ব্রেকিং:
নোয়াখালীতে বেপরোয়া কিশোর গ্যাং বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ নোয়াখালীতে ফুটবল খেলা নিয়ে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ ‘রোহিঙ্গাদের যারা নিরুৎসাহিত করছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা’ প্রেমিকাসহ আটকা পড়ে ৯৯৯-এ কল দিয়ে উল্টো ফাঁসলেন প্রেমিক মাদকেই মরণ বিএনপির তৃণমূলের, রিহ্যাবে অসংখ্য নেতাকর্মীরা বাবার জায়গা নেই ছেলের পাকা ঘরে ‘মামলা থেকে বাঁচতে’ মাথায় হেলমেটের বদলে ঝুড়ি পাকিস্তানে টেস্ট খেলবে না শ্রীলংকা ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী পাঁচ দিনের রিমান্ডে শুভ জন্মাষ্টমী আজ প্রাথমিকে নিয়োগ হবে ৬১ হাজার শিক্ষক নোয়াখালী জেলা প্রশাসন এর কল সেন্টার ৩৩৩ উদ্বোধন কোম্পানীগঞ্জে ১৪ বছরের সশ্রম দন্ড প্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতার! ক্রিকেট খেলা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১৫ ‘ডেঙ্গু নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে একটি মহল’ শুভ জন্মদিন মোশাররফ করিম অনলাইনে কীভাবে জন্ম নিবন্ধন করাবেন? একাদশ সংসদের চতুর্থ অধিবেশন ৮ সেপ্টেম্বর দুর্নীতি নির্মূলে নিরলসভাবে কাজ করছে কমিশন

শনিবার   ২৪ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৮ ১৪২৬   ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

সর্বশেষ:
ঈদে স্বাস্থ্য বিভাগের সবার ছুটি বাতিলের সিদ্ধান্ত আলোচনার মাধ্যমেই রোহিঙ্গা সমাধান চায় বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী বিএনপির ব্যর্থতার দগদগে ঘা রয়েছে: ওবায়দুল কাদের জাল নোট চেনার সহজ উপায় গুজব: নায়িকা শাবনূর ‘মারা’ গেছেন!
৩৬২

নুসরাত হত্যায় সাত জনের সাক্ষ্য গ্রহণ

প্রকাশিত: ৯ মে ২০১৯  

ফেনীর সোনাগাজীতে মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যা মামলায় সাত জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে।
বুধবার দুপুরে ফেনীর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসাইনের আদালত সাক্ষ্য দেন কেরোসিন বিক্রেতা, বোরকা বিক্রেতা, বোরকার দোকানের কর্মচারী, নুসরাতের দুই বান্ধবী, মাদরাসার নৈশপ্রহরী ও পিয়ন।

পিবিআইয়ের এডিশনাল এসপি মো. মনিরুজ্জামান বলেন, নুসরাত কিলিং মিশনে কেরোসিন ও বোরকা ব্যবহার করেছিল চিহ্নিত দুর্বৃত্তরা। এরইমধ্যে কেরোসিন ও বোরকা বিক্রেতাসহ সাতজনের সাক্ষ্য নিয়েছে আদালত। সাতজনই গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষী।

এডিশনাল এসপি মনিরুজ্জামান আরো বলেন, নুসরাত হত্যাকাণ্ডের মূল রহস্য দ্রুত উদ্ঘাটন হয়েছে। সব আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সবার জবানবন্দি নেয়া হলেই অভিযোগপত্র তৈরি করা হবে। আশা করি এ মাসের মধ্যেই অভিযোগপত্র দাখিল করতে পারবো।

৬ এপ্রিল সকালে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে পাশের ভবনের ছাদে শরীরে কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করে ওই মাদরাসারই অধ্যক্ষ সিরাজ উদ-দৌলার অনুসারীরা। পাঁচদিন পর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায় নুসরাত। এ ঘটনায় তার ভাই মাহমুদুল হাসান নোমানের করা মামলায় ২১ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের মধ্যে অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাসহ ১২ জন হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন।

নোয়াখালী সমাচার
নোয়াখালী সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর