ব্রেকিং:
তিন বছর ধরে ছাত্রীকে ধর্ষণ-ভিডিও ধারণ, নিখোঁজ ২ মাস বিকালে সংবাদ সম্মেলন আসছেন প্রধানমন্ত্রী মার্চে ৩৮, এপ্রিলে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়াতে পারে তাপমাত্রা মুশতাক আহমেদের স্বাভাবিক মৃত্যু নিয়ে তাসনিম-পিনাকী গংয়ের অপপ্রচার বনানীতে বিএনপির হঠাৎ মশাল মিছিল, দুর্ভোগে নগরবাসী মার্চেই কালবৈশাখীর আশঙ্কা খাশোগিকে হত্যার অনুমতি দেন সৌদি যুবরাজ: মার্কিন রিপোর্ট পরিসংখ্যান উন্নয়ন ও অগ্রগতির পরিমাপক: প্রধানমন্ত্রী রায়পুরে অস্ত্রসহ ৭ জলদস্যু আটক করোনায় আরো ১১ মৃত্যু, শনাক্ত ৪৭০ চার কেজি চাল চুরি, তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি ব্যবসায়ীর ঘরে দুর্ধর্ষ ডাকাতি, প্রবাসীর স্ত্রী‌কে কুপিয়ে জখম শনিবার সংবাদ সম্মেলন করবেন প্রধানমন্ত্রী ফেরারি আসামির নেতৃত্বে বিএনপি গভীর গর্তে ২০৯ কোটি টাকার প্রকল্পে লাখো যুবকের কর্মসংস্থান ফেনীতে কিশোরী ধর্ষণ মামলায় কনস্টেবল গ্রেফতার ভাবিকে নিয়ে পালালেন নাছির, অবশেষে গ্রেফতার মেয়েকে ধর্ষণের পর মাকেও রাত কাটানোর প্রস্তাব বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ পাচ্ছে পলিটেকনিক শিক্ষার্থীরা সুখবরের অপেক্ষায় বাংলাদেশ
  • শনিবার   ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ১৫ ১৪২৭

  • || ১৪ রজব ১৪৪২

ফেসবুকে সুলভে বিজ্ঞাপন, টাকা পেলেই ব্লক ক্রেতার নাম্বার

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

ফেসবুকে প্রসাধনসামগ্রী বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়ে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিলেন কথিত এক দম্পতি। সোমবার সিআইডি তাদের গ্রেফতার করে। মঙ্গলবার তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। 

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের ঢাকা উদ্যান হাউজিং সোসাইটিতে অভিযান চালিয়ে প্রবাল তালুকদার ও জেনিফা তালুকদার দম্পতিকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে প্রতারণায় ব্যবহৃত চারটি ফোন উদ্ধার করে সিআইডি।

মঙ্গলবার কথিত এই দম্পতির প্রতারণার শিকার নাদিয়া ইসলাম নামে এক নারী তাদের বিরুদ্ধে মোহাম্মদপুর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেছেন বলে জানা গেছে। 

মামলায় নাদিয়া ইসলাম বলেন, অল এসেনশিয়াল বাই জেরিন নামে একটি ফেসবুক গ্রুপে সুলভ মূল্যে প্রসাধনসামগ্রী বিক্রির বিজ্ঞাপন দেখে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন তিনি। গত বছরের ১০ মার্চ থেকে নভেম্বর পর্যন্ত তাদের দেয়া দুটি ফোন নম্বরে ৬৭ হাজার ৮০০ টাকা বিকাশ করেন নাদিয়া। প্রবাল নিজে তার বাসায় এসে টাকা নিয়ে যান। পণ্য পৌঁছে দেয়ার তারিখ পার হলেও তার কাছে মালামাল পৌঁছে দেয়া হয়নি। পরে তারা নাদিয়ার নাম্বারগুলো ব্লক করে দেন।

মামলার তদন্ত তদারক কর্মকর্তা সিআইডির সিপিসির বিশেষ এসপি এস এম আশরাফুল আলম জানান, জেনিফা ও প্রবাল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে গ্রুপ খুলে প্রসাধনসামগ্রী বিক্রির চটকদার বিজ্ঞাপন দিতেন। এসব বিজ্ঞাপন দেখে ক্রেতারা তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা ক্রেতাদের বিকাশ করে টাকা পাঠাতে বলেন। টাকা পাওয়ার পর তারা ক্রেতাদের নাম্বার ব্লক করে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন। 

সিআইডি জানায়, প্রতারণার শিকার কয়েকজন সিআইডির সাইবার পুলিশ সেন্টারে (সিপিসি) গিয়ে অভিযোগ করেন। পরে সিপিসির সদস্যরা অবস্থান শনাক্ত করে প্রতারক দম্পতি জেনিফা ও প্রবালকে আটক করে। পুলিশ বলছে, দুজনই মাদকসেবী। স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিলেও এ বিষয়ে পুলিশের সন্দেহ রয়েছে।