ব্রেকিং:
প্রতিটি সূচক অর্জনেই বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের কাতারে: সেতুমন্ত্রী চীনে শুরু হচ্ছে ১০ দিনব্যাপী কুকুর খাওয়ার উৎসব বিশ্বকাপে ব্রাজিলের মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ দেশব্যাপী তালগাছ রোপণ অভিযান শুরু করেছে আওয়ামী লীগ আরেকটি প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রাথমিকে শূন্য পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া দ্রুত করার সুপারিশ ঢাকা বাইপাস সড়কের চার লেন প্রকল্পের কাজ শুরু পার্বত্য জেলার ১৪২ প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের সুপারিশ এলডিসি থেকে টেকসই উত্তরণে নতুন প্ল্যাটফর্ম আওয়ামী লীগ কেবল রাজনৈতিক দল নয়, জাতির নিউক্লিয়াসও: জয় আওয়ামী লীগ হীরার টুকরো, ভাঙলে বেশি জ্বলজ্বল করে : প্রধানমন্ত্রী খালের পানিতে নেমে ডুবে গেল দুই শিশু ৩০ টাকায় মেলে ভাত মাছ সবজি ডিম গাছে গাছে পাখির নিরাপদ আশ্রয় করে দিচ্ছেন যুবকরা দুই আঙুলে নাক টিপে পথ চলতে হয় এখানে চাচার ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন কলেজছাত্রী এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের ১৬ লাখ টাকা লুটের নেপথ্যে ‘ছিনতাই’ প্রতিবন্ধীদের চলাচলের রাস্তা কেটে ফেলার অভিযোগ লুঙ্গি ও গামছা পরে সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে গ্রেফতার করল এএসআই টিকা উৎপাদনে আন্তর্জাতিক সহায়তা চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী
  • বৃহস্পতিবার   ২৪ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ১২ ১৪২৮

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪২

আদর্শ সিভি কীভাবে তৈরি করবেন

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ২১ মে ২০২১  

বিশ্ববিদ্যালয়-জীবন থেকে চাকরিসহ নানা প্রয়োজনে জীবনবৃত্তান্ত বা সিভি তৈরি করতে হয়। এমনকি বি‌ভিন্ন সভা-সম্মেলন-ফেলোশিপে অংশগ্রহণের জন্যও এখন সিভি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কোনো কিছুতে আবেদন করার সময় আপনার পরিচয় ও প্রতিনিধি হয়ে থাকে শুধুমাত্র একটি ডকুমেন্ট – যা সিভি নামে পরিচিত।

জীবনবৃত্তান্তে নিজের পরিচয়, অর্জন, যোগ্যতার কথা সংক্ষেপে তুলে ধরাটাই মূল চ্যালেঞ্জ। একটি আদর্শ সিভি কীভাবে তৈরি করবে, সেই পরামর্শ তুলে ধরা হয়েছে।

* সিভির শুরুতেই নাম, ঠিকানা ও যোগাযোগ নম্বর নির্ভুলভাবে লিখুন।

* যোগাযোগের জন্য মুঠোফোন নম্বর অবশ্যই দিতে হবে। অপ্রয়োজনে ২-৩টি ফোন নম্বর লেখা যাবে না। আর ই-মেইল ঠিকানার ক্ষেত্রে বিশেষ খেয়াল রাখতে হবে। যেমন- [email protected] com বা [email protected] com—এ ধরনের হাস্যকর ই-মেইল ঠিকানা ব্যবহার করা যাবে না।

* লিংকড–ইন প্রোফাইলের আইডি ব্যবহার করতে পারেন। প্রয়োজন না হলে ফেসবুক আইডি যুক্ত না করাই শ্রেয়। তবে ব্যক্তিগত ওয়েবসাইট কিংবা নিজ কাজের পোর্টফোলিও প্রকাশিত হয়েছে এমন ওয়েবসাইটের নাম লেখা যেতে পারে।

* সদ্য তোলা ছবি যুক্ত করুন। ছবিতে আপনার চেহারা অবশ্যই স্পষ্ট বোঝা যেতে হবে। মনে রাখবেন, হাসিমুখে ছবি তোলাই বুদ্ধিমানের কাজ।

* সদ্য ডিগ্রিপ্রাপ্ত হলে শিক্ষাগত যোগ্যতা আগে লিখুন। তবে পেশাজীবী হলে আগে লিখুন কর্ম অভিজ্ঞতা, পরে শিক্ষাগত যোগ্যতা।

* কর্মের বিস্তারিত না লিখে অভিজ্ঞতার মেয়াদকাল লিখুন। কারণ কোন পদের কী কাজ- নিয়োগকারীরা জানেন/বোঝেন। তবে ওই পদে থাকা অবস্থায় আপনার অর্জনগুলো লিখতে পারেন; সেটাই আপনার সিভি'র নিজস্বতা।

* যেসব কর্মশালা বা প্রশিক্ষণে অংশ নিয়েছেন তার তালিকা যুক্ত করতে পারেন। চাকরির পদের সঙ্গে গুরুত্ব বুঝে কর্মশালা ও প্রশিক্ষণের তথ্য যোগ করুন। এতে নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ আপনার সম্পর্কে উচ্চ ধারণা পোষণ করবেন।

* আপনি স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে যে কাজ বা সংগঠনে যুক্ত তার তথ্য লিখুন। এতে আপনার সম্পর্কে ভালো ধারণা সৃষ্টি হতে পারে।

* সাধারণভাবে বাংলাদেশে চাকরির আবেদনের জন্য বাংলা ও ইংরেজি জানা আবশ্যিক। ইংরেজি ও অন্যান্য ভাষা দক্ষতা-সংশ্লিষ্ট কোনো পরীক্ষায় অংশ নিলে তার ফলাফল উল্লেখ করুন।

* সবশেষে দু'জন রেফারেন্স উল্লেখ করতে হবে; একজন পেশাগত, অন্যজন ব্যক্তিগত সম্পর্কীয়। অবশ্যই আগে অনুমতি না নিয়ে কারো রেফারেন্স ব্যবহার করবেন না। রেফারেন্সে যার নাম থাকে, তার সঙ্গে কখনো কখনো চাকরিদাতা প্রতিষ্ঠান থেকে যোগাযোগ করা হয়। তাই ভুল বা বানোয়াট তথ্য দেবেন না।

* সিভিতে যুক্ত আপনার সব তথ্য সঠিক ও নির্ভুল তা লিখতে হবে। লেখার নিচে আপনার স্পষ্ট স্বাক্ষর থাকতে হবে।

* সবচেয়ে ভালো হয় নিজের সিভি নিজে ডেভেলপ করে নিতে পারলে। তবে পেশাদার সিভি রাইটার/ডেভেলপারের সাহায্য নিলে আরো বেশি লাভবান হবেন।

* কোথাও সিভি জমা দিলে পিডিএফ ফরম্যাটে দেবেন। কারণ কম্পিউটার/ল্যাপটপ বদল হলে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড ফরম্যাট ভেঙে সিভি’র সৌন্দর্য কমে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।