ব্রেকিং:
হাতিয়ার রাজনীতিতে আসছে পালা বদল হাতিয়ায় বিপুল পরিমাণ কারেন্ট জাল উদ্ধার নেহাকে জোর করে চুমু, ভাইরাল সেই ভিডিও ৩০টি দেশে যাচ্ছে লক্ষ্মীপুরের জুতা নোয়াখালীতে বাজেট অলিম্পিয়াড প্রতিযোগিতা-২০১৯ তথ্য প্রযুক্তিতে নারীর অংশগ্রহণ বাড়ছে গৃহবধূকে যৌতুকের জন্য হত্যা মাছ ধোয়ার সহজ পদ্ধতি জানা আছে তো? নিজ বাড়িতে মিলল বৃদ্ধের মরদেহ একা পেয়ে ভাতিজিকে চাচার ধর্ষণ সড়ক দুর্ঘটনায় নোয়াখালী প্রবাসী নিহত ব্লাড ডোনেট ক্লাব এর বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান ২৪ অক্টোবর আমেরিকা প্রবাসীর রহস্যজনক মৃত্যু রক রাজার ‘ডায়েরি’ ঘুমন্ত স্বামীর গলায় ছুরি চালালেন স্ত্রী সিরাজুল ইসলাম মেডিকেলের নতুন সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট হাতিয়ায় বহুল প্রতীক্ষিত আওয়ামীলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে নোবিপ্রবিতে খাদ্য দিবস উৎযাপন সেনবাগে ফ্রী ব্লাড গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পিং জেঠার লালসার শিকার ভাতিজী!

শনিবার   ১৯ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৩ ১৪২৬   ১৯ সফর ১৪৪১

সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান রাজধানীতে চার জঙ্গি আটক ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৩৯১

অবনতির পথে লাকসাম-নোয়াখালী-চাঁদপুর রেল সড়ক

প্রকাশিত: ৭ অক্টোবর ২০১৯  

বিভিন্ন সংকটে ধুঁকছে কুমিল্লার লাকসাম-নোয়াখালী ও লাকসাম-চাঁদপুর রেল রুট। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে রেল স্টেশন বন্ধ হয়ে যাওয়া এবং ট্রেন কমে যাওয়া। এই দুই রুটের স্টেশনগুলো এক সময় ট্রেন আর যাত্রীর উপস্থিতিতে সরগরম থাকলেও এখন তা যেন মৃত বাড়ি। লাকসাম-চাঁদপুর রুটে ১২টি ট্রেন চলাচল করতো। দুই বছর আগে দুইটি এবং ছয় মাস আগে আরো দুটি ট্রেন বন্ধ হয়ে গেছে। একই অবস্থা লাকসাম-নোয়াখালী রুটে। ১২টি ট্রেনের মধ্যে আটটি চলাচল করছে। সেগুলোও অধিকাংশ চলছে রাতের বেলা। এতে দিনে চলাচল করা যাত্রীরা দুর্ভোগে পড়ছেন। যাত্রী না থাকায় স্টেশন সংলগ্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোও বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, এই দুইটি রুটে গত এক যুগে নয়টি রেল স্টেশন বন্ধ হয়ে গেছে। এগুলোর প্লাটফর্মের মধ্যে এখন ধান মাড়াই ও গরু বাঁধার কাজ চলছে। কোথাও রেলওয়ের সম্পত্তি দখল হয়ে যাচ্ছে। বন্ধ হয়ে যাওয়া স্টেশনগুলো হচ্ছে, লাকসাম-নোয়াখালী রেল রুটের দৌলতগঞ্জ, খিলা, বিপুলাসার, বজরা ও মাইজদী। লাকসাম-চাঁদপুর রেল সড়কের শাহতলী, মৈশাদী, বলাখাল ও শাহরাস্তি। এছাড়া আরো ৫/৬টি স্টেশন বন্ধ হওয়ার পথে। বন্ধ হওয়া ট্রেনগুলো হচ্ছে, লাকসাম-চাঁদপুর রুটে ডেমু কমিউটার দুইটি এবং চাঁদপুর-ভৈরব রুটে লোকাল দুইটি। লাকসাম-নোয়াখালী রুটে ডেমু কমিউটার দুইটি এবং নোয়াখালী-লাকসাম রুটে নোয়াখালী লোকাল ট্রেন দুইটি ট্রেন বন্ধ হয়ে গেছে। 

চাঁদপুর শাহরাস্তি এলাকার সাধারণ জনগণ বলেন, এক সময় লাকসাম-চাঁদপুর রুটে মানুষ ট্রেনে বেশি চলাচল করতো। এখন ট্রেন কমে গেছে। শাহরাস্তির মতো একটি গুরুত্বপূর্ণ রেল স্টেশন দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ। এতে যাত্রীরা দুর্ভোগে পড়ছেন, সরকার রাজস্ব হারাচ্ছে।
রেলওয়ে কুমিল্লার ঊর্ধ্বতন উপ-সহকারী প্রকৌশলী (পথ) লিয়াকত আলী মজুমদার বলেন, লাকসাম-নোয়াখালী ও লাকসাম- চাঁদপুর রেল রুটে আগে ১২টি করে ট্রেন চলাচল করতো। এখন আটটি করে ট্রেন চলাচল করছে। ইঞ্জিন ও বগি সংকটে ট্রেন কমে গেছে।

নোয়াখালী সমাচার
নোয়াখালী সমাচার
এই বিভাগের আরো খবর