ব্রেকিং:
টিকা নিয়েই কাজে ফিরলেন সাংবাদিক করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগকারী দেশের তালিকায় বাংলাদেশ ৫৪তম সুষ্ঠু নির্বাচন করতে সব রকম প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে মেয়র প্রার্থী স্বপন মিয়াজীর নির্বাচনী ইশতেহার ফেনী পৌরসভা নির্বাচনে সবকেন্দ্রই ‘ঝুঁকিপূর্ণ` কমলনগর থানার নবাগত ওসি মোসলেহ উদ্দিন ফেনীতে রিভলবারসহ ২ জন গ্রেপ্তার রফতানিযোগ্য আলুর আবাদ বৃদ্ধিতে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী ৩ কোটি ৪০ লাখ ভ্যাকসিন পাবে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৭ মৃত্যু, আক্রান্ত ৫২৮ বাংলায় আরো সঠিক ফলাফল দেখাবে গুগল ম্যাপ করোনার টিকাদান কর্মসূচি উদ্বোধন করোনার প্রথম টিকা নিলেন নার্স রুনু একাধিক বিয়ে, স্বামীর ‘বিশেষ অঙ্গ’ কেটে দেন ক্ষিপ্ত স্ত্রী সাংবাদিকদের পেনশনের আওতায় আনা হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী গ্রামীণ নারীদের ভরসা এখন ‘তথ্য আপা’ ফেনীতে দুই গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু আসছে শৈত্যপ্রবাহ, কমবে তাপমাত্রা ৯৯৯-এ ফোন, ৪ ঘণ্টার মধ্যে অপহৃত মাদরাসা ছাত্র উদ্ধার ‘শিশুটিকে ভালো লাগায়’ অপহরণ করেন মাদরাসার বাবুর্চি
  • বৃহস্পতিবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১৫ ১৪২৭

  • || ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ভাসানচরের উদ্দেশ্যে ১৮০৫ রোহিঙ্গার যাত্রা

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৯ ডিসেম্বর ২০২০  

পাঁচটি জাহাজে চট্টগ্রাম থেকে নোয়াখালীর হাতিয়ার ভাসানচরের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেছে রোহিঙ্গারা। রোহিঙ্গাদের দ্বিতীয় দলটি মঙ্গলবার সকালে চট্টগ্রামের বোট ক্লাব, আরআরবি ও কোস্টগার্ডের জেটি থেকে জাহাজগুলো ছেড়ে যায়। এবার স্বেচ্ছায় ভাসানচরের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন ৪২৮ পরিবারের ১৮০৫ রোহিঙ্গা। এসব রোহিঙ্গারা সোমবার ৩৯টি বাসে করে চট্টগ্রামে পৌঁছায়।

নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা যায়, বিশেষে নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে সোমবার সকাল ১১টা ৪০ মিনিটে ১৩ বাসে ৫৯৫ জন, ২টা ১০ মিনিটে ১১ বাসে ৫৩৯ জন, ৫টা ১০ মিনিটে ১৫ বাসে ৬৭১ জনসহ ৪২৮ পরিবারের মোট ১৮০৫ জন রোহিঙ্গাকে নিয়ে গাড়িগুলো চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। এছাড়া রোহিঙ্গাদের মালামাল নিয়ে ১১টি কার্গো এবং ট্রাক গাড়িবহরে যুক্ত ছিল।

এর আগে গত রোববার বিকেলে ও সোমবার সকালে উখিয়া-টেকনাফের ৩৪টি ক্যাম্প থেকে রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে নিয়ে যেতে উখিয়া কলেজ মাঠে অস্থায়ী ট্রানজিট পয়েন্টে নিয়ে এসে রাখা হয়। তাছাড়া ভাসানচরে যেতে ইচ্ছুক রোহিঙ্গারা ট্রানজিট পয়েন্টে আসতে শুরু করেন।

ভাসানচরের কাজ করতে যাওয়া বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা সমাজ কল্যাণ ও উন্নয়ন সংস্থা (স্কাস) এর চেয়ারম্যান জেসমিন প্রেমা বলেন, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর বিশেষ নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় ধাপে ১৮০৫ রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। আমরা তাদের সঙ্গে যাচ্ছি। এখানে তাদের সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে। বিশেষ করে নারী ও শিশুদের প্রতি যত্ন নেয়া হয়েছে। তারা যেন শীতে কষ্ট না হয় তার প্রতি লক্ষ্য রাখা হয়েছে। 

সূত্রে জানা যায়, উখিয়া ও টেকনাফের তালিকাভুক্ত ক্যাম্প ছাড়া বাকি সব ক্যাম্প থেকেই রোহিঙ্গারা সেচ্ছায় ভাসানচরে যাওয়ার আগ্রহ দেখিয়েছেন। বিশেষ করে উখিয়ার কুতুপালং-১, ২, ৩, ৪, ৫, ৮ ডব্লিউসহ থাইংখালী ১৩ নম্বর ক্যাম্প থেকে অনেক রোহিঙ্গা পরিবার সোমবার ভাসানচরের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে মঙ্গলবার দুপুরের নাগাদ ভাসানচর পৌঁছবেন তারা।

এদিকে গত ৪ ডিসেম্বর প্রথম দফায় ১ হাজার ৬৪২ রোহিঙ্গা ভাসানচরে গেছে। এর আগে মালয়েশিয়া যেতে গিয়ে সমুদ্র উপকূলে আটক আরো তিন শতাধিক রোহিঙ্গাকে সেখানে নিয়ে রাখা হয়।

২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট পরবর্তী মিয়ানমারে নির্যাতন ও নিপীড়নের শিকার হয়ে এদেশে পালিয়ে আশ্রয় নেয় ৭ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা। এর আগে থেকে রয়েছে আরো চার লক্ষাধিক রোহিঙ্গা। বর্তমানে সব মিলিয়ে ১১ লাখের বেশি রোহিঙ্গার বসবাস কক্সবাজারের উখিয়া-টেকনাফের ৩৪টি ক্যাম্পে।