ব্রেকিং:
ফেনীতে বিদেশী পিস্তলসহ সন্ত্রাসী গ্রেফতার তৃতীয় বউয়ের হাতে লাঞ্চিত ডাঃ টুপি মিজান লক্ষ্মীপুরে দুধ-ডিম-মাংসের ভ্রাম্যমাণ বিক্রয়কেন্দ্র লক্ষ্মীপুর পুলিশ সুপার দাবা প্রতিযোগিতা দেশে করোনা বিষয়ে সচেতনতা ও টিকাদানে সহায়তা করবে ফেসবুক সরকারি বিধি-নিষেধ মেনে চলতে বিশিষ্ট নাগরিকদের আহ্বান পর্যায়ক্রমে দেশের সবাইকে টিকার আওতায় নিয়ে আসা হবে: প্রধানমন্ত্রী চাঁদ দেখা গেছে, কাল থেকে রোজা করোনায় আক্রান্ত হলে কতদিন পর টিকা নিতে পারবেন নিত্যপণ্য পরিবহনে সহায়তায় মন্ত্রণালয়ের হটলাইন চালু লকডাউনে বিশেষ প্রয়োজনে ব্যাংক খুলতে নির্দেশ জেলেদের জন্য ৩১ হাজার মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ আগামীকাল থেকে সর্বাত্মক লকডাউনে যাচ্ছে দেশ দেশে একদিনে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যু কমেছে রমজানে বেঁধে দেওয়া হলো ৬ পণ্যের দাম এলপিজি সিলিন্ডারের দাম নির্ধারণ টিকা কিনতে বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে ৪৩৩০ কোটি টাকার ঋণচুক্তি সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী থানাসহ গুরুত্বপূর্ণ সরকারি স্থাপনায় নিরাপত্তা জোরদার লকডাউনে চলাচল করতে ‘মুভমেন্ট পাস’ নেবেন যেভাবে
  • মঙ্গলবার   ১৩ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ১ ১৪২৮

  • || ০১ রমজান ১৪৪২

ট্রাক্টর চলাচলে বাধা, ব্যাংক কর্মকর্তার হাত-পা ভেঙে দিল বখাটে

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৯ মার্চ ২০২১  

নোয়াখালীর সেনবাগে মাটির ট্রাক্টর চলাচলে বাধা দেয়ায় ব্যাংক কর্মকর্তা ফয়সাল আহম্মেদের হাত-পা ভেঙে দিয়েছে বখাটে যুবক কামাল উদ্দিন। বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঘটনায় দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পরে আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সেনবাগ থানার ওসি মো. আবদুল বাতেন মৃধা জানান, এ ঘটনায় আহত ফয়সালের পিতা ডা. আবদুর রাজ্জাক বাদী হয়ে বুধবার রাতে সেনবাগ থানায় চারজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় একই এলাকার নাদু মিয়ার ছেলে আবদুল মতিন মেম্বার ও হারুর রশিদের ছেলে চৌধুরীকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।    

এর আগে, বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার ডমুরুয়া ইউনিয়নের হারিনকাটা-বাবুপুরশ্রীপুর সড়কের বাবুপুর শ্রীপুর গ্রামে কালু ডাক্তারের বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে। ফয়সাল ফেনীর দাগনভূইয়া মার্কেন্টাইল ব্যাংকের সহকারী ক্যাশ ইনচার্জ ও স্থানীয় বাবুপুর শ্রীপুর গ্রামের ডা. আবদুর রাজ্জাক প্রকাশ কালু ডাক্তারের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘদিন থেকে হারিনকাটা-বাবুপুরশ্রীপুর সড়ক দিয়ে পার্শ্ববর্তী জিয়া ব্রিক্সের মাটি বহন করা হচ্ছিল।  এতে করে নতুন কার্পেটিং করা রাস্তার বিভিন্ন স্থানে সমস্যা হবে গাড়ির চালককে ট্রাক্টর চলাতে নিষেধ করেন ব্যাংক কর্মকর্তা ফয়সাল। চালক কথা না শোনায় ফয়সাল রাস্তার মধ্যে একটি খুঁটি পুতে রাখার চেষ্টা করে।

খবর পেয়ে পার্শ্ববর্তী বাড়ির আবদুর রবের ছেলে কামাল উদ্দিন এসে মাটি খোঁড়ার যন্ত্র (লোহার খন্তা) দিয়ে এলোপাতাড়ি হামলা ও পিটিয়ে একটি পা ও হাতে কবজি ভেঙে ফেলেন। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে ঢাকায় অর্থোপেডিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনার অভিযুক্ত কামাল হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।