ব্রেকিং:
দেশে করোনার টিকা কবে আসবে, জানালেন স্বাস্থ্য সচিব কোনোভাবেই বেপরোয়া গাড়ি চালানো যাবে না: সেতুমন্ত্রী ছিন্নমূল শতাধিক পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অসহায়দের মাঝে আওয়ামীলীগ নেতার কম্বল বিতরণ ব্যাংকার্স ফোরাম লক্ষ্মীপুরের অভিষেক অনুষ্ঠিত ফেনীতে ১০০ সাংবাদিককে প্রশিক্ষণ দিয়েছে প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে অবৈধ গ্যাস সংযোগ তৃণমূলের সাথে যাদের সুসম্পর্ক তাকে মনোনয়ন দেয়া হবে পরশুরামকে আলোকিত করে দিচ্ছেন পৌর মেয়র সাজেল চৌধুরী সোনাগাজী মডেল থানার উন্নয়ন ও সংস্কার কাজের উদ্বোধন করলেন এসপি ভাস্কর্য নির্মাণে বিরোধিতার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল রায়পুরে হাসপাতালে অভিযান, ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা ফেনীতে স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতি চলছে ফেনীতে আ’লীগের সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন শুরু হচ্ছে আজ লক্ষ্মীপুরে এসিড সন্ত্রাসের শিকার ৩ নারী সুবর্ণচরে ভূমিদস্যুদের বিরুদ্ধে ভূমিহীনদের মানববন্ধন নিঝুমদ্বীপে উচ্ছেদ আতঙ্কে ভূমিহীনরা ৫ টাকায় সারাদিন ইন্টারনেট ব্যবহারের পদ্ধতি তৈরি করলেন দুই বাংলাদে উন্নত প্রযুক্তির বডি স্ক্যানার বসছে শাহজালাল বিমানবন্দরে দেশের তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবল স্থাপিত হবে ৬৯৩ কোটি টাকায়
  • মঙ্গলবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৮ ১৪২৭

  • || ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

১২২

ফুঁ দিলেই চলে যায় জ্বীন, সারে ক্যান্সার

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৩ নভেম্বর ২০২০  

মানুষের লম্বা লাইন, দিনভর চলে ঝাড়ফুঁক। জ্বীন তাড়ানো থেকে শুরু করে ক্যান্সার, বন্ধ্যাত্বসহ জটিল রোগের চিকিৎসা দিচ্ছে তারা। আর এ জন্য রোগীদের গুনতে হচ্ছে হাজার হাজার টাকা। তবে এসব চিকিৎসায় মানবদেহে বড় ধরনের জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে বলছেন চিকিৎসকরা।

ঝিনাইদহ সদরের পোড়াহাটি ইউপির সুরাপাড়া গ্রামের কথিত কবিরাজ আব্দুল গনি বিশ্বাস। যিনি দীর্ঘদিন ধরে ঝাড়ফুঁক ও গাছ-গাছড়ার মাধ্যমে জটিল রোগের চিকিৎসা দিচ্ছেন। এভাবেই রোগীদের ধোঁকা দিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছেন মোটা অংকের টাকা। এতে সিন্ডিকেটও রয়েছে।

সপ্তাহে ৫ দিন এ ভণ্ড কবিরাজের আস্তানায় নামে মানুষের ঢল। বেশিরভাগই এসেছেন লোকমুখে শুনে। এর মধ্যে কারো শরীরে দুষ্টু জ্বীনের আবির্ভাব, কারো বা সন্তান হচ্ছে না, কেউ আবার প্যারালাইসিসে কিংবা ক্যান্সারে আক্রান্ত। লাঠির মাথায় আগুন ধরিয়ে এসব রোগীদের জ্বীন-ভূত তাড়ান কবিরাজ আব্দুল গনি বিশ্বাস। এ কাজে সহযোগিতা করেন আবুল হাসান আলম। পানিপড়া কিংবা শিকড়-বাকড়ের মাধ্যমেও দেয়া হয় চিকিৎসা। তবে কথিত কবিরাজ আব্দুল গনির দাবি, তিনি মানুষের কাছ থেকে কোনো ধরনের টাকা-পয়সা নেন না, হাদিয়া হিসেবে কেউ কিছু দিয়ে গেলে সেটাই নেন।

কবিরাজি চিকিৎসা নিতে আসা এক রোগীর স্বজন জানান, লোকমুখে শুনে তা বাবাকে নিয়ে এসেছেন কবিরাজ আব্দুল গনি বিশ্বাসের আস্তানায়। চিকিৎসা দেয়ার পর কবিরাজ আশ্বাস দিয়েছেন রোগী সুস্থ হবেন।

 

লাঠির মাথায় আগুন জ্বালিয়ে জ্বীন তাড়াচ্ছেন কবিরাজ আব্দুল গনি বিশ্বাস

লাঠির মাথায় আগুন জ্বালিয়ে জ্বীন তাড়াচ্ছেন কবিরাজ আব্দুল গনি বিশ্বাস

কবিরাজ আব্দুল গনি বিশ্বাস বলেন, আমি আল্লাহর কালামের মাধ্যমে ঝাড়ফুঁক দেই। আমার এখানে যেসব গাছ আছে, সবই আল্লাহর কালামের গাছ। আমার এখানে অনেক রোগী এসে সুস্থ হয়েছেন। যাদের বাচ্চা হয়নি, তাদের হয়েছে। এছাড়া কাউকে জ্বীনে ধরলে আমি সেই জ্বীন তাড়াই। জ্বীন আমার কথা শোনে।

মানবাধিকার কর্মী শরিফা খাতুন জানান, শুধু সুরাপাড়া গ্রামই নয়, এমন কবিরাজের দৌরাত্ম্য রয়েছে জেলা সদরের সাধুহাটি, শৈলকুপা উপজেলার ফলিয়া বটতলা, দেবীনগরসহ বেশিরভাগ গ্রামে।

ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের চিকিৎসক প্রসেনজিৎ পার্থ বিশ্বাস জানান, এ ধরনের ঝাড়ফুঁকসহ কবিরাজি চিকিৎসায় রোগ নিরাময়ের পরিবর্তে তৈরি হয় জটিল রোগ।

ঝিনাইদহের ডিসি সরোজ কুমার নাথ বলেন, জ্বীন-ভূত তাড়ানো কিংবা চিকিৎসার নামে এসব কথিত কবিরাজরা মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছে। তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হবে।

অপরাধ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর