ব্রেকিং:
মাসব্যাপী জাতির পিতার শাহাদাত বার্ষিকী পালন এবার প্রকাশ হবে ‘বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিকথা’ সোলারের সড়ক বাতিতে আলোকিত চরহাজারী কোম্পানীগঞ্জে ২৬০০ পরিবারে মাঝে চাল সহায়তা সাংবাদিকদের সাথে জনতা ব্যাংক ম্যনেজারের অসৌজন্যমূলক আচরণ চাটখিল জনতা ব্যাংক শাখায় ১ লাখ টাকার গরমিল নোয়াখালীতে আ.লীগ নেতাকে গুলি দক্ষিণ আফ্রিকার সড়কে এক নোয়াখালী প্রবাসীর মৃত্যু দেশে একদিনে আরো ৪৬ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩৪৮৯ দারুল আকরাম মাদ্রাসার প্রকল্প পূন:অনুমোদনের দাবী প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিধবা মহিলা মেম্বারের আকুতি বেগমগঞ্জে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচীর উদ্বোধন সোনাইমুড়ীতে রাস্তার জন্য দূর্ভোগে ৫ হাজার জনসাধারণ ঘুষ নিয়ে এস.আই ক্লোজড করোনায় মারা গেলেন সিভিল সার্জন দেশে একদিনে আরো ৫৫ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩০২৭ গ্রাম পুলিশের ছেলের অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে! ৪ কোটি টাকাসহ মানব পাচারকারী গ্রেপ্তার রাতের আঁধারে ৬৫টি গাছ কেটে নিয়ে গেছে!! কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টা
  • বৃহস্পতিবার   ০৯ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৫ ১৪২৭

  • || ১৭ জ্বিলকদ ১৪৪১

১৬৫

‘অনলাইনে ভিক্ষা’ করে ১৭ দিনে আয় ৪২ লাখ!

নোয়াখালী সমাচার

প্রকাশিত: ১২ জুন ২০১৯  

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজেকে ‘স্বামী পরিত্যক্তা’ দাবি করে দুবাইয়ের মানুষের সহমর্মিতাকে পুঁজি করে ১৭ দিনে এক লাখ ৮৪ হাজার দিরহাম (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৪২ লাখ টাকারও বেশি) হাতিয়ে নিয়েছেন এক নারী। খবর আরব-আমিরাত ভিত্তিক গণমাধ্যম খালিজ টাইমস। 
দুবাই পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের প্রধান জামাল সালেম আল জাল্লাফ জানিয়েছেন, নিজেকে বিদেশি নাগরিক এবং স্বামী পরিত্যক্তা পরিচয় দিয়ে ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম এবং টুইটারের মাধ্যমে সন্তানদের ভরণ-পোষণের জন্য সহায়তা চান তিনি। কিন্তু, তার স্বামীই স্ত্রীর এমন প্রতারণার বিষয়ে অভিযোগ করেন দুবাই পুলিশের কাছে।

তদন্তে জানা গেছে, ওই নারীর দাবি সম্পূর্ণ অসত্য এবং তিনি স্বামীর সঙ্গেই বসবাস করে আসছিলেন। লোকজনের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য নিজের সন্তানদের ছবিও অনলাইনে প্রকাশ করেছিলেন তিনি।

পুলিশ জানিয়েছে, অনলাইনে সন্তানদের ছবি দিয়ে সহায়তা চাওয়ার বিষয়টি কয়েকজন আত্মীয়ের মাধ্যমে জানতে পারেন ওই নারীর স্বামী।

দুবাইয়ের আইন অনুযায়ী অনলাইনে ভিক্ষাবৃত্তি এক ধরনের অপরাধ। তবে, অসুস্থতা কিংবা দারিদ্র্যের দোহাই দিয়ে দেশটিতে অনেকেই এ ধরনের কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ছেন। এ ধরনের অপরাধে জেল কিংবা জরিমানা অথবা উভয় শাস্তিরই বিধান রয়েছে।

আন্তর্জাতিক বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর