ব্রেকিং:
দেশে করোনা বিষয়ে সচেতনতা ও টিকাদানে সহায়তা করবে ফেসবুক সরকারি বিধি-নিষেধ মেনে চলতে বিশিষ্ট নাগরিকদের আহ্বান পর্যায়ক্রমে দেশের সবাইকে টিকার আওতায় নিয়ে আসা হবে: প্রধানমন্ত্রী চাঁদ দেখা গেছে, কাল থেকে রোজা করোনায় আক্রান্ত হলে কতদিন পর টিকা নিতে পারবেন নিত্যপণ্য পরিবহনে সহায়তায় মন্ত্রণালয়ের হটলাইন চালু লকডাউনে বিশেষ প্রয়োজনে ব্যাংক খুলতে নির্দেশ জেলেদের জন্য ৩১ হাজার মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ আগামীকাল থেকে সর্বাত্মক লকডাউনে যাচ্ছে দেশ দেশে একদিনে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যু কমেছে রমজানে বেঁধে দেওয়া হলো ৬ পণ্যের দাম এলপিজি সিলিন্ডারের দাম নির্ধারণ টিকা কিনতে বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে ৪৩৩০ কোটি টাকার ঋণচুক্তি সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী থানাসহ গুরুত্বপূর্ণ সরকারি স্থাপনায় নিরাপত্তা জোরদার লকডাউনে চলাচল করতে ‘মুভমেন্ট পাস’ নেবেন যেভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদনে নতুন রেকর্ড গড়ল দেশ এটিএম বুথ থেকে তোলা যাবে এক লাখ টাকা লকডাউনে খাদ্য সহায়তা পাবে সোয়া কোটি দরিদ্র পরিবার মিরাজের মেডিকেলে ভর্তির দায়িত্ব নিলেন নোয়াখালীর ডিসি
  • মঙ্গলবার   ১৩ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ১ ১৪২৮

  • || ০১ রমজান ১৪৪২

নামাজ শেষে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে হত্যা, চাচা আটক

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৩০ মার্চ ২০২১  

নোয়াখালীতে মসজিদ থেকে ডেকে নিয়ে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে তার চাচাকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার ভোরে সদর উপজেলার কাশিপুরের দত্তবাড়ি এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক মো. ইকবাল হোসেন একই এলাকার আব্দুল আলীর ছেলে।

নিহত মোহাম্মদ আলী মনু ওই এলাকার আকবর আলীর ছেলে। তিনি শহর স্বেচ্ছাসেবকলীগের ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন।

স্থানীয়রা জানায়, সোমবার রাতে দত্তবাড়ি এলাকা থেকে মনুকে ধরে নিয়ে যান চাচা ইকবাল ও তার সহযোগীরা। এরপর বাড়ির পাশে একটি দোকানে আটকে রেখে পিটিয়ে হত্যা করেন। এ সময় বাঁচাতে গিয়ে হামলার শিকার হন মনুর ছোট ভাই আহমেদ আলী। পরে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয় আর মনুকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ভাই আহমেদ আলী জানান, চাচা ইকবাল ও তার সহযোগী শাহাদাত হোসেনসহ কয়েকজন এশার নামাজের পর মনুকে মসজিদ থেকে ডেকে লিটন দাসের লেপ-তোশকের দোকানে নিয়ে যান। এ সময় তারা মনুকে আটকে রেখে লোহার রড ও হেমার দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে জখম করেন। পরে আমরা মনুকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেই। সেখানে নেয়ার কিছুক্ষণ পর তিনি মারা যান।

নিহতের মা শাহিদা বেগম বলেন, ইকবালদের সঙ্গে আমাদের জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। এ ঘটনার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে আমার ছেলে মনুকে মসজিদ থেকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

সুধারাম থানার ওসি মো. শাহেদ উদ্দিন জানান, মরদেহ নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত চাচাকে আটক করা হয়েছে।