ব্রেকিং:
সবজির পাশাপাশি আলু-পেঁয়াজেও মিলছে স্বস্তি হাম-রুবেলার টিকাদানে অংশ না নিলে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা ক্রিকেটে ৯৯ দেশকে পেছনে ফেলল বাংলাদেশ দেশে একদিনে মৃত্যু ২৪, আক্রান্ত ২ হাজারের বেশি ভাসানচরে পৌঁছাল ১৬৪২ রোহিঙ্গা চক্রান্ত রুখতে কঠোর অবস্থান গেজেটভুক্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা: যাচাই হবে ৫৫ হাজার সনদ করোনার অজুহাতে অফিসে অনুপস্থিত থাকা যাবে না ১০ জেলায় করোনার অ্যান্টিজেন পরীক্ষা বগুড়ায় রেকর্ড পরিমাণ আলু উৎপাদনের সম্ভাবনা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে বদলাবে চট্টগ্রাম মৌলবাদী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে একাট্টা দেশ অনলাইনে জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন পাকিস্তানের ১৯৭১ সালের নৃশংসতা অমার্জনীয় : প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বিশ্বে একদিনে আক্রান্ত ৬ লাখ ৭৯ হাজার আট জাহাজে চড়ে ভাসানচরের পথে রোহিঙ্গারা কঠোর নির্দেশনার আওতায় আসছেন প্রাথমিকের ২৫০ শিক্ষক দুর্ঘটনা এড়াতে স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতি চালু করছে রেলওয়ে যেকোনো হুমকি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ সেনাপ্রধানের
  • শুক্রবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৭

  • || ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২

১২৫

কপিরাইট ইস্যুতে চঞ্চল-শাওনের ‘সর্বত মঙ্গল রাধে’ সরিয়ে নিলো ইউটিউব

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২২ অক্টোবর ২০২০  

জনপ্রিয় লোকজ গান ‘সর্বত মঙ্গল রাধে’। গানটি মুক্তির পরই নেট দুনিয়ায় তুমুল ঝড় তুলেছিল। সম্প্রতি জনপ্রিয় লোকজ এই গানটিতে নতুন করে কণ্ঠ দিয়েছিলেন মেহের আফরোজ শাওন ও চঞ্চল চৌধুরী।

তবে গানটি গেয়ে কপিরাইট ইস্যুতে ফেঁসে গেছেন চঞ্চল ও শাওন। তাইতো তাদের গাওয়া ‘সর্বত মঙ্গল রাধে’ গানটি সরিয়ে নিয়েছে ইউটিউব।

আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড বাংলাদেশের মাটি ও মানুষের গান নিয়ে আয়োজন করেছে ‘আমাদের গান’ নামে অনুষ্ঠানের। এই অনুষ্ঠানের তৃতীয় আসরে গানটিতে কণ্ঠ দেন চঞ্চল-শাওন। নতুন করে গানটির সংগীতায়োজন করেন পার্থ বড়ুয়া।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) গানটি প্রকাশ্যে আসে, যা অল্প সময়ের মধ্যে নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। এ জুটির গায়কি দর্শক-মহলে দারুণ প্রশংসা কুড়ায়।

এদিকে ব্যান্ড সরলপুর দাবি করেছে গানটি তাদের। তাদের কাছে কপিরাইটের সার্টিফিকেটও রয়েছে। কিন্তু চঞ্চল-শাওনের কণ্ঠে গানটি পরিবেশনের সময় সংগৃহীত গান হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। এ ছাড়া অনুমতি নেয়া হয়নি এই ব্যান্ডের। এরপর ব্যান্ডটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও প্রধান গিস্টারিস্ট তরিকুল ইসলাম তপনের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ চঞ্চল-শাওনের গাওয়া গানটি সরিয়ে নিয়েছে।

অন্যদিকে সরলপুর ব্যান্ডের লিড ভোকাল মার্জিয়া তুরিন ও প্রধান গিটারিস্ট তরিকুল ইসলাম তপন ফেসবুকে একটি ভিডিও বার্তা দিয়েছেন। তাতে আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডকে সব মাধ্যম থেকে গানটি সরিয়ে নেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন। অন্যথায় আইনি পদক্ষেপ নেয়ার কথাও জানান তারা।

২০১৮ সালে সংগীতশিল্পী সুমি মির্জা এ গানটি গেয়েছিলেন। কিন্তু ক্রেডিট লাইনে গানটি সংগৃহীত উল্লেখ থাকায় একই অভিযোগ তুলেছিল সরলপুর ব্যান্ড।

বিনোদন বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর