ব্রেকিং:
দেশব্যাপী তালগাছ রোপণ অভিযান শুরু করেছে আওয়ামী লীগ আরেকটি প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রাথমিকে শূন্য পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া দ্রুত করার সুপারিশ ঢাকা বাইপাস সড়কের চার লেন প্রকল্পের কাজ শুরু পার্বত্য জেলার ১৪২ প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের সুপারিশ এলডিসি থেকে টেকসই উত্তরণে নতুন প্ল্যাটফর্ম আওয়ামী লীগ কেবল রাজনৈতিক দল নয়, জাতির নিউক্লিয়াসও: জয় আওয়ামী লীগ হীরার টুকরো, ভাঙলে বেশি জ্বলজ্বল করে : প্রধানমন্ত্রী খালের পানিতে নেমে ডুবে গেল দুই শিশু ৩০ টাকায় মেলে ভাত মাছ সবজি ডিম গাছে গাছে পাখির নিরাপদ আশ্রয় করে দিচ্ছেন যুবকরা দুই আঙুলে নাক টিপে পথ চলতে হয় এখানে চাচার ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন কলেজছাত্রী এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের ১৬ লাখ টাকা লুটের নেপথ্যে ‘ছিনতাই’ প্রতিবন্ধীদের চলাচলের রাস্তা কেটে ফেলার অভিযোগ লুঙ্গি ও গামছা পরে সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে গ্রেফতার করল এএসআই টিকা উৎপাদনে আন্তর্জাতিক সহায়তা চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিশ্বে মৃত্যু ছাড়াল ৩৯ লাখ, আক্রান্ত ১৮ কোটি আন্তর্জাতিক বাজারে ২ বছরের মধ্যে তেলের দাম সর্বোচ্চ করোনার অতি উচ্চ ঝুঁকিতে দেশের ৪০ জেলা
  • বৃহস্পতিবার   ২৪ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ১২ ১৪২৮

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪২

কনস্টেবলকে সততার পুরস্কার দিলেন এসপি

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১১ মে ২০২১  

নোয়াখালীর মাইজদীতে সড়কে কুড়িয়ে পাওয়া ১৪ হাজার টাকা মালিককে ফেরত দেয়ায় ট্রাফিক পুলিশের কনস্টেবল ওয়ালি উল্যাহকে পুরস্কৃত করেছে জেলা পুলিশ সুপার।

মঙ্গলবার সকাল ১১টায় পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে জেলা ট্রাফিক কনস্টেবল ওয়ালি উল্যার হাতে পুরস্কার হিসেবে পাঁচ হাজার টাকা তুলে দেন পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দীপক জ্যোতি খীসা, নোয়াখালী ট্রাফিক ইন্সপেক্টর শাহিনুর রহমান প্রমুখ।

এর আগে, গতকাল সোমবার (১০ মে) দুপুর পৌনে ২টার দিকে নোয়াখালীর মাইজদী শহরের পৌর কাঁচাবাজারের প্রধান সড়কে কুড়িয়ে পাওয়া ১৪ হাজার টাকা নোয়াখালী ট্রাফিক ইন্সপেক্টর শাহিনুর রহমানের উপস্থিতিতে প্রকৃত মালিকের কাছে টাকা ও এটিএম কার্ডসহ গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র ফেরত দেন কনস্টেবল ওয়ালি উল্যাহ।

উল্লেখ্য, গতকাল সোমবার সকালে মাইজদী শহরের পৌর কাঁচাবাজারে বাজার করতে গিয়ে মানিব্যাগ হারিয়ে পেলেন ব্যবসায়ী মো. ফারুক হোসেন। পরে অনেক খোঁজাখুঁজি করে তিনি মানিব্যাগ না পেয়ে চলে যান। পৌর বাজারের প্রধান সড়কে কর্তব্যরত অবস্থায় টাকাসহ একটি মানিব্যাগ পেয়ে ট্রাফিক ইন্সপেক্টর শাহিনুর রহমানকে অবগত করেন কনস্টেবল ওয়ালি উল্যাহ। পরে মানিব্যাগে থাকা কাগজ দেখে মালিকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। খবর পেয়ে জেলা ট্রাফিক পুলিশ অফিস থেকে টাকার মালিক মো. ফারুক হোসেন টাকা ও গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্রসহ মানিব্যাগটি নিয়ে যান।

জেলা পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন জানান, কনস্টেবল ওয়ালি উল্যাহ সততার পরিচয় দেয়ায় জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে তাকে পুরস্কৃত করা হয়েছে। এর আগেও সততার দৃষ্টান্ত রাখায় অনেক পুলিশ কর্মকর্তাকে পুরস্কৃত করা হয়েছে।