ্গেও শেষ দেখা করার সুযোগ পাচ্ছেন না পরিবারের লোকজনও। এসময় চিকিৎসকরাই একমাত্র ভরসা রোগীদের। তাই মুসলিম রোগীর জীবনের শেষ মুহূর্তে ধর্মের ভেদাভেদ ভুলে হিন্দু চিকিৎসকের এমন আচরণ নিঃসেন্দেহে প্রশংসার দাবিদার।