ব্রেকিং:
দেশে করোনার টিকা কবে আসবে, জানালেন স্বাস্থ্য সচিব কোনোভাবেই বেপরোয়া গাড়ি চালানো যাবে না: সেতুমন্ত্রী ছিন্নমূল শতাধিক পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অসহায়দের মাঝে আওয়ামীলীগ নেতার কম্বল বিতরণ ব্যাংকার্স ফোরাম লক্ষ্মীপুরের অভিষেক অনুষ্ঠিত ফেনীতে ১০০ সাংবাদিককে প্রশিক্ষণ দিয়েছে প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে অবৈধ গ্যাস সংযোগ তৃণমূলের সাথে যাদের সুসম্পর্ক তাকে মনোনয়ন দেয়া হবে পরশুরামকে আলোকিত করে দিচ্ছেন পৌর মেয়র সাজেল চৌধুরী সোনাগাজী মডেল থানার উন্নয়ন ও সংস্কার কাজের উদ্বোধন করলেন এসপি ভাস্কর্য নির্মাণে বিরোধিতার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল রায়পুরে হাসপাতালে অভিযান, ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা ফেনীতে স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতি চলছে ফেনীতে আ’লীগের সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন শুরু হচ্ছে আজ লক্ষ্মীপুরে এসিড সন্ত্রাসের শিকার ৩ নারী সুবর্ণচরে ভূমিদস্যুদের বিরুদ্ধে ভূমিহীনদের মানববন্ধন নিঝুমদ্বীপে উচ্ছেদ আতঙ্কে ভূমিহীনরা ৫ টাকায় সারাদিন ইন্টারনেট ব্যবহারের পদ্ধতি তৈরি করলেন দুই বাংলাদে উন্নত প্রযুক্তির বডি স্ক্যানার বসছে শাহজালাল বিমানবন্দরে দেশের তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবল স্থাপিত হবে ৬৯৩ কোটি টাকায়
  • বুধবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৮ ১৪২৭

  • || ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

৯৬

দাম্পত্য জীবন সুখী করার গোপন রহস্য

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৩ নভেম্বর ২০২০  

দাম্পত্য জীবনে ঝগড়া-বিবাদ তো থাকবেই! অনেক সময় দু’জনের ভিন্নমতের কারণে সম্পর্কে ভারসাম্য বজায় থাকে না। এজন্য মনোমালিন্য লেগেই থাকে। 

কখনো কখনো লড়াই করারও বিকল্প আছে। অপর ব্যক্তি যা বলছে আপনি যদি সেটা মন দিয়ে শোনেন এবং সম্মত হন তাহলে দেখা যাবে কোনো সমস্যা নেই।

তবে আমরা কেউই কারো কাছে হেরে যেত চাই না। হোক না সে জীবনসঙ্গী! অনেকে বলে ঝগড়া-বিবাদ সম্পর্কের জন্য উপকারী। এটি আপনার সম্পর্ককে শক্তিশালী করে তোলে। 

এই ধারণাগুলো কারো কারো ক্ষেত্রে সত্য হতে পারে তবে অন্যদের সম্পর্ক ধ্বংসের দিকে যায়। ঝগড়া সবসময় মিষ্টি হয় না। যদি না পরে এর সঠিক সমাধান হয়।

দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্কের জন্য আপনাকে সবসময় ক্ষমা করতে হবে। তবে ক্ষমা কি আসলেই আপনাকে সুখ দেয়? গবেষণা বলছে, ক্ষমা আসলেই সুস্থ সম্পর্কের গোপন রহস্য। ক্ষমা দোষী মানুষটাকে নিজেকে শুধরে নেয়ার পথ খুঁজে দেয়।

আপনি বহুবার একই ভুল করবেন আর আপনার সঙ্গী ক্ষমা করে দেবে বিষয়টা এমন নয়। ভুল করে যে আঘাত আপনি তাকে করেছেন তা নিরাময় হতে সময় প্রয়োজন। তারপরেও ক্ষমা করে দেয় আপনার সঙ্গী কারণ দিনশেষে ভালোবাসা জয়ী হয়।

আপনি যদি আপনার সঙ্গীর কথা ভেবে ওই ভুল আর না করেন তা হবে ক্ষমার ক্ষেত্রে ভারসাম্যহীন। আপনার সঙ্গীও ভুল করতে পারে এবং তাই, আপনারও তাকে ক্ষমা করার মানসিকতা থাকা উচিত। তবে ভুলের ক্ষেত্রে ছোট বড় আছে সেই হিসেবে প্রতিক্রিয়াও ভিন্ন ভিন্ন হবে।

একটি ভুল ক্ষমা করতে সময় লাগে। তবে যা অত্যন্ত বেদনাদায়ক হতে পারে তা হলো আপনার সঙ্গী ভুলটি সংশোধনের দিকে মনোযোগ দেয় না। প্রতিবারই যখন সে আপনাকে হতাশ করে কিন্তু আপনি তাকে ক্ষমা করে দেন, কথা বলা শুরু করেন। 

প্রতিযোগিতা বাদ দিয়ে দু’জনের উচিত একটি সুন্দর সমাধানে নিয়ে আসা। আপনি যদি আপনার সঙ্গীর সঙ্গে সন্তোষজনক সিদ্ধান্তে না এসে নিজে জিততে চান তবে সম্পর্ক নষ্ট করার ক্ষেত্রে আপনি একধাপ এগিয়ে আছেন। 

দম্পতি হিসেবে ছোট ভুলগুলো ক্ষমা করা যদি আপনার বন্ধনকে শক্তিশালী করতে পারে, তবে এতে বিশ্বাস করুন। তবে ক্ষমারও একটি ভারসাম্য বজায় রাখতে হবে।

লাইফস্টাইল বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর