ব্রেকিং:
কৃষি ইনস্টিটিউটকে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত করা সময়ের দাবী নোয়াখালীতে অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেপ্তার – ১ সুধারামে অপহৃত স্কুলছাত্রী চট্টগ্রামে উদ্ধার নোয়াখালীতে ব্যবসায়ীকে হত্যার দায়ে দুজনের যাবজ্জীবন। নোয়াখালীতে মিনি ক্যাসিনো থেকে জুয়াড়ি আটক মহিষের দধির জন্য বিখ্যাত চাপরাশিরহাট পরীক্ষা দিতে যাওয়ার সময় স্কুলছাত্রকে কুপিয়ে জখম নোয়াখালীতে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় পথচারী নিহত কারওয়ানবাজারে পেট্রোবাংলা ভবনে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৭ ইউনিট আগামী সপ্তাহে হেগে যাচ্ছেন সু চি বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে আসবেন মোদি-প্রণব-সোনিয়া বেক্সিট ইস্যু: বরিস সরকারের গোপন নথি ফাঁস! বিআরটিএ’র যেকোনো সার্কেলে ফিটনেস নবায়ন করা যাবে মেঘনায় দুই লঞ্চের সংঘর্ষে একজন নিহত, নিখোঁজ ১৫ কোম্পানীগঞ্জের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ চাটখিলে যুবলীগ নেতা বেলায়েতের মা মারা গেছেন কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তায় শ্রেষ্ঠ গবেষক নোবিপ্রবি`র কাওছার হাতিয়ায় অস্র ইয়াবাসহ র্শীষ মাদক ব্যবসায়ী আটক কোম্পানীগঞ্জে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি মায়ের মৃত্যুর কবিরহাটে ব্যাংক ম্যানেজার ও ক্যশিয়ারসহ ১৪ জুয়াড়িকে গ্রেপ্তার

শনিবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৩ ১৪২৬   ০৯ রবিউস সানি ১৪৪১

সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
১০০২

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক কর্মকর্তার ১০ বছর কারাদণ্ড

প্রকাশিত: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

টাকা আত্মসাৎ মামলায় বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক সহকারী পরিচালক এস এম গিয়াস উদ্দিনকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রোববার দুপুরে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-১০-এর বিচারক জয়নাল আবেদীন এ রায় ঘোষণা করেন। একইসঙ্গে ওই আসামিকে ৬৪ লাখ ৩৩ হাজার ৭০০ টাকা অর্থদণ্ডের আদেশ দেন।

এদিন, আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করা হয়। এরপর সাজা পরোয়ানা দিয়ে আসামিকে কারাগারে পাঠানো হয়। একই সঙ্গে এই মামলায় অন্য দুই আসামি মকবুল হোসেন ও মহিউদ্দিন মৃধার অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের বেকসুর খালাস দেন। এছাড়া মামলাটি চলার সময় একই বিভাগের সহকারী ব্যবস্থাপক আজিজুল হক এবং জনৈক নুরুল হুদা মারা যাওয়ায় তাদেরকে এ মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

আদালতে আসামির পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আবুল হোসেন।

আসামি এসএম জিয়াস উদ্দিন বাংলাদেশ ব্যাংকের সরকারী হিসাব শাখায় কর্মরত থেকে নিজ নামে একটি হিসাব খুলে প্রাইজবন্ডের পুরস্কারের নামে ভুয়া প্রেমেন্ট অর্ডারের মাধ্যমে ২৫ লাখ ২১ হাজার ৮শ টাকা, সাইদুর রহমান নামে জনতা ব্যাংকে হিসাব খুলে একইভাবে ১৫ লাখ ১১ হাজার ৬শ টাকা, আতাউর মাসুদ নামে হিসাব খুলে ৭ লাখ ৮৬ হাজার টাকা এবং আব্দুল ওয়াজেদ নামে হিসাব খুলে ৭ লাখ ৮৫ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেন। এসব ভুয়া প্রেমেন্ট অর্ডারের নামে ১৯৯৬ সালের ৩ নভেম্বর থেকে ১৯৯৭ সালের ৫ মার্চ পর্যন্ত হস্তান্তর করে আত্মসাত করেন।

এসব অভিযোগে ১৯৯৭ সালের ২৫ মে রাজধানীর মতিঝিল থানায় ব্যাংলাদেশ ব্যাংকের সরকারী হিসাব শাখার যুগ্ম ব্যবস্থাপক জয়নাল আবেদীন একটি মামলা করেন।

মামলাটি তদন্তের পর ২০০৩ সালের ৫ জানুয়ারি সিআইডির তৎকালীন ইন্সপেক্টর মকবুল আহমেদ আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। মামলাটিতে ২০০৬ সালের ৯ নভেম্বর ঢাকার বিভাগীয় বিশেষ জজ আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন। পরবর্তীতে মামলাটি বিশেষ জজ আদালতে হস্তান্তর করা হয়। মামলাটির বিচারকালে আদালত বিভিন্ন সময়ে ৩৬ জন সাক্ষীর মধ্যে ২৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।

নোয়াখালী সমাচার
নোয়াখালী সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর