ব্রেকিং:
শনিবার শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে ১০ জনের বাংলাদেশ দল কৃষকের কাছ থেকে ধান কিনতে নীতিমালা হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী আওয়ামী লীগ আগের চেয়ে বেশি ঐক্যবদ্ধ: হানিফ আদালতের নিরাপত্তা নিশ্চিতে ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান রাষ্ট্রপতির রিফাত হত্যাকাণ্ডে মিন্নি জড়িত: তদন্ত কর্মকর্তা চালু হলো এনআইডি যাচাইয়ের গেটওয়ে ‘পরিচয়’ বাংলাদেশে খাদ্য-নিরাপত্তা বেড়েছে লন্ডন যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী ইবোলা সংক্রমণ: ‘বৈশ্বিক জরুরি অবস্থা’ ঘোষণা সর্বোচ্চ আত্মত্যাগের বিনিময়ে দায়িত্ব পালনের আহ্বান পুরান ঢাকায় ভবন ধস: বাবা-ছেলের মৃতদেহ উদ্ধার ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে করণীয় এমপি’র সাঁড়াশি অভিযান: ইভটিজিং এবং স্কুল কলেজ ফাঁকিবাজি চলবে না দেশীয় অস্ত্রসহ তিনজন আটক নোয়াখালীতে সেনাবাহিনী-বিজিবির চেষ্টায় বান্দরবানের সঙ্গে যোগাযোগ স্বাভাবিক কোরবানির ঈদ পর্যন্ত বিদেশি গরু প্রবেশ নিষিদ্ধ আজ এনআইডি যাচাইয়ে ‘পরিচয়’ উদ্বোধন করবেন জয় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটে বাণিজ্যিকভাবে সম্প্রচার চালাবে বিটিভি যেভাবে পাবেন এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল এরশাদের আসন শূন্য ঘোষণা, তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন

বৃহস্পতিবার   ১৮ জুলাই ২০১৯   শ্রাবণ ২ ১৪২৬   ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪০

সর্বশেষ:
পদ্মা সেতু নিয়ে গুজবে গ্রেফতার ১ জন অপপ্রচারই বিএনপির পুঁজি: ওবায়দুল কাদের ‘মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা হবে ১৫ হাজার টাকা’ জেলা প্রশাসক সম্মেলন ১৪ জুলাই বাংলাদেশের আর্থিক অন্তর্ভুক্তির প্রশংসায় রানী ম্যাক্সিমা নতুন দুই মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর শপথ ১৩ জুলাই
৩৮৯

জনগণই আমাদের সবচেয়ে বড় সম্পদ: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১২ জুলাই ২০১৯  

সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কারো কাছে হাত পেতে নয়, ভিক্ষা চেয়ে নয়; আমরা দেশের সম্পদ দিয়ে, দেশের উন্নয়ন করব। আমাদের জনগণই আমাদের সবচেয়ে বড় সম্পদ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে একাদশ জাতীয় সংসদের তৃতীয় অধিবেশনের সমাপনী বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। তৃতীয় অধিবেশনে বাজেট পাসসহ বিভিন্ন দিক তুলে ধরে সংসদ নেতা বলেন, ‘১৯৭৫’র ১৫ আগস্ট স্বজন হারানোর বেদনা নিয়েই আমাকে বেঁচে থাকতে হয়েছে। কারণ সেই দিন আমরা পিতা-মাতা ভাইসহ আত্মীয়-স্বজনকে হারিয়েছি। বাংলাদেশের মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের জন্য দেশের মানুষকে দারিদ্র্যের হাত মুক্তি দেয়ার জন্য, দেশের মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তির জন্যই জাতির পিতা স্বাধীনতা এনে দিয়ে গিয়েছেন। মাত্র সাড়ে তিনবছর তিনি সময় পেয়ে একটা যুদ্ধবিধস্ত দেশ গড়ে তুলেছিলেন। অর্থনৈতিক অগ্রগতির পথে অগ্রযাত্রাও শুরু করেছিলেন কিন্তু সম্পন্ন করতে পারেননি।

সংসদ নেতা বলেন, এরপর অনেক চড়াই-উৎরাই পার হয়ে আওয়ামী লীগ যখন সরকার গঠন করে তখন থেকে দেশের প্রকৃত উন্নয়নের যাত্রা শুরু। এরপর ২০০১ থেকে ২০০৮ আরেকটি কালো অধ্যায় বাঙালির জীবনে আসে। সেটাও আমরা উত্তরণ ঘটিয়ে ২০০৮’র নির্বাচনে জয়ী হয়ে ২০০৯ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত সরকারে আছি। বাংলাদেশ আজকে একটা উন্নয়নের মহীসোপানে যাত্রা শুরু করেছে। আজকের বাংলাদেশ বিশ্বে একটা উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে।

২০১৯-২০২০ অর্থবছরের বাজেটের লক্ষ্যমাত্রা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের দ্রুত প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে হবে। আমরা প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছি ৮ দশমিক ১৩ ভাগ। আমরা যে বাজেট দিলাম এই বাজেটে প্রবৃদ্ধি ৮ দশমিক ২ ভাগে উন্নীত করব সেই লক্ষ্য নিয়েই আমরা কিন্তু আমাদের পরিকল্পনা নিয়েছি এবং এগিয়ে যাচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের সব সময় লক্ষ্য একটাই, আমরা দেশকে উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। এবারের বাজেটের শিরোনাম ছিল সমৃদ্ধ আগামীর পথযাত্রায় বাংলাদেশ, সময় এখন আমাদের, সময় এখন বাংলাদেশের। আন্তর্জাতিক বিশ্বে এটা আজকে প্রমাণিত, সময় এখন বাংলাদেশের। সবচেয়ে বড় কথা আমাদের বাজেটে আমরা ৯৯ভাগই নিজেদের অর্থায়নে করতে পারি। এখন আর অন্যের কাছে আমাদের হাত পাততে হয় না। বৈদেশিক অনুদানের পরিমাণ মাত্র শূন্য দশমিক ৮৮ শতাংশ। আমাদের উন্নয়ন বাজেট আমরা বাস্তবায়ন করি।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, এবারো আমরা প্রায় ৯৪ভাগ বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে সক্ষম হয়েছি। আমাদের দেশকে আমরা এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। যাতে করে দেশের মানুষের কল্যাণ হয়। একটা আর্থসামাজিক উন্নয়নের কথা চিন্তা করে এবং আমাদের দেশকে আমরা যে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী করতে চাই। কারো কাছে হাত পেতে নয়, ভিক্ষা চেয়ে নয় দেশের উন্নয়ন আমরা করব দেশের সম্পদ দিয়ে। আমাদের জনগণ আমাদের সবচেয়ে বড় সম্পদ। আমাদের মাটি উর্বর।

সংসদ নেতা বলেন, জাতির পিতা বলেছেন, যে দেশের মাটি এতো উর্বর এবং আমার যে জনগণ আছে তাই আমার সম্পদ। এই দিয়েই আমরা দেশের উন্নতি করতে পারি, সেটা আমরা আজকে প্রমাণ করেছি।

নোয়াখালী সমাচার
নোয়াখালী সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর