ব্রেকিং:
মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদ তামিমার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার !!! করোনায় ২৪ ঘণ্টায় আরো ৮ মৃত্যু পোশাক খাতে ভিয়েতনামকে পেছনে ফেলল বাংলাদেশ চা উৎপাদনে বৃহত্তর চট্টগ্রামকে ছাড়িয়ে গেছে পঞ্চগড় আলোর ফেরিওয়ালা পলান সরকারের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ আধুনিক পুলিশ মোতায়েন হবে তিন পার্বত্য জেলায় জট খুলেছে ড্রাইভিং লাইসেন্সের ঋণ নিয়ে নয়ছয় করলে কঠোর শাস্তি আঙ্গুলের ছাপ দিয়ে অপরাধী শনাক্তে র‌্যাব এনেছে ওয়াইভিএস বেসরকারি ভবে বন্ধ পাটকল চালুর নীতিতে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি জেলাপর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয় করে দিচ্ছে সরকার :প্রধানমন্ত্রী ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের দেয়া সুযোগ-সুবিধায় ওআইসি’র সন্তোষ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটির আদেশ জারি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সতর্কতার সঙ্গে কাজ করতে বলেছে সংসদীয় কমিটি আজ থেকে দুই মাস ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ শুরু হলো অগ্নিঝরা মার্চ ২৭ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের জয়, বিএনপি একটিতে ৩১ লাখ ছাড়াল দেশে করোনা টিকা গ্রহণকারীর সংখ্যা ই-নামজারি অটোমেশন ও ভূমি উন্নয়ন কর ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কর্মশালা
  • মঙ্গলবার   ০২ মার্চ ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ১৮ ১৪২৭

  • || ১৭ রজব ১৪৪২

মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে আসামি ছিনতাইয়ের ঘটনায় ১৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

পটুয়াখালীর গলাচিপায় ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি কাশেম বেপারীকে গ্রেফতার করলে পরিবারের সদস্যরা পুলিশের ওপর হামলা করে মরিচের গুড়া ছিটিয়ে আসামিকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি কাশেমকে হাতকড়া পরানোর সময় তার (কাশেমের) বাড়ির নারী-পুরুষরা একত্রিত হয়ে পুলিশের এএসআই সুমন হাওলাদার, পুলিশ কনস্টেবল দিদারুল ইসলাম ও মো. মাইনুলের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় সুপারি কাটার ‘ছরতা’ দিয়ে এএসআই সুমনের মাথায় আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি কাশেম পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে আহত পুলিশ সদস্যদের উদ্ধার করে গলাচিপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। গুরুতর আহত এএসআই সুমন এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে গলাচিপা উপজেলার চরকাজল ইউনিয়নের বড়শিবা গ্রামে।
এদিকে এ ঘটনায় গলাচিপা থানায় কাশেম বেপারীকে (৪৫) ও বশির বেপারীর স্ত্রী মোসা. হাসিনা বেগমকে (৩৫) প্রধান আসামি করে ১০ জনের নাম উল্লেখ করে এবং ৮-৯ জন অজ্ঞাতনামের ব্যক্তির বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় গলাচিপা থানার এএসআই মো. সুমন হাওলাদার বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে শনিবার রাতে অন্যতম আসামি হাসিনা বেগমকে গ্রেফতার করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। পলাতক প্রধান আসামি কাশেম বেপারীকে গ্রেফতার করতে পুলিশের একাধিক টিম অভিযান চালাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ এমআর শওকত আনোয়ার ইসলাম।

এ প্রসঙ্গে গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ এমআর শওকত আনোয়ার ইসলাম বলেন, ‘ভোলার চরফ্যাশন কোর্টের একটি জিআর মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামি কাশেম বেপারীকে গ্রেফতার করার সময় পুলিশ সদস্যদের ওপর হামলা চালানো হয়। এ ঘটনায় গলাচিপা থানায় কাশেম বেপারীকে প্রধান আসামি করে পুলিশের ওপর হামলা ঘটনায় আরেকটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। পলাতক কাশেমকে ধরতে পুলিশের একাধিক টিম অভিযান অব্যাহত আছে। পুলিশের চোখে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়েছেন যে নারী তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।’ তিনি আরো বলেন, ‘খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কাশেম বেপারী এলাকায় একজন দাঙ্গাবাজ লোক। তিনি বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত। আশাকরি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হবো।”