ব্রেকিং:
দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ১৫ ‘স্বল্প সংখ্যক’ যাত্রী নিয়ে ৩১ মে থেকে চলবে বাস-ট্রেন-লঞ্চ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফ্লাইট চালুর প্রস্তুতি করোনা ও অন্য রোগীদের আলাদা চিকিৎসা দেয়ার নির্দেশ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন শিল্পপ্রতিষ্ঠানসমূহকে ঢেলে সাজানো হচ্ছে আরও ২ হাজার চিকিৎসক নেওয়ার পরিকল্পনা সংক্রমণ ঝুঁকিমুক্ত বিশেষ চিকিৎসা বুথ তৈরি ছুটি আর বাড়ছে না, ৩১ মে থেকে অফিস শুরু দুর্গম খাসিয়া পুঞ্জিতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন শেখ হাসিনা করোনায় সংক্রমিত পৌরসভার পিয়ন ফকির সুবর্ণচরে সরকারি চাল জব্দ, ডিলার পলাতক, ক্রেতার জরিমানা নোয়াখালীতে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৩ জনের মৃত্যু নোয়াখালীতে ডোবায় মিলল ব্যবসায়ীর লাশ হাতিয়া উপকূলে নতুন প্রজাতি আবিষ্কার করলেন নোবিপ্রবি শিক্ষক ফেনীতে মিলে আগুন! লক্ষাধিক টাকা ক্ষতি শুধু যোদ্ধাই নয়, হাতে ওদের নতুন পৃথিবীও করোনার নমুনা সংগ্রহে ‘ভিটিএম কিট’ তৈরি হলো দেশে ২৪ ঘণ্টায় নতুন কোনো ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়নি করোনা জয় করলেন ১১১৯ পুলিশ সদস্য
  • বৃহস্পতিবার   ২৮ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪২৭

  • || ০৫ শাওয়াল ১৪৪১

১৭৫

করোনা প্রতিরোধে বিসিজি টিকা আসলে কতটা কার্যকর ?

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ৩ এপ্রিল ২০২০  

করোনাভাইরাস সংক্রমণের পর নতুন এক গবেষণায় বলা হচ্ছে, যে দেশগুলোতে টিবির টিকা বাধ্যতামূলক, সেখানে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর হার অনেক কম। চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য বিজ্ঞানবিষয়ক অপ্রকাশিত গবেষণাগুলোর অনলাইন আর্কাইভ মেডআর১৪–এ প্রকাশিত গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে। যদিও সর্বশেষ ওই গবেষণার ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা এখনো শেষ হয়নি।

 

গবেষণাটি নিয়ে ব্লুমবার্গের বৃহস্পতিবারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জাপানে করোনাভাইরাসে সংক্রমণের হার কম হওয়ায় একদল গবেষক বিসিজির টিকার সঙ্গে করোনাভাইরাসের প্রভাব নিয়ে গবেষণা শুরু করেন। গবেষণায় নেতৃত্ব দেন নিউইয়র্ক ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির সহকারী অধ্যাপক গঞ্জালো ওতাজু।

চীনের পর জাপানে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ঘটনা ঘটলেও দেশটি লকডাউন করেনি। শুধু যক্ষ্মা নয়, অন্যান্য সংক্রামক ব্যাধির বিরুদ্ধেও যে বিসিজির টিকা সুরক্ষা দেয়, এ বিষয়টিকে বিবেচনায় নিয়ে গঞ্জালু ওতাজু এবং তাঁর সহকর্মীরা যেসব দেশে সবর্জনীন বিসিজির টিকার ব্যবস্থা রয়েছে, তার তথ্য–উপাত্ত বিশ্লেষণ শুরু করেন। গবেষকেরা করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আর মৃত্যুর সঙ্গে বিসিজির টিকার যোগসূত্র খুঁজে পেয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্র ও ইতালির মতো উচ্চ আয়ের দেশগুলোতে শুধু বেশি ঝুঁকিতে থাকা লোকজনকে বিসিজির টিকা দেওয়া হয়। আর জার্মানি, স্পেন, ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্যের মতো দেশগুলোতে কয়েক যুগ আগেই বিসিজির টিকার প্রয়োগ বন্ধ হয়ে গেছে। চীনে ১৯৭৬ সালের আগে এর ব্যবহার সেভাবে মেনে চলা হতো না। আর জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়া সর্বজনীন বিসিজির টিকার ব্যবস্থা মেনে চলে।

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, অস্ট্রেলিয়া, নেদারল্যান্ডস ও ডেনমার্ক—এই ছয় দেশে ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা চলছে। স্বাস্থ্যকর্মী ও বয়স্কদের বিসিজির টিকা দিয়ে পরীক্ষা করে দেখা হবে, করোনাভাইরাস তাদের কতটা সুরক্ষা দিচ্ছে।

করোনাভাইরাস বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর