ব্রেকিং:
টিকা নিয়েই কাজে ফিরলেন সাংবাদিক করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগকারী দেশের তালিকায় বাংলাদেশ ৫৪তম সুষ্ঠু নির্বাচন করতে সব রকম প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে মেয়র প্রার্থী স্বপন মিয়াজীর নির্বাচনী ইশতেহার ফেনী পৌরসভা নির্বাচনে সবকেন্দ্রই ‘ঝুঁকিপূর্ণ` কমলনগর থানার নবাগত ওসি মোসলেহ উদ্দিন ফেনীতে রিভলবারসহ ২ জন গ্রেপ্তার রফতানিযোগ্য আলুর আবাদ বৃদ্ধিতে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী ৩ কোটি ৪০ লাখ ভ্যাকসিন পাবে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৭ মৃত্যু, আক্রান্ত ৫২৮ বাংলায় আরো সঠিক ফলাফল দেখাবে গুগল ম্যাপ করোনার টিকাদান কর্মসূচি উদ্বোধন করোনার প্রথম টিকা নিলেন নার্স রুনু একাধিক বিয়ে, স্বামীর ‘বিশেষ অঙ্গ’ কেটে দেন ক্ষিপ্ত স্ত্রী সাংবাদিকদের পেনশনের আওতায় আনা হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী গ্রামীণ নারীদের ভরসা এখন ‘তথ্য আপা’ ফেনীতে দুই গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু আসছে শৈত্যপ্রবাহ, কমবে তাপমাত্রা ৯৯৯-এ ফোন, ৪ ঘণ্টার মধ্যে অপহৃত মাদরাসা ছাত্র উদ্ধার ‘শিশুটিকে ভালো লাগায়’ অপহরণ করেন মাদরাসার বাবুর্চি
  • বৃহস্পতিবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১৫ ১৪২৭

  • || ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বেগমগঞ্জ উপজেলা নির্বাচনে ঝুঁকিপূর্ণ ১২২টি কেন্দ্র

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১০ ডিসেম্বর ২০২০  

নোয়াখালীতে উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে  মাদকচক্র, শিশু ও কিশোর গ্যাং এর বিভিন্ন সন্ত্রাসী বাহিনী চাঙ্গা হয়ে ওঠায় ঝুঁকিপুর্ণ ১২টি ভোট কেন্দ্র। বেগমগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন হতে যাচ্ছে আজ ১০ ডিসেম্বর। সন্ত্রাস কবলিত বেগমগঞ্জের বিভিন্ন এলাকার সন্ত্রাসী বাহিনীগুলো কিছুদিন নীরব থেকে নির্বাচন কেন্দ্র করে পুনরায় চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। এতে এলাকাবাসী ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে। পুলিশের কিছু তৎপরতা থাকলেও তা অপ্রতুল। বেগমগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ওমর ফারুক বাদশা ২৭শে সেপ্টেম্বর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করে। শূন্য আসনে ১০ই ডিসেম্বর উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাসদ (ইনু) প্রার্থী ছাড়াও স্বতন্ত্র একজন প্রার্থী রয়েছেন।

এ নির্বাচন কেন্দ্র করে বেগমগঞ্জের বাহিরে ফেনী ও লক্ষীপুর জেলার ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী বাহিনীগুলো তৎপর হয়ে উঠেছে। তাদের গডফাদারদের নির্দেশ পালন করার জন্য প্রস্তুত রয়েছে। বেগমগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কতিপয় জনপ্রতিনিধি ও বাসিন্দাদের নিকট থেকে জানা যায়, বেগমগঞ্জে পূর্ব থেকেই বিভিন্ন সন্ত্রাসী বাহিনী সক্রিয় ছিল। খুন, ছিনতাই, চাঁদাবাজি, নারী নির্যাতন, ধর্ষণ ও জায়গা দখল নিত্যদিনের ব্যাপার ছিল। বেগমগঞ্জের একলাশপুরে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন করার ঘটনা ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর প্রশাসন নড়েচড়ে বসে। সন্ত্রাসীরা গা ঢাকা দেয়। কিছুদিন নীরব থাকার পর সন্ত্রাসী গ্রুপগুলো চাঙ্গা হয়ে ওঠে।

