ব্রেকিং:
হাতিয়ায় নদীর পাড়ে মিললো লাশ মৃত ব্যক্তির লাশ রেখে পালালো স্বজনরা, দাফন করলেন ইউপি চেয়ারম্যান পরশুরামের আরও এক পুলিশ সদস্যের মৃত্যু জমির বিরোধ নিয়ে যুবককে কুপিয়ে আহত কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগ নেতাসহ আরও ১৬ জনের করোনা প্রধানমন্ত্রীর অনুদানে পৌনে ৪১ লক্ষ টাকা পাচ্ছে ফেনীর ৫ পৌরসভা দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের নতুন রেকর্ড, মৃত্যু ৩৭ নিজেরা আক্রান্ত হয়েও সেবায় পিছিয়ে নেই চিকিৎসাকর্মীরা করোনা সঙ্কটেও মে মাসে দেড় বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনে আরও কঠোর হবে সরকার সংক্রমণ বিবেচনায় তিনটি জোনে ভাগ হবে দেশের বিভিন্ন এলাকা বাংলাদেশী হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের বিচারের প্রতিশ্রুতি লিবিয়ার চলমান ক্ষুদ্র ও বৃহৎ উন্নয়ন প্রকল্পের মেয়াদ বাড়ছে ১০ হাজার কোটি টাকার জরুরী তহবিল এটিএম বুথ এখন গ্রামেও করোনা-উত্তর অর্থনীতি পুনরুদ্ধার মূল লক্ষ্য গণপরিবহনে উঠার সময় এখন যেসব বিষয় না মানলেই বিপদ! রামগঞ্জে শিশু সন্তান নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও ফেনীতে কাউন্সিলরসহ আক্রান্ত আরো ১৬ কোম্পানীগঞ্জে ৪৯টি মসজিদ পেল সরকারি প্রণোদনা
  • বুধবার   ০৩ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২০ ১৪২৭

  • || ১০ শাওয়াল ১৪৪১

১৫৩

দেশের উন্নয়নে সামগ্রিক পরিকল্পনা প্রয়োজন

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৬ অক্টোবর ২০১৯  

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, জীবন যাপনের মান এবং দেশের উন্নয়নে সামগ্রিক পরিকল্পনা প্রয়োজন। যেন সব সুযোগ-সুবিধা খুব সহজে ভোগ করতে পারে নাগরিকরা।
শনিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘টেকসই নগর ও বসতি গড়তে পরিকল্পনা’ বিষয়ক নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিষয়ক আন্তর্জাতিক কনফারেন্স এবং পরিকল্পনাবিদদের জাতীয় কনভেনশনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। 

পরিকল্পনাবিদদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, উন্নত দেশে ১০০ বছরের মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। আমাদের দেশের পরিকল্পনাবিদরা স্বল্প সময়ের জন্য পরিকল্পনা করে থাকেন। আমি আপনাদের বলবো জাতীয়ভাবে চিন্তা করে হোলিস্টিক প্ল্যান করতে হবে। দীর্ঘমেয়াদী ১০০ বছরের জাতীয় পরিকল্পনা করতে হবে।

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্লানার্স(বি.আই.পি) প্রথম বারের মতো নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনার উপর দুই দিনের এ আন্তর্জাতিক কনফারেন্সের আয়োজন করেছে। সহযোগিতা করছে জাতিসংঘ উন্নয়ন তহবিল (ইউএনডিপ), সেভ দ্য চিলড্রেন ও ব্রাক।

মো. তাজুল ইসলাম বলেন, শুধু রাস্তা-ঘাট, ট্রাফিক সিগনাল, ভূমি ব্যবহার, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা এসব বিষয়ে পরিকল্পনা করলে সুষ্ঠু পরিকল্পনা হবে না। মানুষের জীবন যাপনে যেসব চাহিদা যেমন- শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল, খেলার মাঠ ও পার্ক, রাস্তা-ঘাটসহ সার্বিক বিষয়ে পরিকল্পনা করতে হবে। যেন নাগরিকরা সব সুযোগ-সুবিধা খুব সহজে ভোগ করতে পারে।

পরিকল্পনাবিদদের উদ্দেশ্য তিনি আরো বলেন, পূর্বাচল একটা নতুন সিটি। সেখানে এখনো সেভাবে বসতি গড়ে উঠেনি। ওই এলাকায় এখনই যানজট শুরু হয়েছে। আগে দেশের সামগ্রিক পরিকল্পনা করেন। কোন এলাকায় কি কি স্থাপনা হবে এবং মানুষ কিভাবে সুযোগ সুবিধা ভোগ করবে সেটা নিয়ে চিন্তা করুন।

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্লানার্সের (বিআইপি) সভাপতি অধ্যাপক ড. একেএম আবুল কালামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্থ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এএসএম মাকসুদ কামাল, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. গোলাম রহমান, পরিকল্পনাবিদ ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের অধ্যাপক ড. আকতার মাহমুদ এবং বিআইপির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. আদিল মুহাম্মদ খান।

জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর