ব্রেকিং:
মাটির ১১১ ফুট নিচে চলবে ট্রেন গ্রামই হবে আগামীর চালিকাশক্তি পোশাক শ্রমিকদের ৮৪ কোটি টাকার সহায়তা বাণিজ্য সফলতায় নারীরা অনেক এগিয়ে আউশ চাষে বিপ্লব শিক্ষার্থীদের বকেয়া উপবৃত্তির টাকা ছাড় রিজেন্টের অনিয়ম খুঁজে বের করে ব্যবস্থা নিয়েছি ‘জোরালো বৈশ্বিক পদক্ষেপের’ আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর মানব পাচারের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান মাসব্যাপী জাতির পিতার শাহাদাত বার্ষিকী পালন এবার প্রকাশ হবে ‘বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিকথা’ সোলারের সড়ক বাতিতে আলোকিত চরহাজারী কোম্পানীগঞ্জে ২৬০০ পরিবারে মাঝে চাল সহায়তা সাংবাদিকদের সাথে জনতা ব্যাংক ম্যনেজারের অসৌজন্যমূলক আচরণ চাটখিল জনতা ব্যাংক শাখায় ১ লাখ টাকার গরমিল নোয়াখালীতে আ.লীগ নেতাকে গুলি দক্ষিণ আফ্রিকার সড়কে এক নোয়াখালী প্রবাসীর মৃত্যু দেশে একদিনে আরো ৪৬ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩৪৮৯ দারুল আকরাম মাদ্রাসার প্রকল্প পূন:অনুমোদনের দাবী প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিধবা মহিলা মেম্বারের আকুতি
  • বৃহস্পতিবার   ০৯ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৫ ১৪২৭

  • || ১৭ জ্বিলকদ ১৪৪১

১৪৯

‘মাদক ধ্বংসে বিশেষ চশমা দেয়া হবে’

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১২ জুন ২০১৯  

৪৮ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আহমেদ ইউসুফ জামিল বলেছেন, মাদকদ্রব্য উদ্ধার অভিযান ও ধ্বংস দুটোই ঝুঁকিপূর্ণ। তাই যারা মাদকদ্রব্য ধ্বংসের কাজ করবে তাদের জন্য বিশেষ চশমা ব্যবস্থা করা হবে। যাতে মাদক নষ্ট করতে বিজিবি সদস্যদের কোনো ধরনের ক্ষতি না হয়।
বুধবার ব্যাটালিয়নের প্রধান কার্যালয়ের বাস্কেটবল মাঠে সাড়ে পাঁচ কোটি টাকা মূল্যের মাদকদ্রব্য ধ্বংস অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, মাদকদ্রব্য চোরাচালান ও সেবন রোধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এককভাবে কাজ করলে হবে না। বিভিন্ন স্তরের নাগরিকদের অংশগ্রহণ থাকলে মাদক থাকবে না। এজন্য সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।


 
এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার মিজ সুনন্দা রায়, কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেটের যুগ্ম কমিশনার মোহাম্মদ মিনহাজ উদ্দিন পাহলোয়ান, জেলা বিশেষ শাখার এএসপি মো. আনিছুর রহমান খান, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের উপ-পরিদর্শক মো. হুমায়ন কবির ও পরিবশে অধিদফতরের ইন্সপেক্টর হারুনুর রশিদ পাঠানসহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার কর্মকর্তারা।

এর আগে ২০১৭ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে ১ জুন পর্যন্ত পাঁচ কোটি ছয় লাখ ৬৩ হাজার ২শ টাকা মূল্যের মাদক আনুষ্ঠানিকভাবে ধ্বংস করা হয়। এর মধ্যে ছিল ৩৬ হাজার ৮৭ বোতল বিভিন্ন প্রকার ভারতীয় মদ, ১ হাজার ৬৫৯ লিটার বাংলা মদ, ১ হাজার ৮১২ বোতল ভারতীয় বিয়ার, ২ হাজার ২৭২ বোতল ফেনসিডিল, ২৫৭টি ইয়াবা, ১০ কেজি গাঁজা, ৩ লাখ ৮৪ হাজার ভারতীয় সিগারেট।

সারাবাংলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর