ব্রেকিং:
নোয়াখালীতে বেপরোয়া কিশোর গ্যাং বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ নোয়াখালীতে ফুটবল খেলা নিয়ে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ ‘রোহিঙ্গাদের যারা নিরুৎসাহিত করছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা’ প্রেমিকাসহ আটকা পড়ে ৯৯৯-এ কল দিয়ে উল্টো ফাঁসলেন প্রেমিক মাদকেই মরণ বিএনপির তৃণমূলের, রিহ্যাবে অসংখ্য নেতাকর্মীরা বাবার জায়গা নেই ছেলের পাকা ঘরে ‘মামলা থেকে বাঁচতে’ মাথায় হেলমেটের বদলে ঝুড়ি পাকিস্তানে টেস্ট খেলবে না শ্রীলংকা ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী পাঁচ দিনের রিমান্ডে শুভ জন্মাষ্টমী আজ প্রাথমিকে নিয়োগ হবে ৬১ হাজার শিক্ষক নোয়াখালী জেলা প্রশাসন এর কল সেন্টার ৩৩৩ উদ্বোধন কোম্পানীগঞ্জে ১৪ বছরের সশ্রম দন্ড প্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতার! ক্রিকেট খেলা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১৫ ‘ডেঙ্গু নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে একটি মহল’ শুভ জন্মদিন মোশাররফ করিম অনলাইনে কীভাবে জন্ম নিবন্ধন করাবেন? একাদশ সংসদের চতুর্থ অধিবেশন ৮ সেপ্টেম্বর দুর্নীতি নির্মূলে নিরলসভাবে কাজ করছে কমিশন

শুক্রবার   ২৩ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৮ ১৪২৬   ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

সর্বশেষ:
ঈদে স্বাস্থ্য বিভাগের সবার ছুটি বাতিলের সিদ্ধান্ত আলোচনার মাধ্যমেই রোহিঙ্গা সমাধান চায় বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী বিএনপির ব্যর্থতার দগদগে ঘা রয়েছে: ওবায়দুল কাদের জাল নোট চেনার সহজ উপায় গুজব: নায়িকা শাবনূর ‘মারা’ গেছেন!
৪০৫

জনগণই আমাদের সবচেয়ে বড় সম্পদ: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১২ জুলাই ২০১৯  

সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কারো কাছে হাত পেতে নয়, ভিক্ষা চেয়ে নয়; আমরা দেশের সম্পদ দিয়ে, দেশের উন্নয়ন করব। আমাদের জনগণই আমাদের সবচেয়ে বড় সম্পদ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে একাদশ জাতীয় সংসদের তৃতীয় অধিবেশনের সমাপনী বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। তৃতীয় অধিবেশনে বাজেট পাসসহ বিভিন্ন দিক তুলে ধরে সংসদ নেতা বলেন, ‘১৯৭৫’র ১৫ আগস্ট স্বজন হারানোর বেদনা নিয়েই আমাকে বেঁচে থাকতে হয়েছে। কারণ সেই দিন আমরা পিতা-মাতা ভাইসহ আত্মীয়-স্বজনকে হারিয়েছি। বাংলাদেশের মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের জন্য দেশের মানুষকে দারিদ্র্যের হাত মুক্তি দেয়ার জন্য, দেশের মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তির জন্যই জাতির পিতা স্বাধীনতা এনে দিয়ে গিয়েছেন। মাত্র সাড়ে তিনবছর তিনি সময় পেয়ে একটা যুদ্ধবিধস্ত দেশ গড়ে তুলেছিলেন। অর্থনৈতিক অগ্রগতির পথে অগ্রযাত্রাও শুরু করেছিলেন কিন্তু সম্পন্ন করতে পারেননি।

সংসদ নেতা বলেন, এরপর অনেক চড়াই-উৎরাই পার হয়ে আওয়ামী লীগ যখন সরকার গঠন করে তখন থেকে দেশের প্রকৃত উন্নয়নের যাত্রা শুরু। এরপর ২০০১ থেকে ২০০৮ আরেকটি কালো অধ্যায় বাঙালির জীবনে আসে। সেটাও আমরা উত্তরণ ঘটিয়ে ২০০৮’র নির্বাচনে জয়ী হয়ে ২০০৯ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত সরকারে আছি। বাংলাদেশ আজকে একটা উন্নয়নের মহীসোপানে যাত্রা শুরু করেছে। আজকের বাংলাদেশ বিশ্বে একটা উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে।

২০১৯-২০২০ অর্থবছরের বাজেটের লক্ষ্যমাত্রা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের দ্রুত প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে হবে। আমরা প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছি ৮ দশমিক ১৩ ভাগ। আমরা যে বাজেট দিলাম এই বাজেটে প্রবৃদ্ধি ৮ দশমিক ২ ভাগে উন্নীত করব সেই লক্ষ্য নিয়েই আমরা কিন্তু আমাদের পরিকল্পনা নিয়েছি এবং এগিয়ে যাচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের সব সময় লক্ষ্য একটাই, আমরা দেশকে উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। এবারের বাজেটের শিরোনাম ছিল সমৃদ্ধ আগামীর পথযাত্রায় বাংলাদেশ, সময় এখন আমাদের, সময় এখন বাংলাদেশের। আন্তর্জাতিক বিশ্বে এটা আজকে প্রমাণিত, সময় এখন বাংলাদেশের। সবচেয়ে বড় কথা আমাদের বাজেটে আমরা ৯৯ভাগই নিজেদের অর্থায়নে করতে পারি। এখন আর অন্যের কাছে আমাদের হাত পাততে হয় না। বৈদেশিক অনুদানের পরিমাণ মাত্র শূন্য দশমিক ৮৮ শতাংশ। আমাদের উন্নয়ন বাজেট আমরা বাস্তবায়ন করি।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, এবারো আমরা প্রায় ৯৪ভাগ বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে সক্ষম হয়েছি। আমাদের দেশকে আমরা এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। যাতে করে দেশের মানুষের কল্যাণ হয়। একটা আর্থসামাজিক উন্নয়নের কথা চিন্তা করে এবং আমাদের দেশকে আমরা যে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী করতে চাই। কারো কাছে হাত পেতে নয়, ভিক্ষা চেয়ে নয় দেশের উন্নয়ন আমরা করব দেশের সম্পদ দিয়ে। আমাদের জনগণ আমাদের সবচেয়ে বড় সম্পদ। আমাদের মাটি উর্বর।

সংসদ নেতা বলেন, জাতির পিতা বলেছেন, যে দেশের মাটি এতো উর্বর এবং আমার যে জনগণ আছে তাই আমার সম্পদ। এই দিয়েই আমরা দেশের উন্নতি করতে পারি, সেটা আমরা আজকে প্রমাণ করেছি।

নোয়াখালী সমাচার
নোয়াখালী সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর