ব্রেকিং:
দেশে করোনার টিকা কবে আসবে, জানালেন স্বাস্থ্য সচিব কোনোভাবেই বেপরোয়া গাড়ি চালানো যাবে না: সেতুমন্ত্রী ছিন্নমূল শতাধিক পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অসহায়দের মাঝে আওয়ামীলীগ নেতার কম্বল বিতরণ ব্যাংকার্স ফোরাম লক্ষ্মীপুরের অভিষেক অনুষ্ঠিত ফেনীতে ১০০ সাংবাদিককে প্রশিক্ষণ দিয়েছে প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে অবৈধ গ্যাস সংযোগ তৃণমূলের সাথে যাদের সুসম্পর্ক তাকে মনোনয়ন দেয়া হবে পরশুরামকে আলোকিত করে দিচ্ছেন পৌর মেয়র সাজেল চৌধুরী সোনাগাজী মডেল থানার উন্নয়ন ও সংস্কার কাজের উদ্বোধন করলেন এসপি ভাস্কর্য নির্মাণে বিরোধিতার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল রায়পুরে হাসপাতালে অভিযান, ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা ফেনীতে স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতি চলছে ফেনীতে আ’লীগের সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন শুরু হচ্ছে আজ লক্ষ্মীপুরে এসিড সন্ত্রাসের শিকার ৩ নারী সুবর্ণচরে ভূমিদস্যুদের বিরুদ্ধে ভূমিহীনদের মানববন্ধন নিঝুমদ্বীপে উচ্ছেদ আতঙ্কে ভূমিহীনরা ৫ টাকায় সারাদিন ইন্টারনেট ব্যবহারের পদ্ধতি তৈরি করলেন দুই বাংলাদে উন্নত প্রযুক্তির বডি স্ক্যানার বসছে শাহজালাল বিমানবন্দরে দেশের তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবল স্থাপিত হবে ৬৯৩ কোটি টাকায়
  • মঙ্গলবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৮ ১৪২৭

  • || ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

৭৫

বিএনপিকে পাত্তাই দিচ্ছেন না কূটনীতিকেরা

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৬ নভেম্বর ২০২০  

দীর্ঘদিন রাষ্ট্রক্ষমতার বাইরে থাকা বিএনপিকে একেবারেই গুরুত্ব দিচ্ছেন না কূটনীতিকেরা। তাদের মন জয় করতে গত ১২ বছর ধরে চেষ্টা করেও বারবার ব্যর্থ হয়েছে বিএনপি। 

বিশ্লেষকেরা বলছেন, গত এক যুগে বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে বেশ সক্ষমতা অর্জন করেছে। এখন বিভিন্ন কাজের ক্ষেত্রে বাংলাদেশকে অন্য দেশের মুখাপেক্ষী হতে হয় না। আর এ কারণেই কূটনীতিকেরাও বাংলাদেশকে যেকোনো বিষয়ে চাপ দিতে পারেন না।

তাদের মতে, বিএনপি সব সময়ই কূটনীতিকদের ওপর নির্ভরশীল। সর্বশেষ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে দলের নেতারা অন্তত ১৭ বার কূটনীতিকদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন, কথা বলেছেন এবং তাদের মন জয়ের চেষ্টা করেছেন। এমনকি নির্বাচনের পরও একাধিক কূটনীতিকের সঙ্গে দেখাও করেছেন। তবে এসব কোনো বৈঠকে ইতিবাচক সাড়া পায়নি বিএনপি।

জানা গেছে, এখন আবার নতুন করে দেশের বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে বিরোধী দলের নেতারা কূটনীতিকদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছেন। কিন্তু কূটনীতিকেরা বিএনপির ব্যাপারে কিছুতেই ইতিবাচক নয় এবং বিএনপিকে গুরুত্ব দিতে রাজি হচ্ছেন না। 

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সম্প্রতি বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইস্যু এবং মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে কয়েকজন প্রতিনিধি মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। কিন্তু মার্কিন রাষ্ট্রদূত এসব বিষয়কে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার বলে এড়িয়ে যান। বিএনপির প্রতিনিধিরাও সম্প্রতি মার্কিন দূতাবাসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলে, করোনা পরিস্থিতির কারণে বিএনপির সঙ্গে এ মুহূর্তে বৈঠক করা সম্ভব নয় বলে সাফ জানিয়ে দেন তারা।

এদিকে রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, গত এক যুগ ধরে বাংলাদেশ প্রায় সব ক্ষেত্রেই ঈর্ষণীয় সাফল্য লাভ করেছে। তাই বাংলাদেশকে নিয়ে নাক গলানোর মতো কোনো ইস্যু তাদের কাছে নেই। আর এ কারণেই বিএনপির মায়াকান্না কোনোভাবেই পাত্তা দিচ্ছেন না কূটনীতিকেরা।

তারা বলেন, বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে এখন বেশ এগিয়ে গেছে এবং বিশ্ব অর্থনৈতিক উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশকে তারা একটি বড় বাজার হিসেবে দেখতে চায়, রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ হিসেবে নয়।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর