ব্রেকিং:
৩২ হাজার শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি, আবেদন করবেন যেভাবে সংক্রমণ রোধে সবাইকে মাস্ক পরার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর প্রেমিকাকে ধর্ষণ করে অন্যকে ফাঁসাতে গিয়ে ফেঁসে গেল বখাটে লংমার্চে হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সভা পা পিছলে পড়ে কিশোরের মৃত্যু ভাতিজিকে ধর্ষনের দায়ে জেঠা গ্রেফতার শেখ রাসেলের খুনিদের ফাঁসি কার্যকরের দাবী শ্রমিকলীগ নেতার কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের হারে মন্ত্রিসভার সন্তোষ প্রকাশ শেখ হাসিনা ইয়্যুথ ভলান্টিয়ার অ্যাওয়ার্ডের লোগো উন্মোচন মহাকাশে হারিয়ে যাচ্ছে স্টারলিংক স্যাটেলাইট ফুফুর অন্তরঙ্গ মুহূর্ত দেখা ফেলায় লাশ হলো শিশু সাফল্যের পথে বাংলাদেশ, অবাক চোখে তাকিয়ে ভারত দেশে একদিনে শনাক্ত ১৬৩৭, মৃত্যু বেড়েছে মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতে প্রয়োজনে মোবাইল কোর্ট: মন্ত্রিপরিষদ সচিব বেগমগঞ্জে কিশোর গ্যাংয়ের ৭ সদস্য গ্রেফতার একদিনে তিন লাখ ২৪ হাজার শনাক্ত, মৃত্যু ৩৯৬৮ কর্পোরেট ক্রিকেট দিয়েই সাকিবের ফেরার প্রস্তুতি জনগণের ভাষা বুঝে না বলেই বিএনপি ব্যর্থ: কাদের ১৮ বছর ধরে এক হাজার মানুষের সর্বনাশ করে পালিয়ে গেলো স্বামী-স্ত্রী
  • মঙ্গলবার   ২০ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ৫ ১৪২৭

  • || ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

৮৬

বসবাস অযোগ্য হচ্ছে বিশ্ব: জাতিসংঘ

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৪ অক্টোবর ২০২০  

কয়েক মিলিয়ন মানুষের বসবাসের এই বিশ্ব রাজনৈতিক ও ব্যবসায়ী নেতাদের ব্যর্থতার কারণে নরকে রূপান্তরিত হচ্ছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। জলবায়ুর পরিবর্তনের কারণে গত ২০ বছরে প্রাকৃতিক দুর্যোগ আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে বলে সংস্থাটি দাবি করেছে। খবর- সিএনএন।

জাতিসংঘের মতে, মহামারি করোনাভাইরাস নিয়ে বিশেষজ্ঞদের সতর্কবার্তা সত্ত্বেও মৃত্যু ও অসুস্থতার হার ঠেকাতে বিশ্বের প্রায় সব দেশই ব্যর্থ হয়েছে। আর এ কারণে বিশ্বে ১ মিলিয়ন মানুষের মৃত্যু ও অন্তত ৩৭ মিলিয়ন মানুষ আক্রান্ত হয়েছে।

সংস্থাটির মহাসচিব এন্তোনিও গুতেরেস বলেন, জলবায়ু বিপর্যয় ও পরিবেশের অবক্ষয় হ্রাস করার ক্ষেত্রে আমরা খুব কম অগ্রগতি দেখেছি। দারিদ্র্য দূরীকরণে ও জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব হ্রাস করতে আমাদের অবশ্যই বাকি সবকিছুর চেয়ে জনগণের কল্যাণকে গুরুত্ব দিতে হবে।

এদিকে জাতিসংঘের ইউএনডিআরআর- এর তথ্য মতে, বিশ্বব্যাপী ২০০০ থেকে ২০১৯ সালের মধ্যে ভূমিকম্প, সুনামি ও ঘূর্ণিঝড়সহ ৭ হাজার ৩৪৮টি বড় বড় প্রাকৃতিক দুর্যোগ ঘটেছে। এতে ১ দশমিক ২৩ মিলিয়ন মানুষের মৃত্যু, ৪ দশমিক ২ বিলিয়ন মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এসব প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে বৈশ্বিক অর্থনীতিতে ২ দশমিক ৯৭ ট্রিলিয়ন ডলারের ক্ষতি হয়েছে।

ইউএনডিআরআরের প্রধান মামি মিজুতোরি ও বেলজিয়ামের সিআরইডির দেবরাতি গুহ-সাপির এ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আমরা স্বেচ্ছায় ও জেনে-শুনে নিজেদের ধ্বংসের বীজ বপন করছি। সুশাসনের মধ্য দিয়ে দারিদ্র্য বিমোচন, জীববৈচিত্র্য রক্ষা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগের ঝুঁকি হ্রাস করা সম্ভব।

এদিকে জাতিসংঘের দ্য হিউম্যান কস্ট অব ডিজাস্টার শীর্ষক নতুন প্রতিবেদন বলা হয়েছে, প্রাকৃতিক দুর্যোগের এ সংখ্যাটি ১৯৮০ থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত রেকর্ড করা ৪ হাজার ২১২টির তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ।

বিশ্বজুড়ে প্রাকৃতিক দুর্যোগের সংখ্যা বাড়ার মূল কারণ হিসেবে তাপমাত্রা বৃদ্ধিকে দায়ী করা হয়েছে। বিজ্ঞানীদের মতে, তাপমাত্রা বৃদ্ধিই প্রাকৃতিক দুর্যোগ বাড়িয়ে দিচ্ছে। প্রতিবেদনে গত ২০ বছরে বন্যা, ঝড়, হিটওয়েভ, খরা, হ্যারিকেন ও দাবানল উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়েছে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।

জলবায়ু বিপর্যয়ে গত ২০ বছরে সবচেয়ে ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে এশিয়া। এ অঞ্চলটি ২০০০ থেকে ২০১৯ সালের মধ্যে ৩ হাজার ৬৮টি প্রাকৃতিক দুর্যোগের মুখোমুখি হয়েছিল। এছাড়া আমেরিকায় ১ হাজার ৭৫৬ এবং আফ্রিকাতে ১ হাজার ১৯২টি প্রাকৃতিক বিপর্যয় ঘটেছে। 

এদিকে গত দুই দশকে ৫০০টিরও বেশি প্রাকৃতিক দুর্যোগের মুখোমুখি হয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর তালিকার সবার উপরে রয়েছে চীন। এর পরের অবস্থানে রয়েছে ৪৬৭টি দুর্যোগের মুখোমুখি হওয়া যুক্তরাষ্ট্র।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, আগাম সতর্কবার্তার জন্য দুর্বল সম্প্রদায়গুলো রক্ষায় কিছু সাফল্য পাওয়া গেছে। বাংলাদেশ ও ভারতের মতো দেশগুলোতে দুর্যোগে সাড়াদানকারী সংস্থাগুলো ঘূর্ণিঝড় ও বন্যার ক্ষেত্রে ভালো প্রস্তুতির মাধ্যমে অনেক প্রাণ বাঁচিয়েছে। তবে গবেষকরা সতর্ক করেছেন, সম্প্রদায়গুলোতে প্রতিকূলতা অব্যাহত রয়েছে।

আন্তর্জাতিক বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর