ব্রেকিং:
হাতিয়ায় অবৈধভাবে চলছে ১২ হাজার মোটরসাইকেল দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেয়েছে: শিল্প প্রতিমন্ত্রী ‘এরশাদের আসনে আওয়ামী লীগ অংশ নেবে’ সবাই মিলে দেশটাকে গড়ে তুলতে হবে: গণপূর্তমন্ত্রী ‘আওয়ামী লীগের আমলে বৃক্ষ রোপণের গণজাগরণ হয়’ শিক্ষামন্ত্রীর স্বামী তৌফিক নেওয়াজ গুরুতর অসুস্থ বন্যা মোকাবিলায় মাঠে সরকার ‘আমরা বাংলাদেশের বোঝা হয়ে আর থাকতে চাই না’ শুধু কূটনৈতিক নয়, অর্থনৈতিক বিষয়গুলোতে জোর দিতে হবে টাইগার অধিনায়ক তামিম ইকবাল অভিযোগ প্রমাণ করতে না পারলে প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা কোম্পানীগঞ্জে নগদ টাকা অনুদান প্রদান কোম্পানীগঞ্জে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ‘ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার অভিযোগ উদ্দেশ্যমূলক’ প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গিয়ে অণ্ডকোষ হারালো যুবক মিয়ানমারের উপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা পর্যাপ্ত নয়: জাতিসংঘ ব্যক্তিস্বার্থে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার অপচেষ্টায় প্রিয়া সাহা আদালতে রিফাত হত্যার মিন্নির স্বীকারোক্তি যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা বিনিময় আর্থিক সহায়তা পেতেই ট্রাম্পের কাছে মিথ্যাচার করলো প্রিয়া সাহা!

সোমবার   ২২ জুলাই ২০১৯   শ্রাবণ ৬ ১৪২৬   ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪০

সর্বশেষ:
পদ্মা সেতু নিয়ে গুজবে গ্রেফতার ১ জন অপপ্রচারই বিএনপির পুঁজি: ওবায়দুল কাদের ‘মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা হবে ১৫ হাজার টাকা’ জেলা প্রশাসক সম্মেলন ১৪ জুলাই বাংলাদেশের আর্থিক অন্তর্ভুক্তির প্রশংসায় রানী ম্যাক্সিমা নতুন দুই মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর শপথ ১৩ জুলাই
৬০৬

নামের প্রথম অক্ষর দেখে জেনে নিন স্বভাব কেমন?

প্রকাশিত: ২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

অনেকেই বলে নামে কী- বা এসে যায়! কিন্তু বস্তুত নাম-এ অনেক কিছু এসে যায়। নামের সঙ্গে একটি মানুষের গড়নও পরিবর্তন হতে থাকে। বিশ্বাস হচ্ছে না? সম্প্রতি এক গবেষণায় এই তথ্য প্রমানিত হয়েছে। লন্ডন ভিত্তিক কিউএস জরিপের একটি তথ্যে এমন প্রমাণ এরই মধ্যে মিলেছে। এমনকী তারা এও জানিয়েছেন নামের প্রথম অক্ষর থেকে আপনার স্বভাবও বেশ খানিকটা আগে থেকে বোঝা যাবে।

যাই হোক, আসল কথায় আসি। আজ ডেইলি বাংলাদেশের পাঠকদের নিয়ে দেখা যাক কোন ইংরেজি অক্ষর দিয়ে আপনার নাম শুরু হলে আপনার স্বভাবটি মোটামুটি কেমন হতে পারে। তবে মনে রাখবেন একটু ব্যতিক্রম হয়ত কিছু কিছু ক্ষেত্রে ঘটতে পারে।

A- প্রথমত এই অক্ষর দিয়ে যাদের নাম শুরু হয়, তারা সাধারণত খুব একটা রোমান্টিক নন। তবে তারা ব্যবসায় বেশ পারদর্শী। অর্থাৎ ভালো বোঝেন। ক্ষেত্র বিশেষে তাদের ধৈর্য্য কম থাকে। তবে সঙ্গীর শারীরিক আকর্ষণ A নামের ব্যক্তির কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ।

B- B নামের ব্যক্তি খুব রোমান্টিক। বিশেষ করে এই নামের মানুষজন রোমান্টিক ডিনার খুব উপভোগ করেন। এছাড়া প্রিয়জনের কাছ থেকে উপহার পেতে ভালোবাসেন তারা। তবে প্রিয়জনের প্রতি বেশ আদুরে স্বভাবের হন তারা।

C – C নামের ব্যক্তিরা সম্পর্কের মূল্য দেন বেশি। আন্তরিকতা পছন্দ করেন তারা। কথা ও কাজে খুব সংবেদনশীল হন এই ব্যক্তিরা।

D- D স্বভাবের মানুষ একটু আত্মবিশ্বাসী হয়। তারা যেটা মনে মনে চান সেটা আদায় করেই ছাড়েন। আর স্বভাবগত দিক থেকে তারা একটু কেয়ারিং-ও হয়। উচ্চাকাঙ্খী ও বিশ্বস্ত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তারা আবার পরশ্রীকাতর।

E – এরা অধিক কথা বলতে ভালোবাসেন। তাছাড়া অসততা তাদের বেশ অপছন্দ।

F- F অক্ষর দিয়ে যাদের নাম শুরু, তারা বেশ আদর্শবাদী ও রোমান্টিক প্রকৃতির হয়। তবে অন্যকে দেখাতেও পছন্দ করেন এই নামের ব্যক্তিরা।

G -G নামীরা ভীষণ খুঁতখুঁতে প্রকৃতির হয়ে থাকে। এরা কর্মে খুব পরিশ্রমীও হয়। তাছাড়া লক্ষ্যে পৌঁছতে প্রচণ্ড খাটতে পারেন Gনামের ব্যক্তিরা।

H- H দিয়ে নাম শুরু যাদের, তাদের মধ্যে স্নেহ, মমতা রয়েছে অধিক। মানসিকভাবে খুব দৃঢ় হন তারা। H এর লোকজন হার্ডকোর পারফেকশনিস্ট। এদের সহজে সন্তুষ্ট করা যায় না।

I - এরা বিলাসব্যসন ভালোবাসেন। অন্যের সঙ্গে সম্পর্কের ব্যাপারে খুব একটা বিশ্বস্ত নন তারা। তবে দেখাতে পছন্দ করেন এই লোকজন।

J – J নামের ব্যক্তিরা প্রচণ্ড পরিশ্রমী। কোন নারী বা পুরুষের সঙ্গে লং ডিসটেন্স রিলেশনশিপে অথবা ফ্রেন্ডশিপে এরা খুব স্বচ্ছন্দ্যবোধ করেন। প্রেমে বেশ আস্থা তাদের।

K - K নাম শুরু যাদের, তারা গুটিয়ে যাওয়া ও লাজুক প্রকৃতির হয়ে থাকে। তবে খুব বেশি ছক করে, প্ল্যান করে চলতে ভালোবাসেন এরা। এছাড়া তাদের মধ্যে দয়া-মায়া প্রচুর।

L – এল নামের মানুষ অত্যন্ত রোমান্টিক স্বভাবের হয়। তার কাছে পার্টনার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া পার্টনার বাছাইয়ের ক্ষেত্রে ইন্টেলেকট্যুয়াল পার্টনারই বেশ পছন্দ তার।

M – M ব্যক্তিরা দ্বিমুখী স্বভাবের হয়। বাস্তবে তারা যেমনটা দেখান, ভেতরে কিন্তু তেমনটা নন তারা। তবে সবাই কিন্তু তেমন নাও হতে পারে। তবে এরা নিজের আবেগ প্রকাশ করতে খুব একটা স্বচ্ছন্দ্যবোধ করেন না।

N – এই ব্যক্তিরা আবেগপ্রবণ। দুটি মনের মধ্যে এরা সম্পর্কের গভীরতা বেশি বোঝেন। আর সবকিছুতেই নিজের হাত পাকাতে পছন্দ করেন।

O- O দিয়ে যাদের নাম শুরু। তারা স্বভাবের দিক থেকে হাসিখুশি ও মজাদার হলেও কঠিন কাজ করে ইনকাম করতে পছন্দ করেন। তবে অতিরিক্ত পজেসিভনেস সমস্যার কারণও হতে পারে এদের।

P- P নামের শুরু যার, তারা সামাজিকতা ও স্ট্যাটাস সম্পর্কে খুব সচেতন। আর তার সঙ্গিনী সুন্দরী ও ইন্টেলিজেন্ট হতেই হবে।

Q – সবসময় নিজেকে কাজের মধ্যে রাখতে ভালোবাসেন, অর্থাৎ ভীষণ পরিশ্রমী। অন্যের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে থাকা এই ব্যক্তিদের প্রথম পছন্দ। সাদা ফুল তারা বেশ পছন্দ করেন।

R – R অক্ষর দিয়ে যাদের শুরু, তাদের কাছে শারীরিক আকর্ষণ খুব একটা জরুরি নয়। তবে তারা নিজেকে সবসময় সেরা প্রমাণ করার জোর প্রচেষ্টা চালাতে ভালোবাসেন।

S- S নামের নারী ও পুরুষরা রোমান্টিক হয় বেশি। তারা একাধিক ভালবাসতে পছন্দ করেন। একইসঙ্গে তারা সংবেদনশীলও। কথা দিয়ে কথা রাখতে পছন্দ করেন।

T- T নামের ব্যক্তিরা খুব সংবেদনশীল। তবে ব্যক্তিগত স্পেসে কাউকে ঢুকতে দেন না। টি নামের ব্যক্তিরা নারীর মন জয় করতে ভালোবাসেন। তবে প্রেমে পড়লে নিজের অনুভূতি অন্যকে প্রকাশ করা তার পছন্দ নয়।

U- ইউ ব্যক্তির কাছে প্রেম একটা চ্যালেঞ্জ। তাই প্রেমহীন জীবনের কল্পনাও করতে পারেন না তিনি। আর অন্যকে উপহার দিতে বেশ ভালোবাসেন তারা।

V – ভি নামের ব্যক্তিরা অত্যন্ত স্বাধীনচেতা। তবে সম্পর্কে স্পেস পছন্দ করেন। কখনো কখনো একটু ছটফটে ভাব তাদের মধ্যে কাজ করে।

W- এরা অত্যন্ত অহংকারী। আর প্রেমের ব্যাপারে চট করে মুখ খুলতে চান না তারা। এদের মধ্যে ইগো বড় সমস্যা। এটি থাকতেই হবে। আর প্রেমিক হিসেবে তারা খুব একটা বিশ্বস্ত নন।

X- এক্স নামীরা অল্পেতেই বোর হয়ে যায়। তবে তারা একসঙ্গে দুটো কাজ করতে পারদর্শী।

Y -Y নামের শুরু যাদের, তারা কোনো কিছু মনের মতো না হলে তখনই তা পুনরায় করেন। আর প্রতিযোগিতার দৌড়ে সামিল হওয়া তারা পছন্দ।

Z – অত্যন্ত রোমান্টিক স্বভাবের হয় তারা। বিশাল স্পেস তার। তবে প্রেমিকাকে আগলে রাখাই Z অক্ষরের মানুষের জীবনের মূল লক্ষ্য।

নোয়াখালী সমাচার
নোয়াখালী সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর