ব্রেকিং:
হাতিয়ায় অবৈধভাবে চলছে ১২ হাজার মোটরসাইকেল দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেয়েছে: শিল্প প্রতিমন্ত্রী ‘এরশাদের আসনে আওয়ামী লীগ অংশ নেবে’ সবাই মিলে দেশটাকে গড়ে তুলতে হবে: গণপূর্তমন্ত্রী ‘আওয়ামী লীগের আমলে বৃক্ষ রোপণের গণজাগরণ হয়’ শিক্ষামন্ত্রীর স্বামী তৌফিক নেওয়াজ গুরুতর অসুস্থ বন্যা মোকাবিলায় মাঠে সরকার ‘আমরা বাংলাদেশের বোঝা হয়ে আর থাকতে চাই না’ শুধু কূটনৈতিক নয়, অর্থনৈতিক বিষয়গুলোতে জোর দিতে হবে টাইগার অধিনায়ক তামিম ইকবাল অভিযোগ প্রমাণ করতে না পারলে প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা কোম্পানীগঞ্জে নগদ টাকা অনুদান প্রদান কোম্পানীগঞ্জে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ‘ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার অভিযোগ উদ্দেশ্যমূলক’ প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গিয়ে অণ্ডকোষ হারালো যুবক মিয়ানমারের উপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা পর্যাপ্ত নয়: জাতিসংঘ ব্যক্তিস্বার্থে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার অপচেষ্টায় প্রিয়া সাহা আদালতে রিফাত হত্যার মিন্নির স্বীকারোক্তি যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা বিনিময় আর্থিক সহায়তা পেতেই ট্রাম্পের কাছে মিথ্যাচার করলো প্রিয়া সাহা!

সোমবার   ২২ জুলাই ২০১৯   শ্রাবণ ৬ ১৪২৬   ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪০

সর্বশেষ:
পদ্মা সেতু নিয়ে গুজবে গ্রেফতার ১ জন অপপ্রচারই বিএনপির পুঁজি: ওবায়দুল কাদের ‘মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা হবে ১৫ হাজার টাকা’ জেলা প্রশাসক সম্মেলন ১৪ জুলাই বাংলাদেশের আর্থিক অন্তর্ভুক্তির প্রশংসায় রানী ম্যাক্সিমা নতুন দুই মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর শপথ ১৩ জুলাই
৬৯৯

‘প্রতিবছরই’ এভারেস্ট জয় করেন যিনি

প্রকাশিত: ১৭ জুন ২০১৯  

কেউ যখন এভারেস্ট জয় করেন, তখন তিনি ওই দেশের গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ সাইটগুলোতে আলোচনার বিষয়বস্তু হয়ে ওঠেন। ১৯২১ সাল থেকেই এভারেস্টের চূড়ায় ওঠার অভিযান চলছে। প্রত্যেক পর্বতারোহীর-ই স্বপ্ন থাকে অন্তত একবার হলেও বিশ্বের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ হিমালয়ের চূড়ায় পা রাখার। কিন্তু কামি রিটা শেরপার কাছে এ যেন ডাল-ভাত। তিনি এই নিয়ে ২৪ বার এভারেস্ট শীর্ষে পা রেখেছেন।
শুধু তাই নয়, তিনি এ বছরই এভারেস্ট জয় করেছেন দুই বার। একবার ১৫ মে এবং তারপরে ২১ মে। সেভেন সামিট ট্র্যাক নামের যে ভ্রমণ সহায়তা প্রতিষ্ঠানের হয়ে তিনি কাজ করেন সে প্রতিষ্ঠান গত ২১ মে বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে লিখেছে- ‘আমাদের জৈষ্ঠ্য গাইড কামি রিটা শেরপা ২৪তম বারের মতো এভারেস্ট জয়, যা ৮,৮৪৮ মিটার। অনেক অনেক অভিনন্দন তাকে।’

নেপালের সলুখুম্বু জেলার থামি গ্রামে বাড়ি এই পর্বোতারোহীর। ১৯৯৪ সালের ১৩ মে প্রথম বার এভারেস্টে পা রাখেন কামি রিটা। তারপর থেকে শুধুমাত্র ১৯৯৬, ২০০১, ২০১১ এবং ২০১৪ বাদে, প্রত্যেক বছরই এভারেস্ট শীর্ষে পৌঁছেছেন তিনি। এ নিয়ে চার মৌসুমে দু’বার করে  এভারেস্ট শীর্ষে পা রেখেছেন। এর আগে ২০০৯, ২০১০ এবং ২০১৩ সালে এভারেস্টে ‘ডবল অ্যাসেন্ট’ করেছিলেন তিনি শেরপা গোষ্ঠীর একজন হচ্ছেন কামি রিটা। তার গোষ্ঠীর বেশিরভাগ মানুষ পর্বত আরোহনের গাইড হিসেবে কাজ করেন। তারা বসবাস করেন নেপাল এবং হিমালয় পর্বতের আশেপাশেই। অনেক শেরপাই খুবই দক্ষ পর্বতারোহী এবং স্থানীয় এলাকার সম্পর্কে অনেক অভিজ্ঞ। কামি রিটাও তেমন একজন শেরপা।

এভারেস্টে ওঠার প্রতিটি মৌসুমেই নতুন রেকর্ড গড়া হয়। এবারো এর ব্যতিক্রম ঘটেনি। দক্ষিণ আফ্রিকার সারা এন কুশি কুম্বলো প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ আফ্রিকান নারী হিসেবে এভারেস্ট করেছেন। এবং এ বছরেও অনেক পর্বতারোহী মারা গেছেন এবং হারিয়ে গেছেন। কিন্তু থেমে নেই এভারেস্ট জয় করার কাজটি।

নোয়াখালী সমাচার
নোয়াখালী সমাচার