ব্রেকিং:
পদ্মার সোয়া দুই কিলোমিটার দৃশ্যমান মাদক রোধে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান খালেদা-তারেকের রাজনীতি করার অধিকার নেই বাসচাপায় নির্মাণ শ্রমিকের করুন মৃত্যু ভিকটিমের সাক্ষ্যে কাঁদলো সবাই চৌমুহনী বাজারের ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন তৃতীয় বারের মতো শ্রেষ্ঠ নোয়াখালী ডিবি ইউনিট নোয়াখালীর নতুন থানা ভাষানচর মা ইলিশ রক্ষায় প্রশাসনের সাঁড়াশি অভিযান অটোরিকশা কেড়ে নিল হাজারো স্বপ্ন চুরির ১২ ঘন্টার মধ্যেই পুলিশের অ্যাকশন ‘ভোলার ঘটনায় কেউ কর্তব্যে অবহেলা করলে ব্যবস্থা’ ২০ নভেম্বরের মধ্যে ছাপা হবে প্রাথমিকের সব বই জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস আজ শপথ নিলেন নতুন ৯ বিচারপতি বিএনপির এমপি হারুন অর রশীদের ৫ বছরের কারাদণ্ড আট ট্রাভেল এজেন্সির লাইসেন্স বাতিল সর্বদলীয় মুসলিম ঐক্য পরিষদের দাবি মেনে নিল প্রশাসন ডোবা থেকে যুবকের গলিত লাশ উদ্ধার নোয়াখালী পুলিশ ৬ ক্যাটাগরিতে পুষ্কার অর্জন

বুধবার   ২৩ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৭ ১৪২৬   ২৩ সফর ১৪৪১

সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান রাজধানীতে চার জঙ্গি আটক ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৪৪১

নোয়াখালীতে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে হত্যা, দেখে ফেলায় শিশুকেও হত্যা!

প্রকাশিত: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

নোয়াখালীর সদরের আন্ডার চরে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনা দেখে ফেলায় তিন বছরের কোলের শিশুকেও একই কায়দায় হত্যা করা হয়েছে। এ অভিযোগ করেছেন নিহত গৃহবধূ পান্না বেগমের বাবা আবুল কালাম ও বড় ভাই মো. হারুন।রোববার সকালে উপজেলার আন্ডারচর ইউপির ৯ নং ওয়ার্ডের কাজীর চর গ্রামের আইয়ুব আলীর বাড়ি থেকে নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত গৃহবধূ পান্না কাজীর চর গ্রামের ইটভাটার শ্রমিক মো. সুমনের স্ত্রী এবং শিশু লামিয়া সুমনের মেয়ে।

সুধারাম থানা পুলিশ স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানায় উপজেলার কাজীর চর গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেলে সুমনের স্ত্রী পান্না বেগম পারিবারিক কলহের জের ধরে শিশু সন্তান শারমিন আক্তার লামিয়াসহ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নিহত মা-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত গৃহবধূর শ্বশুর আইয়ুব আলী এবং শাশুড়ি হাসিনা আক্তারকে আটক করা হয়।  

নিহত গৃহবধূর বাবা আবুল কালাম ও বড় ভাই মো. হারুন অভিযোগ করে বলেন. গত পাঁচ বছর আগে কাজীর চর গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেলে মো. সুমনের সঙ্গে পারিবারিকভাবে পান্নার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই পারিবারিক কলহের জের ধরে শ্বশুর-শাশুড়ি ও ননদ পান্নাকে প্রায় নির্যাতন করত। শনিবার সুমনের মা হাসিনা আক্তারসহ পরিবারের লোকজন পান্নাকে নির্যাতনের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এ সময় পান্নার শিশু সন্তান শারমিন আক্তার লামিয়া ঘটনাটি দেখে ফেলায় তাকেও শ্বাসরোধ করে হত্যা করে সুমনের পরিবারের সদস্যরা। এরপর তারা পান্না এবং লামিয়ার মরদেহ ঘরের মধ্যে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে রাখেন। নিহত গৃহবধূ, শিশু লামিয়া ও পান্নার অনাগত সন্তানের হত্যার তদন্তপূর্বক বিচার দাবি করেন পান্নার পরিবারের সদস্যরা।

সুধারাম থানার ওসি নবীর হোসেন বলেন, গৃহবধূ ও তার শিশু সন্তানের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে বিস্তারিত বলা যাবে। এ ঘটনায় অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নোয়াখালী সমাচার
নোয়াখালী সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর