ব্রেকিং:
পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের ঢাকা চট্রগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ লক্ষ্মীপুরে কৃষকদের মানববন্ধন এমপি আনোয়ার খানের শীতবস্ত্র বিতরণ রায়পুরে খাল দখলের মহোৎসব বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন মেয়রসহ সকল কাউন্সিলর নৈশপ্রহরী সফিউল্যাহ হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদন্ড ওয়ানডে চূড়ান্ত দলে লক্ষ্মীপুরের হাসান তেল মারা বন্ধ করতে হবে: কাদের মির্জা ফেনীতে স্কুলের নৈশ প্রহরীকে হত্যায় যুবকের মৃত্যুদণ্ড হাতিয়ায় নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল: আরও এক মামলা, গ্রেপ্তার ৫ পাবজি বিশ্বকাপ খেলতে দুবাইয়ে ৫ তরুণ, প্রাইজপুল ১৬ কোটি সারাদেশে ২৫-৩১ অক্টোবর হবে মূল জনশুমারি দুর্নীতির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ায় সাড়ে ৪০০ কোটি টাকা মুনাফা এক্সপ্রেসওয়ে নেটওয়ার্কে আসবে সারাদেশ নোয়াখালীর দৃশ্যপট পাল্টে যাবে ২০২৩ সালের মধ্যে করোনা নিয়ন্ত্রণের বাংলাদেশ! দুটি চ্যানেলে দেখা যাবে বঙ্গবন্ধু ক্রিকেট সিরিজ ‘জীবনের সবচেয়ে ভয়াবহ ঘটনা, স্টেজেই শাড়ি খুলে যায়’ (ভিডিও) ১৭ বছরের ক্লাব ক্যারিয়ারে প্রথমবার লাল কার্ড পেলেন মেসি কারিগরি নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে পাস করবে
  • সোমবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ৬ ১৪২৭

  • || ০৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

১৭২

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় ১৩ লাখ কৃষক

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৯ আগস্ট ২০২০  

এবার তিন দফার বন্যায় দেশের প্রায় ১৩ লাখ কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এরমধ্যে প্রথম দফার বন্যায় ৩ লাখ ৪৩ হাজার ৯৫৭ জন এবং দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফার বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ৯ লাখ ২৯ হাজার ১৯৪ জন কৃষক। 

বুধবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, বাংলাদেশের ৩৭টি জেলায় সব মিলিয়ে এবারের বন্যায় সর্বমোট ১ হাজার ৩২৩ কোটি টাকার ফসলের ক্ষতি হয়েছে। এরমধ্যে প্রথম দফার বন্যায় ১৪টি জেলায় ১১টি ফসলের ৪১ হাজার ৯১৮ হেক্টর জমি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ক্ষতির পরিমাণ ৩৪৯ কোটি টাকা।

 

সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক

সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক

মন্ত্রী বলেন, দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফার বন্যায় ৩৭টি জেলায় ১৪টি ফসলের প্রায় ১ লাখ ১৬ হাজার ৮৯৬ হেক্টর জমি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ক্ষতির পরিমাণ ৯৭৪ কোটি টাকা। 

বন্যার পানিতে ২ লাখ ৫৭ হাজার ১৪৮ হেক্টর ফসলি জমি তলিয়ে গেছে জানিয়ে তিনি বলেন, এর মধ্যে ক্ষতিগ্রস্ত জমির পরিমাণ ১ লাখ ৫৮ হাজার ৮১৪ হেক্টর। আর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ১২ লাখ ৭২ হাজার ১৫১ জন কৃষক। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৩২ হাজার ২১৩ হেক্টর জমির আউশ ধান, ৭০ হাজার ৮২০ হেক্টর জমির আমন ধান এবং ৭ হাজার ৯১৮ হেক্টর জমির আমন বীজতলা। টাকার হিসাবে আউশ ধান ৩৩৪ কোটি, আমন ধান ৩৮০ কোটি টাকা, সবজি ২৩৫ কোটি, পাট ২১১ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।

প্রতি বছরের মতো এবছরও বিভিন্ন মেয়াদে পাহাড়ি ঢলের কারণে বিভিন্ন নদ-নদীর পানি বিপদসীমা অতিক্রম করায় ফসলি জমি প্লাবিত হয় উল্লেখ করে মন্ত্রী আরো বলেন, এবার কয়েক দফার বন্যার কারণে বন্যা অনেক দীর্ঘস্থায়ী হয়েছে। ফলে ৩৭টি জেলায় আউশ ধান, আমন ধান, আমন বীজতলা, শাক-সবজি, পাটসহ বেশকিছু ফসলের অনেক ক্ষতি হয়েছে।

জনদূর্ভোগ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর