ব্রেকিং:
দোকান খালে হেলে পড়েছে চাটখিলে সৌদি কারাগারে বন্দি শিশুসন্তানসহ নোয়াখালীর মেয়ে জেসমিন কোম্পানীগঞ্জে কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতির ওপর হামলা পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় শিশু সন্তানসহ গৃহবধূকে হত্যা নোয়াখালীতে একদিনে রেকর্ড আক্রান্ত ফেনীতে বজ্রপাতে যুবকের মৃত্যু বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবাষির্কী উপলক্ষে জাতিসংঘের স্মারক ডাকটিকিট ‘সেনাবাহিনী দোকান ঘর তুলে না দিলে পথে বসতে হতো’ দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১৭৬৪, মৃত্যু ২৮ উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে বিপর্যয় ঠেকানোর উদ্যোগ বাজেটে এবারও কালো টাকা সাদা করার সুযোগ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতে বাংলাদেশকে সহায়তা দিতে আগ্রহী মিশর বাংলাদেশকে আরো করোনা চিকিৎসা সরঞ্জাম দিল যুক্তরাষ্ট্র প্রতি তিনজনে ১ জন পুলিশ সুস্থ হচ্ছেন হাটবাজার এলাকায় হবে কংক্রিটের সড়ক হাইকোর্টে স্থায়ী নিয়োগ পেলেন ১৮ বিচারক সুন্দরবন থেকে ৬ কিশোরকে উদ্ধারে পুলিশের শ্বাসরুদ্ধকর অভিযান করোনা রোধে বাংলাদেশের সঙ্গে ৬ দেশের একাত্মতা বাংলাদেশের পাশে আছে যুক্তরাজ্য প্রধানমন্ত্রীকে জাতিসংঘ মহাসচিবের শুভেচ্ছা
  • রোববার   ৩১ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪২৭

  • || ০৭ শাওয়াল ১৪৪১

৩৬০

ঈদের আগে ৯ দিনে সর্বোচ্চ রেমিটেন্সের রেকর্ড

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১৬ আগস্ট ২০১৯  

ঈদুল আজহার আগে প্রবাসীরা বিপুল পরিমাণ অর্থ দেশে পাঠিয়েছেন। এর ফলে চলতি আগস্ট মাসের নয় দিনেই ৭২ কোটি ডলারের রেকর্ড পরিমাণ রেমিটেন্স দেশে এসেছে। 
ব্যাংকারদের মতে, চলতি বাজেটে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্সে দুই শতাংশ হারে প্রণোদনা দেয়া হয়। এ কারণে রেমিটেন্স প্রবাহে ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে।

এবার নতুন অর্থবছর রেমিটেন্স প্রবাহে সুখবর নিয়েই শুরু হয়েছিল। ২০১৯-২০ অর্থবছরের জুলাই মাসে প্রবাসীরা ১৬০ কোটি ডলারের রেমিটেন্স পাঠিয়েছিলেন। ওই অংক ছিল মাসের হিসাবে বাংলাদেশের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। আর গেল বছরের এ মাসের তুলনায় ২১ দশমিক ২০ শতাংশ বেশি। এছাড়া জুলাই মাসের ধারাবাহিকতায় অগাস্ট মাসের শুরুতেও বেশি রেমিটেন্স আসে।

এদিকে কোরবানির ঈদের আগে ৯ আগস্ট পর্যন্ত রেমিটেন্সের তথ্য প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এতে দেখা গেছে, বাংলাদেশে ১ আগস্ট থেকে ৯ আগস্ট পর্যন্ত ৭১ কোটি ৬২ লাখ ডলারের রেমিটেন্স এসেছে।

এর আগে রোজার ঈদকে কেন্দ্র করে মে মাসে ১৭৫ কোটি ৫৮ লাখ ডলার রেমিটেন্স পাঠায় প্রবাসীরা, যা ছিল মাসের হিসাবে বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ। এরও আগে চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে ১৫৯ কোটি ৭২ লাখ ডলার সর্বোচ্চ রেমিটেন্স পাঠিয়েছিল প্রবাসীরা।

পরিসংখ্যান বলছে, প্রবাসীরা ২০১৮-১৯ অর্থবছরে আগের বছরের চেয়ে ৯ দশমিক ৬০ শতাংশ রেমিটেন্স বেশি পাঠিয়েছিলেন। এতে রেমিটেন্সে ২০১৭-১৮ অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি ছিল ১৭ দশমিক ৩২ শতাংশ।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম জানান, গেল অর্থবছরের ধারাবাহিকতায় এই অর্থবছরেও ভালো প্রবৃদ্ধি নিয়ে শুরু হয়েছে। কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে পরিবার-পরিজানের কাছে বেশি টাকা পাঠান প্রবাসীরা। এছাড়া বাজেটে প্রণোদনা দেয়ার কারণেও রেমিটেন্স প্রবাহ বাড়ছে।

তবে ঈদের পরের বেশ কিছুটা সময় রেমিটেন্স প্রবাহে কিছুটা ধীরগতি থাকবে বলে এ খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।

অর্থনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর