ব্রেকিং:
দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ১৫ ‘স্বল্প সংখ্যক’ যাত্রী নিয়ে ৩১ মে থেকে চলবে বাস-ট্রেন-লঞ্চ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফ্লাইট চালুর প্রস্তুতি করোনা ও অন্য রোগীদের আলাদা চিকিৎসা দেয়ার নির্দেশ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন শিল্পপ্রতিষ্ঠানসমূহকে ঢেলে সাজানো হচ্ছে আরও ২ হাজার চিকিৎসক নেওয়ার পরিকল্পনা সংক্রমণ ঝুঁকিমুক্ত বিশেষ চিকিৎসা বুথ তৈরি ছুটি আর বাড়ছে না, ৩১ মে থেকে অফিস শুরু দুর্গম খাসিয়া পুঞ্জিতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন শেখ হাসিনা করোনায় সংক্রমিত পৌরসভার পিয়ন ফকির সুবর্ণচরে সরকারি চাল জব্দ, ডিলার পলাতক, ক্রেতার জরিমানা নোয়াখালীতে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৩ জনের মৃত্যু নোয়াখালীতে ডোবায় মিলল ব্যবসায়ীর লাশ হাতিয়া উপকূলে নতুন প্রজাতি আবিষ্কার করলেন নোবিপ্রবি শিক্ষক ফেনীতে মিলে আগুন! লক্ষাধিক টাকা ক্ষতি শুধু যোদ্ধাই নয়, হাতে ওদের নতুন পৃথিবীও করোনার নমুনা সংগ্রহে ‘ভিটিএম কিট’ তৈরি হলো দেশে ২৪ ঘণ্টায় নতুন কোনো ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়নি করোনা জয় করলেন ১১১৯ পুলিশ সদস্য
  • বৃহস্পতিবার   ২৮ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪২৭

  • || ০৫ শাওয়াল ১৪৪১

১৬৭

পদ হারাচ্ছেন তারেক রহমান, খালেদাপন্থীদের উচ্ছ্বাস!

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৯ মার্চ ২০২০  

খালেদা জিয়ার মুক্তির আগে দলের অভ্যন্তরে যে গুঞ্জন ছিলো, অবশেষে তা সত্যি হতে যাচ্ছে। পদ হারাতে যাচ্ছেন খালেদার জ্যেষ্ঠপুত্র ও বিএনপির বর্তমান দায়িত্বে থাকা তারেক রহমান।

দলীয় বিভিন্ন বিশ্বস্ত সূত্রের বরাতে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে। এ খবর ছড়িয়ে পড়ার পর খালেদাপন্থীরা হাফ ছেড়ে চাপ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করলেও বেকায়দায় রয়েছেন তারেকের ছাপোষা নেতাকর্মীরা। তাদের আশঙ্কা, তারাও অচিরে পদ হারাবেন। মাইনাস ফর্মুলায় বলি হয়ে নির্বাসিত হবেন অনিশ্চিত রাজনৈতিক অচলায়তনে। যেখান থেকে চাইলেও আর ফেরা সম্ভব না।

বিশ্বস্ত একটি সূত্র জানিয়েছে, দুর্নীতির দায়ে ২৫ মাস সাজা ভোগের পর ‘মানবিক বিবেচনায়’ ২৫ মার্চ মুক্তি পেয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তার মুক্তির পরপরই রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) অবস্থানকারী খালেদার ভাই শামীম ইস্কান্দারকে লন্ডন থেকে একাধিকবার ফোন দেন তারেক রহমান। কিন্তু তিনি ফোনের জবাব দেননি। পরে গুলশানে যাওয়ার পথেও ফোন দেন তারেক। সে সময় খালেদা বিরক্ত হয়ে বলেন, ‘তারেকের ফোন কেটে দাও। আমি ক্লান্ত। কথা বলতে ভালো লাগছে না।’

এরপর থেকেই দলভ্যন্তরে গুঞ্জন উঠেছে, তারেক রহমানের বিদায় ঘণ্টা বেজে গেছে। কারণ তিনি খালেদার মুক্তির জন্য দৃশ্যমান কোন উদ্যোগ নেননি। বরং সুযোগ খুঁজেছেন তার মুক্তি ইস্যুকে পুঁজি করে বিভিন্ন মহল থেকে অর্থবাণিজ্যের। আর এ কথা খালেদা জিয়া জেনেছেন বলেই সন্তান হওয়া সত্ত্বেও তিনি তারেকের ফোন ধরছেন না। যা থেকে সহজেই বোঝা যায়, তারেক দলীয় পদ হারাচ্ছেন।

এ ব্যাপারে একাধিক খালেদাপন্থী নেতাকর্মীর সঙ্গে কথা হয় বাংলানিউজ ব্যাংকের এই প্রতিবেদকের। তারা জানান, ম্যাডাম (খালেদা জিয়া) তারেক রহমানের সব অপকর্মের ব্যাপারে অবগত হয়েছেন। ধারণা করা হচ্ছে, সে কারণেই তিনি তাকে দলীয় পদ থেকে অপসারণ করবেন। যার পূর্বাভাস তিনি তার কারামুক্তির দিনই দিয়েছেন তারেকের ফোন রিসিভ না করে। এটা অবশ্য তিনি ঠিকই করেছেন। কারণ তারেক সন্তান হয়ে কখনো মায়ের মুক্তি ইস্যুতে ব্যবসা করতে পারেন না। পাশাপাশি পদ-মনোনয়ন বাণিজ্য করে রাজনৈতিকভাবে অনভিজ্ঞ-অদক্ষদের দলে ঠাঁই দিতে পারেন না। যেটা তারেক করেছেন। আর তার শাস্তিই তিনি অচিরে পেতে যাচ্ছেন।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর