ব্রেকিং:
দেশব্যাপী তালগাছ রোপণ অভিযান শুরু করেছে আওয়ামী লীগ আরেকটি প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রাথমিকে শূন্য পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া দ্রুত করার সুপারিশ ঢাকা বাইপাস সড়কের চার লেন প্রকল্পের কাজ শুরু পার্বত্য জেলার ১৪২ প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের সুপারিশ এলডিসি থেকে টেকসই উত্তরণে নতুন প্ল্যাটফর্ম আওয়ামী লীগ কেবল রাজনৈতিক দল নয়, জাতির নিউক্লিয়াসও: জয় আওয়ামী লীগ হীরার টুকরো, ভাঙলে বেশি জ্বলজ্বল করে : প্রধানমন্ত্রী খালের পানিতে নেমে ডুবে গেল দুই শিশু ৩০ টাকায় মেলে ভাত মাছ সবজি ডিম গাছে গাছে পাখির নিরাপদ আশ্রয় করে দিচ্ছেন যুবকরা দুই আঙুলে নাক টিপে পথ চলতে হয় এখানে চাচার ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন কলেজছাত্রী এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের ১৬ লাখ টাকা লুটের নেপথ্যে ‘ছিনতাই’ প্রতিবন্ধীদের চলাচলের রাস্তা কেটে ফেলার অভিযোগ লুঙ্গি ও গামছা পরে সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে গ্রেফতার করল এএসআই টিকা উৎপাদনে আন্তর্জাতিক সহায়তা চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিশ্বে মৃত্যু ছাড়াল ৩৯ লাখ, আক্রান্ত ১৮ কোটি আন্তর্জাতিক বাজারে ২ বছরের মধ্যে তেলের দাম সর্বোচ্চ করোনার অতি উচ্চ ঝুঁকিতে দেশের ৪০ জেলা
  • বৃহস্পতিবার   ২৪ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ১২ ১৪২৮

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪২

কমলনগরে খাল দখল করে ভবন নির্মাণ করার অভিযোগ

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১০ জুন ২০২১  

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে খাল দখল করে ভবন নির্মাণ করার অভিযোগ উঠেছে উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে। উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রোকসানা আক্তার রুক্সি চরলরেন্স বাজারের পাশে খাটাখালী খাল দখল করে এ ভবন নির্মাণ করছেন।

এ ঘটনায় দখলের অভিযোগ এনে ওই এলাকার মো. বাহার নামে এক ব্যক্তি রোকসানা আক্তার ও তার স্বামী মো. গিয়াস উদ্দিনের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ দিয়েছেন। এছাড়াও খালের পাড় থেকে ৩ লক্ষাধিক টাকা মূল্যের ৫টি কড়ই গাছ বিক্রি করেছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দিতে উপজেলা বন কর্মকর্তা মো. আব্দুল কাদেরকে নির্দেশ দেন।

জানা যায়, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের স্বামী মো. গিয়াস উদ্দিন উপজেলার চরলরেন্স বাজারের পূর্বপাশে একটি টিনসেড বাসা নির্মাণ করে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছেন। সম্প্রতি তিনি তার বাসার পাশে খাটাখালী খাল দখল করে ৫তলা ফাউন্ডেশনের একটি ভবন নির্মাণ করছেন। ভবন নির্মাণ করতে খালের পাশে তিন লক্ষাধিক টাকা মূল্যের ৫টি কড়ই গাছ বিক্রি করে দিয়েছেন।

এভাবে উপজেলার জারিরদোনা খাল, নাকশিয়ার খাল, এমপি’র খাল, তুলাতলী খালসহ প্রায়ই খালে দখলের মহোৎসব চলছে। দখলদাররা প্রভাবশালী হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে সরাসরি কথা বলতে কেউ সাহস পাচ্ছে না। খালগুলো দখল হয়ে যাওয়া বর্ষা মৌসুমে পানি নিষ্কাশনের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা না থাকায় বাড়ছে জলাবদ্ধতা। জলবদ্ধতার কারণে কৃষিনির্ভর এই এলাকায় সয়াবিন মরিচ, বাদাম, আউশ, আমনসহ ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। ফলে কৃষক প্রতিদিন ধার দেনা করে সহায়-সম্বল হারাচ্ছে। আর এক শ্রেণির আসাধুরা আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ হচ্ছে। যাদের এ বিষয়ে দেখভাল করার কথা, তাদের উদাসীনতায় দখলের এ মহোৎসব চলছে বলে অনেকের অভিযোগ।

এ বিষয়ে মহিলা ভাইস চেয়াম্যানের স্বামী আওয়ামী লীগ নেতা মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, বাসার টয়লেট নির্মাণের জন্য খালের সামান্য কিছু অংশ তিনি দখল করছেন। এদিকে, কমলনগর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রোকসানা আক্তার রুক্সি জানান, আমি আমার নিজের জায়গায় ঘর করছি।

একটি পক্ষ আমার সঙ্গে ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে হেরে গিয়ে আমার বিরুদ্ধে ইউএনও অফিসে খাল দখলের অভিযোগ দিয়েছে। উপজেলা বন কর্মকর্তা মো. আব্দুল কাদের জানান, খাল দখল ও সরকারি গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাকে নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি সরজমিন পরিদর্শনে গিয়ে খালে গাছের অনেকগুলো গুঁড়ি পড়ে থাকতে দেখেছেন। কোন জায়গা থেকে গাছ কেটে নেয়া হয়েছে এর নির্দেশনা তিনি পাননি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান জানান, অভিযোগ পেয়ে তদন্তের জন্য উপজেলা বন কর্মকর্তাকে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। তদন্ত রিপোর্টের পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।