জনপ্রতিনিধি ও বাসিন্দাদের নিকট থেকে আরো জানা যায়, বেগমগঞ্জের ১নং আমানউল্যাপুর ও ২নং গোপালপুর ইউনিয়নের রছুলপুর, ফাজিলপুর, বসন্তেরবাগ, জয়নারায়ণপুর, কৃষ্ণরামপুর, করিমপুর, বৈচারপোল এলাকার আশপাশ এলাকায় এক সাবেক জনপ্রতিনিধি ও এক ধর্মীয় ব্যক্তির নেতৃত্বে শক্তিশালী সন্ত্রাসী বাহিনী আস্তানা গড়ে তোলে। ৩নং জিরতলী, ৪নং আলাইয়ারপুর ও ৫নং ছয়ানি ইউনিয়ন অভয়ারণ্য ছিল। আলাইয়ারপুর ইউনিয়নেই ৫/৬টি বাহিনী রয়েছে। আধিপত্য বিস্তার নিয়ে এক গ্রুপ অপর গ্রুপের ৭/৮ জনকে গুলি করে খুন করে এবং বাসার বাহিনী গ্রুপের প্রধান বাসার মাঝি পুলিশের সঙ্গে এনকাউন্টারে মারা যায়। সাবেক জনপ্রতিনিধি গডফাদার হিসাবে কাজ করে। এলাকায় কিছুটা স্বস্তি আসে। কিছুদিন নীরব থাকার পর আবার কয়েকটি গ্রুপ সৃষ্টি হয়। ছয়ানি ইউনিয়নে একজন সাবেক জনপ্রতিনিধির প্রত্যক্ষ মদদে সন্ত্রাসী বাহিনী পরিচালিত হয়ে আসছে।

একলাশপুর, মুজাহিদপুর, মাজার রোড, কাজীনগর, ইসলামপুর, দক্ষিণ নাজিরপুরে রয়েছে রয়েল বাহিনী, হাজীপুরে স¤্রাট বাহিনী, পেটকাঁটা খালাসি সুমন বাহিনী, একলাশপুরের কাতা রাসেল বাহিনী ও  লিটন গ্রুপের সহ গোপালপুরের মাইন, মমিন, জাহের, জাবেদ, শাহেদ, জাহিদ, যুবদলের শাকিল, সোনাইমুড়ি তিনতেড়ির অস্ত্রভা-ারের মালিক ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী জাকের বাহিনীর প্রভাব। দুর্গাপুর ইউনিয়নের লক্ষীনারায়ণপুরে (দোকান ঘর) রয়েছে ষ্ট্রং বাহিনী। এক ব্যক্তি নিজেকে জাহির করার জন্য অল্প বয়সের ছেলেদেরকে এ বাহিনীতে ঢুকাচ্ছে। উপজেলার শরীফপুর, খানপুর এলাকায় সবুজ বাহিনী চালাচ্ছে নিজেদের প্রভাব।

এদিকে চৌমুহনী শহরের পৌর হাজীপুর এলাকায় কোনো এক প্রভাবশালী ব্যক্তির পৃষ্ঠপোষকতায় চলছে স¤্রাট বাহিনী ও সুমন বাহিনীর তা-ব। এক গ্রুপ অপর গ্রুপের চির শত্রু হিসাবে যে কোনো সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, লুটতরাজ, অগ্নিসংযোগ, ভাঙচুরের ঘটনা নিত্যদিনের। এক গ্রুপ অপর গ্রুপের ৫/৬ জনকে গুলি করে খুন করে। শহরের গোলাবাড়িয়ায় সুমন গ্রুপের কিছু সদস্য অবাধে বিচরণ করে প্রভাব বিস্তার করে আছে। বেগমগঞ্জের একলাশপুরে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনার প্রেক্ষিতে প্রশাসনের তৎপরতার কারণে সন্ত্রাসীরা বেশকিছু দিন গা ঢাকা দিয়েছিল। বর্তমানে বেগমগঞ্জ উপজেলা পরিষদ উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে উপজেলার বিভিন্ন এলাকার সন্ত্রাসীরা মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। নির্বাচনে সন্ত্রাসীদের বিশেষ ভূমিকা থাকবে এ আশঙ্কায় এলাকাবাসী আতঙ্কিত। বেগমগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বিমলেন্দু কিশোর পাল মানবজমিনকে জানান, ১৪৬টি কেন্দ্রের মধ্যে ১২২টি ঝুঁকিপূর্ণ। চৌমুহনী পৌরসভায় ১৯টির মধ্যে সবগুলো ঝুঁকিপূর্ণ।

নির্বাচন সুষ্ঠু করতে বিন্দুমাত্র ঘাটতি রাখা হবে না, এটি হবে এসিড টেস্ট। বেগমগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান শিকদার মানবজমিনকে জানান, বেলাল হোসেনের দায়ের করা দু’টি অটোরিকশা পুড়িয়ে ফেলার মামলায় বিএনপি, যুবদল, ও ছাত্রদলের ৪৫ জন সহ আরো অজ্ঞাতনামা ১০/১৫ জনের  বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। যে সকল সাজাপ্রাপ্ত, ওয়ারেন্টভুক্ত বা কোনো মামলার আসামি রয়েছে তাদেরকে গ্রেপ্তার করতে অভিযান চালানো হচ্ছে। যাতে নির্বাচনকালে আইনশৃঙ্খলায় বিঘœ না ঘটে। পুলিশ প্রশাসন এ ব্যাপারে সক্রিয় রয়েছে।