ব্রেকিং:
ফুলগাজীতে কৃষি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ লক্ষ্মীপুরে সাবেক ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ ফোরামের মতবিনিময় সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে লক্ষ্মীপুরে মানববন্ধন রামগঞ্জে ৭টি ক্লিনিকে অভিযান করুণানগরে মাস্ক অভিযান! ১২ জনকে জরিমানা।। ফেনীতে আবার বাড়ছে করোনা সংক্রমণ কোম্পানীগঞ্জে কলেজছাত্র অপহরণ চাটখিলকে বাল্যবিবাহ মুক্ত উপজেলা হিসেবে ঘোষণার লক্ষ্যে মানববন্ধন ফেনীতে প্রতি মাসে ১০ জন ধর্ষণের শিকার অজানাকে জানিয়ে দেয় রাবির রহস্যময় জাদুঘর মূর্তি ও ভাস্কর্য এক নয়: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ২৯ জনের মৃত্যু জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী কাজ করে যাচ্ছেন বিনামূল্যে প্যাডসহ সব ধরনের স্যানিটারি পণ্য দেবে স্কটল্যান্ড রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে ওআইসির অব্যাহত সমর্থন চায় বাংলাদেশ শেখ হাসিনার সরকার উন্নয়ন বান্ধব: কাদের অর্থনীতি চাঙ্গা রাখতে নতুন কর্মকৌশল করোনা চিকিৎসাকর্মীদের ভাতা প্রদান শুরু শুরু হচ্ছে যমুনায় পৃৃথক রেলসেতুর নির্মাণ কাজ তৈরি হচ্ছে জাতীয় ডিএনএ ডাটাবেজ
  • সোমবার   ৩০ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৭

  • || ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২

৫৪

কারাদণ্ডের বদলে সংশোধনের সুযোগ পেলেন মাদক মামলার আসামি

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২৯ অক্টোবর ২০২০  

ভবিষ্যতে কখনো মাদক গ্রহণ, পরিবহন ও বিক্রয় না করাসহ আটটি শর্তে মো. হেলাল নামে মাদক মামলার এক আসামিকে কারাদণ্ডের বদলে সংশোধনের সুযোগ দিয়ে রায় ঘোষণা করেছে ফেনীর একটি আদালত।

বুধবার ফেনীর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসাইন এ রায় ঘোষণা করেন। হেলাল ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার মান্দারী গ্রামের নুর আলমের ছেলে।

পুলিশ ও আদালতের একটি সূত্র জানায়, চলতি বছরের ২৩ মার্চ সোনাগাজীর বগাদানা ইউপির পাইকপাড়া গ্রাম থেকে ৫০ গ্রাম গাঁজাসহ হেলালকে আটক করে পুলিশ। ১৩ জুলাই সোনাগাজী থানার এসআই মোখলেছুর রহমান মামলাটি তদন্ত করে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ১৩ অক্টোবর আদালত আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। অভিযোগ গঠনের সময় আসামি অনুতপ্ত হয়ে মাদক সেবনের বিষয়টি স্বীকার করেন। একই সঙ্গে ভবিষ্যতে কখনো মাদক গ্রহণ, পরিবহন ও বিক্রয় করবেন না মর্মে তার জবানবন্দিতে অঙ্গীকার করেন।

পরবর্তীতে আদালত সোনাগাজী প্রবেশন কর্মকর্তাকে আসামির বিষয়ে অনুসন্ধানপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ প্রদান করেন। ২৭ অক্টোবর সোনাগাজী উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা নাছির উদ্দিন বিস্তারিত প্রতিবেদন দাখিল করেন।

আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. জসিম উদ্দিন জানান, প্রবেশন পাওয়া আসামি পেশায় রাজমিস্ত্রি। আসামি তার বৃদ্ধ মা ও বাবার ভরণ-পোষণের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। আসামির বিরুদ্ধে সাজা ঘোষণা হলে তার মা-বাবার ভরণ-পোষণ ও যত্নের সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে। এসব দিক বিবেচনা করে বিচারক আসামিকে ৮ শর্তে এক বছরের জন্য দণ্ড ঘোষণা না করে প্রবেশন প্রদান করেন।

তিনি জানান, প্রবেশনের শর্তগুলোর মধ্যে রয়েছে আসামি কখনো মাদক গ্রহণ, সেবন ও বিক্রয় করবেন না। তিনি মাদক বিরোধী কার্যক্রমে ভূমিকা রাখবেন। সপ্তাহের প্রতি সোমবার প্রবিশন কর্মকর্তার কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে মাদক বিরোধী কার্যক্রমে অংশ নেবেন। মুক্তিযুদ্ধ ও দেশপ্রেমের বিষয়ে মানুষকে উদ্বুদ্ধ করবেন। মা-বাবার দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করবেন।

সারাবাংলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর