ব্রেকিং:
অকালেই শেষ হয়ে যাবে চাটখিলের রাকিবের সব স্বপ্ন? সাহায্যের আকুতি.. ইটের ভাটার বিষাক্ত ধোঁয়ায় স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে দেড় হাজার শির্ক্ষাথী পরিচয় যাই হোক পাপিয়ার বিচার হবে: কাদের মাদকমুক্ত পরিচ্ছন্ন বসুরহাট গড়ায় মেয়র আবদুল কাদের মির্জা সংবর্ধিত সেনবাগে স্বামী হত্যায় ব্যর্থ স্ত্রী পালাল ছেলে নিয়ে ময়লা আবর্জনায় ভাসছে মাইজদী শহর পবিত্র শবে মেরাজ ২২ মার্চ ইনিংস পরাজয়ের শঙ্কায় ধুঁকছে জিম্বাবুয়ে জুতা পালিশ থেকে সানির ইন্ডিয়ান আইডল জয় তারেকের হাত ধরেই অন্ধকার জগতে পা রাখেন পাপিয়া! পুরান ঢাকায় ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান, ২০ কোটি টাকা উদ্ধার বাংলাদেশি পরিবারকে ১০ হাজার ডলার দিচ্ছে সিঙ্গাপুর নিজ ড্রাইভারের নামে মামলা করলেন এসপি বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ফাঁসির আদেশ দেয়া হয় যে রায়ে পিলখানা হত্যা দিবস আজ গর্ভবতী হয়েও সাপের মুখ থেকে মালিককে বাঁচাতে পিছুপা হয়নি সে ৭৬ বছর পর সন্ধান মিলল বিধ্বস্ত হওয়া ৩ বিমানের মদ খেলে চলবে না যে সাইকেল দলীয় নেতাকর্মীদের আঘাতে আহত হন রিজভী বেগমগঞ্জে অ্যাম্বুলেন্সে এসএসসি পরীক্ষা!
  • মঙ্গলবার   ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ||

  • ফাল্গুন ১৩ ১৪২৬

  • || ০১ রজব ১৪৪১

সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৪৮৫

বদলে যাচ্ছে কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়ক

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

বর্তমান সরকারের নানামুখী উন্নয়ন প্রকল্পের বাস্তবায়নে বদলে যাচ্ছে দেশ। এর মধ্যে বহুল আলোচিত ও প্রতীক্ষিত পদ্মা সেতু, রাজধানীর বুকে স্বপ্নের মেট্রোরেল-উড়াল সড়ক, ৪ লেনের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক, রাজধানীর ধোলাইপাড় থেকে পদ্মা সেতু লিঙ্ক পর্যন্ত দেশের প্রথম এক্সপ্রেসওয়ের বাস্তবায়ন দৃশ্য অন্যতম।

পাশাপাশি দেশের আঞ্চলিক মহাসড়কগুলোতেও থেমে নেই সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড। সেই ধারাবাহিকতায় সরকারের গৃহীত উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের অংশ হিসেবে বদলে যাচ্ছে বহুল প্রতীক্ষিত আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ মহাসড়ক— কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়ক।

যে সড়ক ব্যবহার করে চাঁদপুর জেলার শাহরাস্তি, হাজীগঞ্জ, কচুয়া, ফরিদগঞ্জ, মতলব উত্তর, মতলব দক্ষিণ, হাইমচর, দক্ষিণ কুমিল্লার সদর দক্ষিণ, লালমাই, লাকসাম, নাঙ্গলকোট, মনোহরগঞ্জ, নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ী, হাতিয়া, সেনবাগ, সুবর্ণচর, বেগমগঞ্জ, চাটখিল, কবিরহাট, নোয়াখালী সদর, লক্ষ্মীপুর জেলার কমলনগর, রামগঞ্জ, রামগতি এলাকায় যাতায়াত করে লাখ লাখ মানুষ।
বিগত ২০১৬ সালেও যে সড়ক সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের বাসিন্দাদের অভিযোগের অন্ত ছিল না সেই মহাসড়ককেই সরকারের উন্নয়ন থাবার আওতায় নিয়ে আসায় এখন স্বস্তি প্রকাশ করছে সংশ্লিষ্টরা।

এ সড়ক ব্যবহারকারী বৃহত্তর নোয়াখালী ও আংশিক ব্যবহারকারী চাঁদপুর অঞ্চলের বাসিন্দারা যাতায়াত করেন কুমিল্লা, চট্টগ্রাম ও ঢাকাসহ দেশের উত্তরাঞ্চলে।উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় আনার আগে এ মহাসড়ক সরু থাকায় প্রায় প্রতিদিনই কোনো না কোনো অংশে দুর্ঘটনার  খবর পাওয়া যেত। সংশ্লিষ্ট সড়ক ব্যবহারকারী বর্তমান সরকারের দু-চারজন নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের নেতৃবৃন্দের একান্ত প্রচেষ্টায় সরকারের একনেক সভায় মহাসড়কটি ৪ লেনে উন্নীত করে দুর্ভোগ লাঘবের জন্য ২ হাজার ১৭০ কোটি টাকার বরাদ্দ দেওয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বরাদ্দকৃত অর্থের ভিত্তিতে ২০১৭-১৮ সালের ২২ সেপ্টেম্বর চারলেনে উন্নীত করার কাজও উদ্বোধন করেন বর্তমান অর্থমন্ত্রী আহম মোস্তফা কামাল (এফসিএ)। ২০২০ সালের জুন মাসে চারলেনে উন্নীত করার বিশাল কর্মযজ্ঞ শুরুর সময়ও প্রায় ফুরিয়ে এসেছে অনেকটাই। পাশাপাশি বাস্তবায়ন কাজও দৃশ্যমান হয়েছে অনেকাংশেই।

কুমিল্লার পদুয়ার বিশ্বরোড থেকে লালমাই হয়ে লাকসাম পর্যন্ত সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, ঠিকাদারিপ্রতিষ্ঠান মেসার্স তাহের ব্রাদার্স, রানা বিল্ডার্স ও হাছান টেকনো বিল্ডার্স লিমিটেডের সড়ক নির্মাণকর্মীরা রাতদিন যৌথভাবে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।কুমিল্লা শহরের টমছম ব্রিজ থেকে শুরু করে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ পর্যন্ত ৫৯ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের এ সড়ক চারলেনে উন্নীত করার লক্ষ্যে সড়কের দুপাশে মাটি ভরাট কাজের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া কাজের অনেকটাই শেষ হয়েছে পিচ ঢালাইয়ের মাধ্যমে।

সড়ক ও জনপথ অফিস সূত্র জানায়, ২০২০ সালের জুনের মধ্যে নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। লক্ষ্মীপুর-নোয়াখালী জেলার লাখ লাখ যাত্রী সড়কপথে বেগমগঞ্জ চৌরাস্তা হয়ে লাকসাম ও কুমিল্লা হয়ে ঢাকাসহ দেশের উত্তরাঞ্চলে যাতায়াত করেন। যে কারণে প্রতিদিন হাজারো যানবাহন বেগমগঞ্জ-লাকসাম-কুমিল্লা সড়কে চলাচল করায় এ সড়কের গুরুত্ব বহুলাংশে বেড়েছে।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ থেকে কুমিল্লার টমছম ব্রিজ পর্যন্ত সড়ক বর্ধিত না হওয়ায় প্রতিনিয়ত যানজট ও দুর্ঘটনা লেগেই থাকে। নোয়াখালীর সোনাপুর জিরো পয়েন্ট থেকে কুমিল্লার টমছম ব্রিজ পর্যন্ত সড়কটি চারলেনে উন্নীত হলে দেশের দক্ষিণাঞ্চলবাসীর দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা পূরণ হবে এবং জাতীয় অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে আঞ্চলিক এ মহাসড়ক।

নোয়াখালী সমাচার
নোয়াখালী সমাচার
নগর জুড়ে বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর