ব্রেকিং:
দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ১৫ ‘স্বল্প সংখ্যক’ যাত্রী নিয়ে ৩১ মে থেকে চলবে বাস-ট্রেন-লঞ্চ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফ্লাইট চালুর প্রস্তুতি করোনা ও অন্য রোগীদের আলাদা চিকিৎসা দেয়ার নির্দেশ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন শিল্পপ্রতিষ্ঠানসমূহকে ঢেলে সাজানো হচ্ছে আরও ২ হাজার চিকিৎসক নেওয়ার পরিকল্পনা সংক্রমণ ঝুঁকিমুক্ত বিশেষ চিকিৎসা বুথ তৈরি ছুটি আর বাড়ছে না, ৩১ মে থেকে অফিস শুরু দুর্গম খাসিয়া পুঞ্জিতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন শেখ হাসিনা করোনায় সংক্রমিত পৌরসভার পিয়ন ফকির সুবর্ণচরে সরকারি চাল জব্দ, ডিলার পলাতক, ক্রেতার জরিমানা নোয়াখালীতে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৩ জনের মৃত্যু নোয়াখালীতে ডোবায় মিলল ব্যবসায়ীর লাশ হাতিয়া উপকূলে নতুন প্রজাতি আবিষ্কার করলেন নোবিপ্রবি শিক্ষক ফেনীতে মিলে আগুন! লক্ষাধিক টাকা ক্ষতি শুধু যোদ্ধাই নয়, হাতে ওদের নতুন পৃথিবীও করোনার নমুনা সংগ্রহে ‘ভিটিএম কিট’ তৈরি হলো দেশে ২৪ ঘণ্টায় নতুন কোনো ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়নি করোনা জয় করলেন ১১১৯ পুলিশ সদস্য
  • বৃহস্পতিবার   ২৮ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪২৭

  • || ০৫ শাওয়াল ১৪৪১

২৫১

করোনা নিয়ে গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত বিএনপি চক্র!

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৬ এপ্রিল ২০২০  

 করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধ ও জনগণের জান-মালের নিরাপত্তার সরকার দিনরাত পরিশ্রম করছে। করোনার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষদের খাদ্য ও আক্রান্তদের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করে প্রশংসিত হচ্ছে সরকার। করোনা সংকটে জনগণের পাশে সরকার থাকলেও দেখা নেই বিএনপির। বরং করোনা নিয়ে নানাবিধ ষড়যন্ত্র ও গুজব ছড়িয়ে সামাজিক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে অপতৎপরতা শুরু করেছে বিএনপি চক্র।

জানা গেছে, করোনা সংকটে বিএনপির নেতা-কর্মীরা করোনা নিয়ে ছড়াচ্ছেন নানা গুজব, করছেন মিথ্যাচার। বিশেষ করে টাঙ্গাইলে একজন ভ্যান চালকের অসুস্থতা নিয়ে মিথ্যাচার, রাস্তায় নেশা করে পড়ে থাকা মাদকসেবীদের ছবি ব্যবহার করে করোনা নিয়ে চতুরতার সাথে মিথ্যাচার করছে বিএনপি-জামায়াত চক্র। পাশাপাশি ত্রাণ সংকটের গুজব ছড়িয়ে গরিব ও দুস্থ মানুষদের উসকানি দিয়ে রাস্তায় নামিয়ে বিক্ষোভ করাচ্ছে দেশবিরোধী চক্রগুলো। আবার দেশব্যাপী বিএনপিপন্থী চেয়ারম্যান, মেম্বাররা মেতেছেন সরকারি ত্রাণ চুরিতে। এছাড়া দেশ ও দেশের বাইরে থেকে বিএনপি-জামায়াতের পেইড এজেন্টরা করোনা নিয়ে নানা গুজব ছড়িয়ে জনমনে আতঙ্ক ও ভয় সৃষ্টির অপচেষ্টা করছেন। মোটা কথায় করোনা সংকটে জনগণের পাশে না দাঁড়িয়ে বরং করোনাকে ইস্যু বানিয়ে সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে গভীর ষড়যন্ত্রে মেতেছে বিএনপি-জামায়াত চক্র।

বিভিন্ন তথ্যসূত্র বলছে, করোনা সংকটকে রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে বিএনপি। করোনায় ইস্যুতে সরকারকে জনগণের কাছে দোষী সাব্যস্ত করতে একের পর এক ষড়যন্ত্র ও মিথ্যাচার করছে বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মী ও তাদের নিয়ন্ত্রিত গুজব সেলগুলো। বিশেষ করে করোনায় মৃত্যু নিয়ে মিথ্যাচার, চিকিৎসক ও চিকিৎসা সামগ্রীর অভাব, খাদ্য সামগ্রীর সংকট, ত্রাণ বিতরণের নামে অনিয়ম ইত্যাদি নিয়ে বানিয়ে বানিয়ে মিথ্যাচার করছে বিএনপি চক্র। শুধু তাই নয় করোনা সংকটে গার্মেন্টস শ্রমিকদের উসকানি দিয়ে তাদেরকে রাস্তায় নামিয়ে লকডাউন ভাঙ্গিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে। পাশাপাশি দেশব্যাপী বিএনপি-জামায়াতের উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান-মেম্বাররা মেতেছেন ত্রাণ লুটপাটে। ত্রাণ লুটপাট করে তারা দোষ চাপাচ্ছেন সরকারি দলের নেতা-কর্মীদের ঘাড়ে। সরকারি ত্রাণ চুরির নামে নানা গুজব ছড়ানো হচ্ছে। বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা এবং ওএমএসের চাল নিয়ে কিছুটা অনিয়ম হওয়ায় সেটিকে ফুলিয়ে-ফাঁপিয়ে সরকারি ত্রাণ চুরির নামে গল্প ফাঁদছে বিএনপি-জামায়াতের অনুগত কিছু ব্যক্তি ও বেনামি কিছু মিডিয়া। এছাড়া সবচেয়ে দুঃখজনক বিষয় হলো, ত্রাণ নিতে আসা অসহায় মানুষদের তারা অপমান-অপদস্থ ও ক্ষেত্রে বিশেষে নির্যাতনও করছেন। সবমিলিয়ে করোনা নিয়ে সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে পরিকল্পিত সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ছেন বিএনপি-জামায়াতের নেতা-কর্মীরা। দেশ ও জনগণের সংকট নিয়ে ঘৃণ্য রাজনীতি করছে দলটি।

এদিকে নাটোরে দলীয় কোন্দলের জেরে মারামারির ঘটনায় সরকার দলীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে জড়িয়ে ত্রাণ নয়-ছয়ের ঘটনা নিয়ে মনগড়া তথ্য প্রচার করছে বিএনপি-জামায়াত। এছাড়া যশোরে দুঃস্থ মানুষদের সহায়তা করতে গিয়ে গুজবের শিকার হয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে আটক হন রাকিব ও তার বন্ধু। পরবর্তীতে কোন দোষ না পাওয়ায় তাদের ছেড়ে দেয়া হয়। গুজবের কারণে ভালো কাজ করতে গিয়েও বাধার সম্মুখীন হতে হচ্ছে অনেকে।

অপরদিকে ত্রাণ বিতরণের নামে দেশের কিছু জায়গায় বিএনপি নেতাদের হামলা ও ধর্ষণেরও অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। কিন্তু সত্যি মিথ্যা যাচাই না করে ঢালাওভাবে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের জড়িয়ে মিথ্যাচার করা হচ্ছে। সরকারবিরোধী মনোভাব গড়ে তুলতে পরিকল্পিতভাবে এসব গুজব ছড়াচ্ছে কিছু মহল।

এই করোনা সংকটে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হচ্ছে গুজবের কারণে। দেশ ও বিদেশে অবস্থানকারী বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বিএনপি আমলের সাবেক দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা শামসুল আলম, একেএম ওয়াহেদুজ্জামান, তাসনীম খলিল, ড. আসিফ নজরুল, ডালিয়া লাকুরিয়ার মতো বিএনপি-জামায়াতের অনেক পেইড এজেন্টরা করোনা নিয়ে গুজব ছড়াচ্ছে এবং জনগণকে বিভ্রান্ত করছে। করোনা পরিস্থিতি ঘোলা করে রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে সঙ্ঘবদ্ধভাবে ষড়যন্ত্র করছে কিছু দেশ-বিদেশি চক্র। করোনা ইস্যুতে রাজনৈতিক সন্ত্রাস সৃষ্টির গভীর পায়তারায় মেতেছে বিএনপি চক্র। তবে জনগণ সচেতন থাকলে তাদের এসব ষড়যন্ত্র ভেস্তে যাবে বলে মনে করছেন বিশিষ্টজনরা।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর