ব্রেকিং:
২১ মাস পরই ঢাকা-কক্সবাজার যাওয়া যাবে ট্রেনে ইলিশ উৎপাদন বাড়াতে ২৪৬ কোটি টাকার প্রকল্প আসছে দেশে একদিনে ২৬ মৃত্যু, শনাক্ত দেড় হাজারের বেশি নারী দলকে একশ’র ভেতর আনার প্রতিশ্রুতি দিলেন সালাউদ্দিন দুর্নীতি মামলায় প্রদীপের জামিন নামঞ্জুর, সম্পত্তি ক্রোকের আবেদন চার বছরের মাঝে র‍্যাংকিং দেড়শ’তে আনার প্রতিশ্রুতি সালাউদ্দিনের ৫ কোম্পানির দুধ উৎপাদন-বিপণনে বাধা নেই বিএনপি আন্দোলনের ডাক দিয়ে নিজেরাই মাথা ফাটাফাটি করে ৯৯৯-এ ফোন করে গণপিটুনি থেকে রক্ষা পেল চোর লক্ষ্মীপুরের নদী ভাঙ্গন রোধ প্রকল্প পাশের সম্ভাবনা নোয়াখালীতে আগুনে পাঁচ দোকান পুড়ে ১০ লাখ টাকার ক্ষতি শিগগিরই নির্মিত হচ্ছে দেশের প্রথম হেলিপোর্ট টার্মিনাল চলতি মাসেই এলপিজির দাম নির্ধারণ চায় বিইআরসি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে আ’লীগের মনোনয়ন কিনলেন ৮ জন জনপ্রিয়তা ও গনসংযোগে এগিয়ে রয়েছেন যারা মেঘনার ভাঙ্গন রোধে ৩২০০ কোটি টাকার প্রকল্পের প্রস্তাব ইয়াবাসহ ছেলে আটক নদী ভাঙ্গন জাতীয় সমস্যায় পরিণত হয়েছে: পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী ফেনী ট্রমা সেন্টার চালুর ব্যাপারে আশা হামলায় আহত ব্যবসায়ী পরিবার
  • রোববার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ৫ ১৪২৭

  • || ০১ সফর ১৪৪২

১১২২

প্রধানমন্ত্রী আজ আসছেন নোয়াখালীর স্বর্ণদ্বীপে

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি ২০২০  

 বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একটি মহড়া অবলোকনসহ বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নিতে আজ নোয়াখালীর হাতিয়ার স্বর্ণদ্বীপে (জাহাইজ্জার চর) আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে সেনাবাহিনীর উদ্যোগে স্বর্ণদ্বীপে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থাসহ সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। সকাল সাড়ে ১১টায় হেলিকপ্টারযোগে প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণদ্বীপে পৌঁছাবেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানাবেন সেনাবাহিনী প্রধান লে. জেনারেল আজিজ আহমেদ।
প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৬৬তম পদাতিক ডিভিশনের তত্ত্বাবধানে এবং ৩৩ পদাতিক ডিভিশনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় স্বর্ণদ্বীপ এলাকায় আসন্ন ম্যানুভ্যার অনুশীলন-২০২০ মহড়া অনুষ্ঠান অবলোকনসহ ওই চরে সেনাবাহিনীর বনায়ন কার্যক্রম ও বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। নোয়াখালীর দক্ষিণে মেঘনা নদী থেকে প্রায় ২০ বছর আগে জেগে ওঠে এই চরটি। সুবর্ণচর ও চট্টগ্রামের সন্দ্বীপের কিছু অংশ রয়েছে চরটিতে। সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে ৩ মিটার উচ্চতায় অবস্থিত ৩৬০ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই চরটি ২০১৩ সালে বাংলাদেশ  সেনাবাহিনীকে হস্তান্তরের পর এটি স্বর্ণদ্বীপ হিসেবে নামকরণ করা হয়।

এ দ্বীপের উন্নয়নের জন্য বাংলাদেশ সেনাবাহিনী একটি ত্রিমুখী পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। প্রশিক্ষণের জন্য অবকাঠামোগত উন্নয়ন, বনায়ন ও স্থানীয় জনগণের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন। প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে স্বর্ণদ্বীপকে রক্ষার জন্য সেখানে বনায়ন ও বৃক্ষরোপণের অংশ হিসেবে সেনাবাহিনীর বনায়ন ও বৃক্ষরোপণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে সেখানে ৬০ হাজার ঝাউ গাছের চারা রোপণ করা হয়েছে।  হেলিকপ্টারের সহায়তায় সিড বোম্বিং-এর মাধ্যমে ২ টন কেওড়ার বীজ বপন করা হয়েছে। ভিয়েতনাম থেকে আনা ডুয়ার্ফ প্রজাতির ১৫শ’ নারিকেল গাছের চারার সমন্বয়ে পাইলট প্রকল্প হিসেবে কৃষি মন্ত্রণালয়ের কারিগরি সহায়তায় একটি আদর্শ নারিকেল বাগান তৈরি করা হয়েছে।

নগর জুড়ে বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর