ব্রেকিং:
`বেসরকারি স্বাস্থ্য খাত এগিয়ে নিতে নিয়ম সহজিকরণ দাবী ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৪ মহিলাকে কারাদন্ড নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের চূড়ান্ত অনুমোদন মেঘনায় জেলেদের হামলায় ১০ নৌ-পুলিশ আহত বিরল দৃষ্টান্ত, পুলিশের হাতে সন্তানকে তুলে দিলেন মা দেশে একদিনে আক্রান্ত এক হাজারের বেশি, মৃত্যু বেড়েছে ‘নো মাস্ক নো সার্ভিস’ নীতি বাস্তবায়ন শুরু করেছে সরকার নারীদের একাকিত্বকে টার্গেট করেই চলে কামালের ধর্ষণ আর প্রতারণা ৭ বছরের চাচাতো বোনকে ধর্ষণ করল ১৪ বছরের কিশোর! বিশ্বে একদিনে আক্রান্ত ৪ লাখের বেশি, মৃত্যু ৫৫৯৯ সড়কে গাছ ফেলে পুলিশের গাড়িতে ডাকাতি! স্বাস্থ্যবিধি মেনে ১ নভেম্বর থেকে সবার মিলছে ওমরার সুযোগ স্ত্রীর সামনেই মুরগির সঙ্গে বিকৃত যৌনতায় মেতে ওঠেন রেহান দেশে এক গাভি বছরে জন্ম দেবে দু্টি বাছুর নারীদের অংশগ্রহণ আরো বাড়ানোর আহ্বান বাংলাদেশের আসলের মোড়কে নকল পণ্যের ছড়াছড়ি, বিপাকে ক্রেতারা ২০৩০ সালের মধ্যে সড়কে মৃত্যু ৫০ শতাংশ কমানো হবে রায়পুরে সেচ প্রকল্পে জলাবদ্ধতা রোপা আমন নিয়ে শঙ্কা ফেনীতে গণ উপদ্রব ৪ নারীকে ১ মাস করে কারাদন্ড ধর্ষণের নেশা যুবকের, গৃহবধূকে ধর্ষণের পর ছাড়লো না চাচিকেও
  • রোববার   ২৫ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ১১ ১৪২৭

  • || ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

২০৯

ধর্ষণবিরোধী এক ভাইরাল ছবির পেছনে অনেক কাহিনী

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১০ অক্টোবর ২০২০  

দেশে প্রায় প্রতিদিনই ধর্ষণের ঘটনা শোনা যাচ্ছে। কারণ খুঁজতে গিয়ে অনেকে বিতর্কিত এবং আপত্তিকর মন্তব্যও করেন। ধর্ষণের ঘটনা ও এসব আপত্তিকর মন্তব্যের বিরুদ্ধে সরব দেশের বেশিরভাগ মানুষ। ফেসবুকে ঢুঁ মারলেই তা টের পাওয়া যায়।

দেশের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষরা নারী নির্যাতনের প্রতিবাদ জানাতে ‘ব্ল্যাক আউট’ আন্দোলন শুরু করেছেন। ফেসবুকের প্রোফাইল ছবি বদলে দিয়েছেন কালো রঙে। এর বাইরেও ধর্ষণের সাংকেতিক একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে, একটি মেয়েকে মুুখ চেপে ধরা হয়েছে, ক্ষতের চিহ্নও স্পষ্ট যেন নির্যাতনের প্রতিচ্ছবি।

নির্যাতনের প্রতিচ্ছবি বহন করা সেই ছবিটি শেয়ার হয়েছে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। কিন্তু অনেকেই জানেন না এই ছবিটি কে তুলেছেন বা ছবির মডেলকে সেটাও অনেকের অজানা! জানা গেছে, ছবিটি তুলেছেন শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদের শিক্ষার্থী ফারজানা মরিয়ম মীম। আর মডেল হয়েছিলেন তারই ছোটবোন ফারজানা জীম।

 

শেকৃবি ফটোগ্রাফিক সোসাইটির ফেসবুক গ্রুপে ছবিটি প্রথম আপলোড করা হয়। ছবি: সংগৃহীত

শেকৃবি ফটোগ্রাফিক সোসাইটির ফেসবুক গ্রুপে ছবিটি প্রথম আপলোড করা হয়। ছবি: সংগৃহীত

ফারজানা মরিয়ম মীম বলেন, ছবিটি ১৪ মে তোলা হয়েছে। এরপর ২৮ মে শেকৃবি ফটোগ্রাফিক সোসাইটির ফেসবুক গ্রুপে ছবিটি আপলোড করা হয়। দেশে মানুষ ধর্ষণ নিয়ে যতই সরব হতে থাকে, এই ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ততই ভাইরাল হতে শুরু করে।

সম্প্রতি মনীষা নামের একজন ছবিটি স্কেচ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেন। আর দ্রুতই ভাইরাল হয়ে যায় ছবিটি। কিন্তু ঢাকা পড়ে যায় ছবির প্রকৃত শিল্পীর নাম। ছবিটি ধর্ষণবিরোধী বিভিন্ন প্রোগ্রামে পোস্টারিংও হয়েছে।

ইত্যাদি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর