ব্রেকিং:
অতিমাত্রায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারের মারাত্মক ৯ ক্ষতি একাদশে ভর্তির আবেদন শুরু জামিন পেলেন শিপ্রা বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকীতে ফেনীতে ৩৬ নারী পেল সেলাই মেশিন ছিলেন যুবদল নেতা এখন হলেন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক রামগঞ্জের বঙ্গমাতার জন্মদিন উপলক্ষে সেলাই মেশিন বিতরন নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে খালে মিলল নারীর লাশ! ফেনীতে ইয়াবা ও দাগনভূঁঞায় ফেনসিডিলসহ আটক-২ বিয়েতে রাজি না হওয়ায় বোনকে হত্যা করলেন ভাই চাকমা: আদিবাসী নয় বহিরাগত আদিবাসী নিয়ে ফের বিভ্রান্তি সৃষ্টির চেষ্টা আদিবাসী প্রসংগে কিছু কথা আদিবাসী ইস্যু : দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রের নীল নকশা প্রসঙ্গ : বিশ্ব আদিবাসী দিবস বাংলাদেশে ওরা আদিবাসী নয় : ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী বাংলাদেশের উপজাতীয়রা আদিবাসী নয় কেন? বাংলাদেশ নাগরিকের রাষ্ট্র, কোন আদিবাসীর নয় সন্তু লারমা ও রাজা দেবাশীষ বলেছিলেন বাংলাদেশে কোন আদিবাসী নেই বাংলাদেশে আদিবাসী নিয়ে বাড়াবাড়ি ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতি পার্বত্য চট্টগ্রামকে আলাদা করতেই পাহাড়ীদের আদিবাসী দাবি
  • রোববার   ০৯ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৫ ১৪২৭

  • || ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

১৮৬

উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট ও পূজা হবে: ইসি সচিব

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৫ জানুয়ারি ২০২০  

নির্বাচন কমিশনের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর বলেছেন, ৩০ জানুয়ারি ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ ও পূজা হবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের যেসব কক্ষে পূজা হবে সেগুলো বাদ দিয়ে অন্য কক্ষগুলোতে নির্বাচনের আয়োজন করা হবে।
মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি। 


 
ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে হিন্দু সম্প্রদায় দাবি করে আসছিল-৩০ জানুয়ারি ভোটের দিন পরিবর্তন করার জন্য। বিষয়টি নিয়ে আদালতে রিটও করা হয়। মঙ্গলবার হাইকোর্ট রিট খারিজ করে রায় দিয়েছেন, ৩০ জানুয়ারিই দুই সিটিতে ভোট হবে। 

ইসির জ্যেষ্ঠ সচিব বলেন, এসএসসি পরীক্ষা, পূজসহ নানা দিক হিসাব করেই ৩০ জানুয়ারি ভোটের দিন ঠিক করা হয়েছে। তাছাড়া সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পূজা হয় না। যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হবে, সেখানে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ পূজা করবেন। তাদের জন্য আলাদা জায়গা থাকবে। পূজার জায়গাগুলোকে ছেড়ে দিয়েই বাকি কক্ষগুলোতে ভোট হবে। পূজার জায়গায় পূজা চলবে, নির্বাচনের জায়গায় নির্বাচন চলবে।’

পূজা দেখতে সাধারণ মানুষ যাবেন। এতে কেন্দ্রের পরিবেশ নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে কি না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘কেন্দ্রে ভোটাররা অবাধে ভোট দিতে পারবেন। আর পূজা যেখানে হবে সেটা তো আলাদা করাই থাকবে। সেখানে মানুষ যেতে পারবে।’

ইসির সঙ্গে বৈঠক শেষে সোমবার হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ বলেছে, সিটি নির্বাচনের দিন পরিবর্তন না করার কারণে কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে তার দায়িত্ব সংখ্যালঘু সম্প্রদায় নেবে না।


 
এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইসির এই জ্যেষ্ঠ সচিব বলেন, ‘আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি হবে- কেন তারা এ ধরনের কথা বলেছেন, আমাদের তা বোধগম্য হয়নি। অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে না। আদালতের রায় সবাই মাথা পেতে নেবেন বলেই আমরা মনে করি।’

আলমগীর বলেন, ‘আদালত উভয় পক্ষের কথা শুনেছেন। তারাও বিবেচনা করে দেখেছেন, ৩০ জানুয়ারি সর্বোত্তম দিন। এ জন্য তারা মামলাটি খারিজ করে দিয়েছেন। তারা বলেছেন, ৩০ জানুয়ারি নির্বাচন করতে কমিশনের কোনো বাধা নেই। আমরা ৩০ জানুয়ারিকে সামনে রেখেই কাজ করে যাচ্ছি। তারা আপিল করতে চাইলে সেটা করতে পারেন।’