ব্রেকিং:
বর্তমান সরকার প্রবাসীবান্ধব: রাষ্ট্রদূত আবু জাফর সবাই জানেন ‘টিকটক তারকা’, আসলে তিনি দুর্ধর্ষ ছিনতাইকারী করোনার ডেল্টা ধরন শিশুদের আক্রমণ করে না: ডব্লিউএইচও জ্বালানি-বিদ্যুৎ খাতে যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে আগস্টে বিটিভির মাসব্যাপি বিশেষ আয়োজন শোকগাঁথা রক্তাক্ত আগস্টের প্রথমদিন কাল পর্ন ছবি নিয়ে নানা অভিযোগ, অভিনেত্রীদের রয়েছে ‘ভিন্ন’ মত বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া সিরিজে আম্পায়ার থাকছেন যারা দুর্গম চরের অদম্য সাহসী নারী ফুলেআরা ইমাম চার বছরেও সচল হয়নি ডিজিটাল এক্স-রে মেশিন নিষিদ্ধ হচ্ছে ‘সুগার ডেডি’ অ্যাপ ভিডিও করতে ১৬০ ফুট উঁচুতে উঠে পড়ে গেলেন টিকটক স্টার লকডাউনে বের হয়ে স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে বিপাকে প্রেমিক-প্রেমিকা নদী খননের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছি করোনা রোগীদের সেবায় ৫০ অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদান জগন্নাথপুর থেকে বিপুল পরিমান মাদকসহ ৪ জন আটক ফাঁকা বাসায় ডেকে নিয়ে বিপদে পড়া নারীকে ধর্ষণ করলেন চেয়ারম্যান বাতাস থেকে অক্সিজেন তৈরীর মেশিন পেল বরুড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ সৃষ্টি হতো না দুই চ্যানেলে দেখা যাবে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ
  • রোববার   ০১ আগস্ট ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১৭ ১৪২৮

  • || ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

ফুঁ দিলেই চলে যায় জ্বীন, সারে ক্যান্সার

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৩ নভেম্বর ২০২০  

মানুষের লম্বা লাইন, দিনভর চলে ঝাড়ফুঁক। জ্বীন তাড়ানো থেকে শুরু করে ক্যান্সার, বন্ধ্যাত্বসহ জটিল রোগের চিকিৎসা দিচ্ছে তারা। আর এ জন্য রোগীদের গুনতে হচ্ছে হাজার হাজার টাকা। তবে এসব চিকিৎসায় মানবদেহে বড় ধরনের জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে বলছেন চিকিৎসকরা।

ঝিনাইদহ সদরের পোড়াহাটি ইউপির সুরাপাড়া গ্রামের কথিত কবিরাজ আব্দুল গনি বিশ্বাস। যিনি দীর্ঘদিন ধরে ঝাড়ফুঁক ও গাছ-গাছড়ার মাধ্যমে জটিল রোগের চিকিৎসা দিচ্ছেন। এভাবেই রোগীদের ধোঁকা দিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছেন মোটা অংকের টাকা। এতে সিন্ডিকেটও রয়েছে।

সপ্তাহে ৫ দিন এ ভণ্ড কবিরাজের আস্তানায় নামে মানুষের ঢল। বেশিরভাগই এসেছেন লোকমুখে শুনে। এর মধ্যে কারো শরীরে দুষ্টু জ্বীনের আবির্ভাব, কারো বা সন্তান হচ্ছে না, কেউ আবার প্যারালাইসিসে কিংবা ক্যান্সারে আক্রান্ত। লাঠির মাথায় আগুন ধরিয়ে এসব রোগীদের জ্বীন-ভূত তাড়ান কবিরাজ আব্দুল গনি বিশ্বাস। এ কাজে সহযোগিতা করেন আবুল হাসান আলম। পানিপড়া কিংবা শিকড়-বাকড়ের মাধ্যমেও দেয়া হয় চিকিৎসা। তবে কথিত কবিরাজ আব্দুল গনির দাবি, তিনি মানুষের কাছ থেকে কোনো ধরনের টাকা-পয়সা নেন না, হাদিয়া হিসেবে কেউ কিছু দিয়ে গেলে সেটাই নেন।

কবিরাজি চিকিৎসা নিতে আসা এক রোগীর স্বজন জানান, লোকমুখে শুনে তা বাবাকে নিয়ে এসেছেন কবিরাজ আব্দুল গনি বিশ্বাসের আস্তানায়। চিকিৎসা দেয়ার পর কবিরাজ আশ্বাস দিয়েছেন রোগী সুস্থ হবেন।

 

লাঠির মাথায় আগুন জ্বালিয়ে জ্বীন তাড়াচ্ছেন কবিরাজ আব্দুল গনি বিশ্বাস

লাঠির মাথায় আগুন জ্বালিয়ে জ্বীন তাড়াচ্ছেন কবিরাজ আব্দুল গনি বিশ্বাস

কবিরাজ আব্দুল গনি বিশ্বাস বলেন, আমি আল্লাহর কালামের মাধ্যমে ঝাড়ফুঁক দেই। আমার এখানে যেসব গাছ আছে, সবই আল্লাহর কালামের গাছ। আমার এখানে অনেক রোগী এসে সুস্থ হয়েছেন। যাদের বাচ্চা হয়নি, তাদের হয়েছে। এছাড়া কাউকে জ্বীনে ধরলে আমি সেই জ্বীন তাড়াই। জ্বীন আমার কথা শোনে।

মানবাধিকার কর্মী শরিফা খাতুন জানান, শুধু সুরাপাড়া গ্রামই নয়, এমন কবিরাজের দৌরাত্ম্য রয়েছে জেলা সদরের সাধুহাটি, শৈলকুপা উপজেলার ফলিয়া বটতলা, দেবীনগরসহ বেশিরভাগ গ্রামে।

ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের চিকিৎসক প্রসেনজিৎ পার্থ বিশ্বাস জানান, এ ধরনের ঝাড়ফুঁকসহ কবিরাজি চিকিৎসায় রোগ নিরাময়ের পরিবর্তে তৈরি হয় জটিল রোগ।

ঝিনাইদহের ডিসি সরোজ কুমার নাথ বলেন, জ্বীন-ভূত তাড়ানো কিংবা চিকিৎসার নামে এসব কথিত কবিরাজরা মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছে। তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হবে।